সোমবার, জুলাই ১৫, ২০২৪

আমাদের কণ্ঠস্বর

প্রধান ম্যেনু

তারুণ্যের সংবাদ মাধ্যম

অনলাইনের মাধ্যমে যেভাবে চলছে রমরমা দেহব্যবসা (ভিডিও)

সেই আদিকাল থেকেই চলে আসছে দেহ বিলিয়ে দেয়ার ব্যবসা বা দেহব্যবসা। এ ব্যবসা যেমন থেমে নেই তেমনি এবার যুগের সাথে তাল মিলিয়ে অনলাইনে যোগাযোগের মাধ্যমে চলছে অভিনব কায়দায় দালালদের মধ্যস্ততায় রমরমিয়ে নারীদেহ নিয়ে খেলা করা ব্যবসা। দেশের প্রথম সারির একটি বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেলের প্রতিবেদনে উঠে এসেছে এই দেহব্যবসার নানা তথ্য।

দেহব্যবসা পৃথিবীর বিভিন্ন দেশে বৈধতা থাকলেও আমাদের দেশে এই ব্যবসার কোন বৈধতা নেই। দেশে দেহব্যবসার আইন স্বীকৃত না থাকলেও দেধারছে চলছে এই ব্যবসা, বিশেষ করে রাজধানী ঢাকায় অনলাইনে দালালদের মাধ্যমে যোগাযোগ করে বিভিন্ন ফ্ল্যাট বাড়িতে এই অবৈধ ব্যবসা চলছে বেশ রমরমিয়ে।

প্রতিবেদটিতে ওঠে এসেছে রাজধানীর গুলশান, বনানী ছাড়াও মহাখালী, ডিওএইচএস, লালমাটিয়া, ইস্কাটনরোড, সেন্ট্রালরোড, মোহাম্মদপুর, রামপুরা, শান্তিনগর, উত্তরাসহ আরো কয়েকটি এলাকায় ফ্ল্যাট বাড়িতে জমজমাট দেহব্যবসার কথা। যেখানে উচ্চ দামে যৌনকর্মীদের পুরো রাত অথবা ঘন্টা হিসেবে দালালদের মধ্যস্ততায় খরিদ করে দেহভোগ করে থাকে এক শ্রেণির মানুষ।

দুই থেকে তিনজন যৌনকর্মীর সাথে কথা বলে তাদের এ পথে আসার গল্প জানা গেছে প্রতিবেদনটিতে। তারা জানিয়েছে এ পথে জড়িয়ে যাওয়ার বিভিন্ন কষ্টের কথাও। জানা গেছে, এ পথের দালালদের অনেকটা হদিসও। এছাড়াও কত মানুষ প্রতি রাতে এই দেহব্যবসায়ীদের সাথে অবৈধ কর্মে লিপ্ত হচ্ছে এবং কত দেহব্যবসায়ী তাদের দেহ উজাড় করে দিচ্ছে তাহাও উল্লেখ করা হয়েছে।

এছাড়াও প্রতিবেদনটিতে কত বছর বয়সীরা এ ব্যবসার সাথে জড়িয়ে পড়ছে সেটাও উল্লেখ করা হয়েছে। এবং এখানে এই দালাল চক্রের গডফাদারের দর্শনও দেখানো হয়েছে। এবং এই দেহব্যবসায়ীদের নিয়ে সমাজের উচ্চ শ্রেণিরাও ফূর্তি করছে বলে উল্লেখ রয়েছে।

https://www.youtube.com/watch?v=2pF9icDWQNY

এই সংক্রান্ত আরো সংবাদ

বিমানের লাগেজ থেকে সাড়ে ৪ কোটি টাকার স্বর্ণ উদ্ধার

 ৪ কেজি ৪২০ গ্রাম স্বর্ণের বার হযরত শাহজালাল আন্তর্জা‌তিক বিমানবন্দরবিস্তারিত পড়ুন

মোবাইল ফোনে প্রশ্নপত্রের ছবি তোলায় শিক্ষকের কারাদণ্ড

পটুয়াখালীর বাউফলে এইচএসসি সমমানের আলিম পরীক্ষার হলে মোবাইল ফোনে প্রশ্নপত্রেরবিস্তারিত পড়ুন

বেনজীরের ঢাবি’র পিএইচডি ডিগ্রি বাতিলের প্রস্তাব

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সিনেট সদস্যরা পুলিশের সাবেক মহাপরিদর্শক বেনজীর আহমেদের পিএইচডিবিস্তারিত পড়ুন

  • মতিউর গোয়েন্দা নজরদারির মধ্যে দেশেই আছেন 
  • কারাগারের ছাদ ফুটো করে পালানোর সময় মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত ৪ কয়েদি গ্রেফতার
  • রাজধানীতে পৃথক ঘটনায় দুই নারীর আত্মহত্যা
  • চাঁদা তুলে পরিবার চালানোর অধিকার রাজনীতিবিদদের নেই: ওবায়দুল কাদের
  • চাঁদপুরে যৌথ অভিযানে ১১ মণ জেলিযুক্ত চিংড়ি জব্দ
  • কুড়িগ্রামে অবৈধ জাল বিক্রি ও মজুদের দায়ে তিনজনকে কারাদণ্ড
  • নোয়াখালীতে অস্ত্র ঠেকিয়ে কিশোরীকে অপহরণের অভিযোগ
  • নান্দাইলে চাচাতো ভাইয়ের হাতে চাচাতো ভাই খুন
  • আছাদুজ্জামান মিয়ার বিরুদ্ধে দুর্নীতির তেমন অভিযোগ আসেনি, হলে বিচার হবে: ওবায়দুল কাদেরের
  • সাবেক কমিশনার ওয়াহিদা রহমানের দেশত্যাগে নিষেধাজ্ঞা
  • কালোবাজারি চক্রের বিরুদ্ধে র‍্যাবের গোয়েন্দার নজরদারি
  • মেয়াদোত্তীর্ণ ঔষুধ পাওয়ায় চার ফার্মেসিকে জরিমানা