শনিবার, ডিসেম্বর ১৬, ২০১৭

আমাদের কণ্ঠস্বর

প্রধান ম্যেনু

তারুণ্যের সংবাদ মাধ্যম

প্রতিদিন দুই কোটি টাকা লেনদেন

ঝিনাইদহে যাত্রা ও মেলার নামে জুয়া, র্যাফল ড্র

ঝিনাইদহ প্রতিনিধিঃ
ঝিনাইদহ জেলার পাঁচটি স্থানে যাত্রা ও মেলার নামে জুয়ার আসর বসছে। এসব স্থানে দেখানো হচ্ছে অশ্লীল নৃত্য। এসব অপতৎপরতার পাশাপাশি জেলা শহরের মোড়ে মোড়ে আকর্ষণীয় ও দামি পুরস্কার দেওয়ার লোভ দেখিয়ে বিক্রি করা হচ্ছে লটারি।

এসব লটারি কিনে ব্যবসায়ী, তরুণ ও সাধারণ খেটে খাওয়া মানুষ সর্বস্বান্ত হচ্ছে। এসব বন্ধে প্রশাসন ব্যবস্থা নিচ্ছে না বলে অভিযোগ করেছেন এলাকাবাসী। এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, ‘দৈনিক বেনারশি’, ‘দৈনিক সোনামনি’, ‘দৈনিক উল্লাস’সহ বিভিন্ন নামে চলছে টিকিট বিক্রি।

যাত্রা ও বিজয় মেলার নামে মাঠে বসছে হাউজি, ওয়ানটেন, চরকাসহ নানা রকম জুয়ার আসর। এতে আসক্ত হয়ে পড়ছেন তরুণ ও কিশোরেরা। এতে তাঁদের পড়ালেখার ক্ষতি হওয়ার পাশাপাশি সামাজিক অবক্ষয় ঘটছে বলে জানিয়েছেন একাধিক অভিভাবক। আয়োজক ও স্থানীয় বিভিন্ন সূত্রে জানা গেছে, ঝিনাইদহের দুটি স্থানে প্রতিদিনের র্যাফল ড্রয়ে ৪০-৫০ লাখ টাকা লেনদেন হচ্ছে। যাত্রার অনুষ্ঠানে জুয়া খেলায় আরও ৫০ লাখ টাকা লেনদেন হচ্ছে। এক হিসাব অনুযায়ী ঝিনাইদহে প্রতিদিন জুয়া খেলায় কোটি টাকার লেনদেন হয়।

এ ব্যাপারে জেলা প্রশাসক মো. মাহবুব আলম তালুকদার বলেন, এসবের অনুমোদন তাঁর দপ্তর থেকে দেওয়া হয়নি। যারা এভাবে জুয়ার আসর বসাচ্ছে, তাদের বিরুদ্ধে খোঁজ নিয়ে ব্যবস্থা নেবেন তিনি।সরেজমিনে দেখা গেছে, ঝিনাইদহ জেলা শহরের নিউ একাডেমি স্কুল মাঠ, হরিণাকুন্ডু পৌরসভার পাশে, শৈলকুপার বসন্তপুর, ভাটই, কোটচাঁদপুরের আজমপুরে জুয়ার আসর বসানো হয়েছে।

এর মধ্যে জেলা শহরের নিউ একাডেমি মাঠে বাণিজ্য মেলার নামে হাউজি ও বেনারশি র্যাফল ড্র চলছে। ঝিনাইদহ জেলা শিল্প ও বণিক সমিতি আয়োজিত এই মেলার লটারি প্রতিদিন আনুমানিক দুই শ গাড়ি দিয়ে বিভিন্ন এলাকায় বিক্রি করা হয়।

মোটরসাইকেল, নগদ টাকাসহ লোভনীয় সব পুরস্কারের ঘোষণা দিয়ে লটারি কিনতে উৎসাহিত করা হচ্ছে। একইভাবে মহেশপুর উপজেলার আজমপুর এলাকায় আয়োজিত বিজয় মেলায় চলছে দৈনিক সোনামনি র্যাফল ড্র। পাশাপাশি যাত্রার নামে চলছে অশ্লীল নৃত্য। আরও চলছে জুয়ার আসর। শৈলকুপা পৌর এলাকার নতুন ব্রিজ এলাকায় গত ২৯ ডিসেম্বর থেকে আরেকটি যাত্রা ও পুতুলনাচের অনুষ্ঠান শুরু হয়েছে। সব প্রস্তুতি শেষ হয়েছে এই স্থানে যাত্রা অনুষ্ঠানের। হরিণাকুন্ডু উপজেলা শহরে অনুষ্ঠিত যাত্রার নামে জুয়ার আসর গত ২১ ডিসেম্বর শেষ হয়েছে। যাত্রার নামে জুয়ার আসর ও অশ্লীল নৃত্যের আয়োজন করায় এলাকার লোকজন ফুঁসে ওঠে।

