শনিবার, মে ১৮, ২০২৪

আমাদের কণ্ঠস্বর

প্রধান ম্যেনু

তারুণ্যের সংবাদ মাধ্যম

আকাশের ছবি তুলে পোস্ট করলেন মমতা, তারপরই তীব্র সমালোচনা

নীল আকাশে মেঘের ভেলা। কিন্তু তার মধ্যেও কারও কারও চোখে ধরা পড়ল দার্জিলিংয়ের আগুন।

তারপরই মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের টুইটার হ্যান্ডেলে আসতে থাকে একের পর এক বিদ্রুপাত্মক মন্তব্য।
গত বৃহস্পতিবার নবান্ন থেকে মুখ্যমন্ত্রী আকাশের ছবি তুলে নিজের টুইটার হ্যান্ডলে পোস্ট করেছিলেন। সঙ্গে লিখেছিলেন ‘ছবিটি আমি নবান্ন থেকে তুলেছি। আপনাদের সকলের সঙ্গে শেয়ার করে নিচ্ছি’। ছবিটির সঙ্গে রাজনীতি, কূটনীতি বা রাজ্যের সাম্প্রতিক পরিস্থিতির কোনও সম্পর্ক নেই। স্রেফ নীল আকাশে সাদা-কালো মেঘের খেলে বেড়ানোর ছবি। কিন্তু সেই ছবি দেখেও কটাক্ষ করতে ছাড়েননি অনেকে।

এমনিতেই দার্জিলিং নিয়ে মুখ্যমন্ত্রীকে নিশানা করে বিরোধীদের আক্রমণ অব্যাহত। কিন্তু তাঁর নিজস্ব টুইটার হ্যান্ডলেও এ ব্যাপারে ব্যক্তিগত আক্রমণকে কুরুচিকর বলেই মনে করছেন রাজনীতির কারবারিদের একাংশ। বিশেষ করে মুখ্যমন্ত্রীর পোস্ট করা ছবিটি যখন একেবারেই অরাজনৈতিক।

ছবিটির প্রশংসা করে টুইট করেছেন অনেকেই। শুক্রবার রাত পর্যন্ত ছবিটি রিটুইট করেছেন ১৯০ জন। ‘নাইস’, ‘একসেলেন্ট’, ‘দারুণ দৃশ্য’ এবং ‘অ্যামেজিং’য়ের মতো বহু মন্তব্যও এসেছে।

আবার অনেকেই এমন মন্তব্য করেছেন যার সঙ্গে ছবিটির কোনও সম্পর্ক নেই। যেমন সাহিল নামে এক ব্যক্তি লিখেছেন, ‘রোম যখন জ্বলছিল তখন নিরো বাঁশি বাজাচ্ছিলেন। দার্জিলিং যখন পুড়ছে তখন দিদি ছবি তুলছেন’। দার্জিলিঙের বর্তমান পরিস্থিতির জন্য সরাসরি মুখ্যমন্ত্রীকে দায়ী করে পঙ্কজ যাদব নামে এক ব্যক্তি মমতার টুইটার হ্যান্ডেলে লিখেছেন, ‘আপনার জন্যই দার্জিলিং জ্বলছে। আপনি গণতন্ত্রকে ধ্বংস করছেন’। মান্না সরকার নামে একজনের মন্তব্য, ‘এইসব ছাড়ুন। দার্জিলিংয়ের অবস্থা দেখুন’। বরুণ সিংহ নামে এক ব্যক্তি লিখেছেন, ‘খুব ভাল। বাংলার একটা অংশ যখন জ্বলছে, তখন আপনি আকাশের ছবি সাজাচ্ছেন’!

আবার এক ব্যক্তি লিখেছেন, ‘দেখে মনে হচ্ছে একটি শিল্প শহর, যেখানে একটি শিল্পও নেই’। রাকেশ মুরারকা নামে এক ব্যক্তির কটাক্ষ, ‘ফটোগ্রাফিকে পেশা করুন। বাংলাকে বাঁচতে সাহায্য করুন’। অনুজ আর্য নামে এক ব্যক্তি মুখ্যমন্ত্রীর কাছে জানতে চেয়েছেন, ‘ছবিটি ভাল, কিন্তু আপনি রাজনীতি ছাড়ছেন কবে’?

মুখ্যমন্ত্রীর বিদ্রুপকারীদের মধ্যে কাউকে কাউকে আবার পাল্টা খোঁচাও খেতে হয়েছে। একজন লিখেছেন, ‘দিদি, এটা প্রতিবাদ জানানোর খুব ভাল উদাহরণ। যাঁদের বুদ্ধি আছে, তাঁরা বুঝবেন আকাশের দিকে মুখ করে থুতু ছেটালে তা নিজের মুখেই পড়ে’।
সূত্র: এবেলা

এই সংক্রান্ত আরো সংবাদ

তাইওয়ানের পার্লামেন্টে তুমুল মারামারি

তাইওয়ানের পার্লামেন্টে তুমুল মারামারিতে জড়িয়েছেন আইনপ্রণেতারা। একটি আইনের সংস্কার নিয়েবিস্তারিত পড়ুন

বাণিজ্য সম্প্রসারন নিয়ে পুতিন-শির বৈঠক

 চীনের সঙ্গে কৌশলগত অংশীদারিত্বের একটি ‘নতুন যুগ’ সূচনার প্রতিশ্রুতি দেওয়ারবিস্তারিত পড়ুন

ভ্রমণ ভিসায় ভারতে যাতায়াত তিন দিন বন্ধ

আগামী ২০ মে থেকে ভারতের পশ্চিমবঙ্গ জেলার লোকসভা নির্বাচনের ভোটগ্রহণবিস্তারিত পড়ুন

  • পুতিন রাষ্ট্রীয় সফরে চীনে পৌঁছেছেন 
  • নীতি সহায়তা যুক্ত হচ্ছে রফতানিতে
  • কানের ৭৭তম আসরের পর্দা উঠছে আজ
  • এক ভিসায় ভ্রমণ করা যাবে উপসাগরীয় ছয় দেশ
  • রাশিয়ার প্রতিরক্ষামন্ত্রী সের্গেই শোইগুকে নিরাপত্তা পরিষদের প্রধান করা হয়েছে
  • সেই পাঁচ রাজ্যে বাইডেনের চেয়ে এগিয়ে ট্রাম্প
  • গাজায় মানবিক কনভয়ে ইসরায়েলি হামলার নিন্দা জানিয়েছে বাংলাদেশ
  • দেশের রিজার্ভ কমে ১৮ বিলিয়ন ডলার
  • আফগানিস্তানে ভয়াবহ বন্যায় ৬০ জনের মৃত্যু, বহু নিখোঁজ
  • জাতিসংঘে ফিলিস্তিনকে পূর্ণ সদস্য করার প্রস্তাব পাস  
  • ফিলিস্তিনপন্থী পোস্টে রিঅ্যাক্ট দেওয়ায় চাকরিচ্যুত প্রধান শিক্ষিকা
  • ভিসাপ্রক্রিয়া সহজ করার ব্যাপারে আলোচনা হয়েছে: পররাষ্ট্রমন্ত্রী