রবিবার, জুলাই ১৪, ২০২৪

আমাদের কণ্ঠস্বর

প্রধান ম্যেনু

তারুণ্যের সংবাদ মাধ্যম

ঈদের পর সারাদেশ সফর করবেন প্রধানমন্ত্রী

সরকারের সাড়ে ৬ বছরের উন্নয়ন কর্মকাণ্ড স্বচক্ষে দেখতে এবং কর্মী-সমর্থকদের উজ্জীবিত ও সংগঠনের অভ্যন্তরে বিরাজমান স্থবিরতা কাটিয়ে তুলতে আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সারাদেশে সফর করতে যাচ্ছেন। আসন্ন ঈদুল আজহার পর এ সফর কার্যক্রম শুরু হবে। এর আগে চলতি মাসে জাতিসংঘের সাধারণ অধিবেশনে যোগ দিতে যুক্তরাষ্ট্রে যাবেন তিনি।

প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের গুরুত্বপূর্ণ একটি সূত্র এ তথ্য নিশ্চিত করেছে। সূত্রটি আরও জানায়, সম্ভাব্য এ সফর শুরু হতে পারে চলতি বছরের অক্টোবরের মাঝামাঝি সময়ে। এদিকে আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনও এ সফরের উপলক্ষ বলে মনে করছেন কোনও কোনও কেন্দ্রীয় নেতা।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের এ সংক্রান্ত সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা সফরের সময়সূচি এবং কখন কোন জেলায় সফর করবেন তার দিনক্ষণ নির্ধারণের কাজ শুরু করেছেন। এ প্রসঙ্গে আওয়ামী লীগের কয়েকজন কেন্দ্রীয় নেতার কাছে জানতে চাইলে তারাও প্রধানমন্ত্রী সফরের বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহাবুব উল আলম হানিফ বলেন, নেত্রীর (শেখ হাসিনা) সারাদেশে সফরে বের হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। এর আগে তিনি কয়েকটি জেলায় সফর করেছেন, জনসভায় বক্তৃতা দিয়েছেন। মাঝে সরকারি কাজে ব্যস্ত সময় পার করার কারণে সফর চালিয়ে যাওয়া সম্ভব হয়নি। রাজনৈতিক পরিস্থিতিও অনুকূলে ছিল না। তাই সফর কার্যক্রম আবার শুরু হতে পারে।

জানা গেছে, সাত বিভাগে অন্তত ৩০টি জেলা ও ৫০টি উপজেলায় শেখ হাসিনার সফর করার পরিকল্পনা রয়েছে। সময়-সুযোগ বুঝে এ সংখ্যা আরও বাড়তে পারে। সূত্রমতে, সাংগঠনিকভাবে দুর্বল জেলা-উপজেলাগুলোয় আগে সফর করবেন প্রধানমন্ত্রী। এখানে দলীয় নেতাকর্মীদের সঙ্গে কথা বলবেন এবং জনসভায় বক্তৃতা করবেন।

অপর একটি সূত্র জানায়, গত শুক্রবার ইন্টারনেট সপ্তাহ উদ্বোধন অনুষ্ঠানে কয়েকটি জেলার নেতাদের সঙ্গে ভিডিও কনফারেন্সে কথা বলার সময় প্রধানমন্ত্রী নিজেও সফরে বের হওয়ার কথা অবহিত করেন।

এই সংক্রান্ত আরো সংবাদ

ছাত্রপক্ষের ঢাবি শাখার আহ্বায়ক জিহাদ, সদস্যসচিব হাসিব

খালিদ সাইফুল্লাহ জিহাদকে আহ্বায়ক এবং জুবায়ের হাসিবকে সদস্যসচিব করে বাংলাদেশবিস্তারিত পড়ুন

আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের ওপর হামলার প্রতিবাদে খুবিতে বিক্ষোভ

সংসদে আইন পাশ করে কোটা সংস্কারের দাবি ও বিভিন্ন ক্যাম্পাসে কোটা আন্দোলনের সময় শিক্ষার্থীদের ওপর হামলার প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল করেছে খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের (খুবি) শিক্ষার্থীরা। শুক্রবার বিকাল ৫টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের হাদী চত্বর থেকে বিক্ষোভ মিছিলটি বের করা হয়। মিছিলটি আচার্য জগদীশচন্দ্র বসু একাডেমিক ভবন, কেন্দ্রীয় মন্দির, অপরাজিতা ছাত্রী হল, কেন্দ্রীয় গবেষণাগার, কেন্দ্রীয় গ্রন্থাগার, আবাসিক ছাত্র হল, শহিদ তাজ উদ্দিন আহমেদ প্রশাসন ভবনসহ বিভিন্ন ভবনের সামনে দিয়ে পুরো ক্যাম্পাস প্রদক্ষিণ করে। পরে বিশ্ববিদ্যালয়ের পুলিশ ফাঁড়ির সামনে দিয়ে প্রধান ফটকের সামনে অবস্থান নেয়। তবে শিক্ষার্থীরা সড়কের একপাশে অবরোধ করায় যান চলাচল স্বাভাবিক ছিল। বিক্ষোভে শিক্ষার্থীরা বিভিন্ন স্লোগান দিতে থাকেন। শিক্ষার্থীরা বলেন, বৈষম্যমূলক কোটা ব্যবস্থার বিরুদ্ধে কথা বলায় বিভিন্ন ক্যাম্পাসে শিক্ষার্থীদের লাঠিচার্জ করে আহত করা হয়েছে। শিক্ষার্থীদের গায়ে কেন হাত দেওয়া হলো প্রশাসনকে এর জবাব দিতে হবে। দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত পুলিশ দিয়ে হামলা করে ছাত্র সমাজকে দমানো যাবে না।

ভারি বৃষ্টির আভাস ৪ বিভাগে, বাড়তে পারে তাপমাত্রা

দেশের চার বিভাগে ভারি এবং চার বিভাগে হালকা বৃষ্টি হতেবিস্তারিত পড়ুন

  • সরকারের জিম্মি থেকে দেশ ও জনগণ মুক্তি চায়: রাশেদ প্রধান
  • সতর্কবার্তা যাচ্ছে কোটা আন্দোলনে
  • পাকিস্তানের সংসদে পিটিআইকে সংরক্ষিত আসন দিতে আদালতের নির্দেশ
  • তিন দিন পর সারাদেশে গ্যাস সরবরাহ স্বাভাবিক
  • বাংলা ব্লকেডে শিক্ষার্থীরা, ‘কঠোর’ পুলিশ, মাঠে ছাত্রলীগও
  • ছাগলকাণ্ড: মতিউর পরিবারের আরও ১১৬টি ব্যাংক হিসাব, জমি-ফ্ল্যাট জব্দের নির্দেশ
  • খালেদা জিয়ার মুক্তির জন্য দরকার রাজনৈতিক দাওয়াই: মির্জা আব্বাস
  • পুলিশের ব্যারিকেড ভেঙে শাহবাগে শিক্ষার্থীরা, পিছু হটল রায়ট কার
  • কোটা আন্দোলন: মেট্রোরেলের শাহবাগ স্টেশন বন্ধ
  • আসামিসহ প্রিজন ভ্যান আটকে দিলো আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীরা
  • কোটা আন্দোলন: শিক্ষার্থীদের ক্লাসে ফেরার আহ্বান প্রধান বিচারপতির
  • দশম দিনে গড়াল ঢাবি শিক্ষকদের কর্মবিরতি