পরে আয়োজকেরা ওই অনুষ্ঠান বন্ধ করে দিতে বাধ্য হন। বর্তমানে কুলবাড়িয়া ও চরপাড়ায় দুটি প্যান্ডেল তৈরির কাজ চলছে।জেলা শহরের রিকশাচালক নাজিম উদ্দিন দিনে ৩০০ টাকা আয় করেন। এর মধ্য থেকে ১০০ টাকা দিয়ে কয়েক দিন ধরে বেনারশি র্যাফল ড্রয়ের পাঁচটি টিকিট কেনেন। বাকি টাকায় কষ্ট করে চারজনের সংসার চালান। তিনি বলেন, এই টিকিট কাটায় ঠিকমতো সংসার চালাতে পারেননি, তাই পরিবারের লোকজনের সঙ্গে বচসা হয়েছে, তারপরও টিকিট কিনে গেছেন।

শেষে কোনো পুরস্কার না পেয়ে বন্ধ করে দিয়েছেন। এ ব্যাপারে ঝিনাইদহ শিল্প ও বণিক সমিতির সভাপতি নাসির উদ্দিন বলেন, কিছুটা সমস্যা দেখা দিয়েছে। এভাবে লটারি হবে, তা তাঁরা বুঝে উঠতে পারেননি। তবে ভবিষ্যতে চেম্বার অব কমার্স এ জাতীয় মেলা আর করবে না।

এই সংক্রান্ত আরো সংবাদ

ঝিনাইদহে শিশুকে শ্বাসরোধে হত্যা, বাবা গ্রেফতার

ঝিনাইদহের কালীগঞ্জে ইসরাইল হোসেন (৯) নামে এক শিশু সন্তানকে গলাটিপেবিস্তারিত পড়ুন

ঝিনাইদহে পুলিশের বিশেষ অভিযানে গ্রেফতার ৩২, অস্ত্র-গুলি উদ্ধার

ঝিনাইদহ প্রতিনিধিঃ ঝিনাইদহে বিশেষ অভিযান পরিচালনা করে ৩২ জনকে গ্রেফতারবিস্তারিত পড়ুন

ঝিনাইদহে নিখোঁজের ৩ দিন পর নারীর লাশ উদ্ধার

ঝিনাইদহে নিখোঁজের তিনদিন পর সেপটিক ট্যাংক থেকে আনোয়ারা বেগম নামেরবিস্তারিত পড়ুন

  • সকাল থেকে ফের অভিযান
  • ঝিনাইদহে জঙ্গি আস্তানা সন্দেহে ২ বাড়িতে অভিযান শুরু
  • দুই বাড়িতে বিস্ফোরক পুঁতে রাখা রয়েছে : র‍্যাব
  • ঝিনাইদহে একটি কলা গাছে ৬৫টি মোছা
  • ঝিনাইদহ থেকে হারিয়ে যাচ্ছে দেশি পাখি
  • অপারেশন ‘সাটল স্প্লিট’ শেষ
  • ঝিনাইদহের লেবুতলার জঙ্গি আস্তানায় অভিযান শুরু
  • ঝিনাইদহে প্রতিবন্ধীকে ধর্ষণ, বতর্মানে এক মাসের অন্তঃসত্তা, বিচার চেয়ে আদালতের শরণাপন্ন
  • সরকারের অবহেলায় ঝিনাইদহের ফুলচাষীরা কঙ্খিত সাফল্য পাচ্ছে না
  • নিজের বাল্যবিয়ে নিজেই ঠেকালো কিশোরী
  • ঝিনাইদহের ‘জঙ্গি আস্তানায়’ বৃষ্টি থামলেই অভিযান
  • ‘জঙ্গি আস্তানা’ সন্দেহে ঝিনাইদহে বাড়ি ঘেরাও
  • Enjoy this blog? Please spread the word :)