বৃহস্পতিবার, মে ২৩, ২০২৪

আমাদের কণ্ঠস্বর

প্রধান ম্যেনু

তারুণ্যের সংবাদ মাধ্যম

এবার যে চরিত্রে অভিনয় করতে যাচ্ছেন জয়া

পূর্ণদৈর্ঘ্য সিনেমার প্রতিষ্ঠিত নায়িকা জয়া আহসান প্রথমবারের মতো অভিনয় করলেন স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র ‘ভালোবাসার শহর– দ্য সিটি অফ লাভ’-এ। চলচ্চিত্রটি নির্মাণ করেছেন কলকাতার নির্মাতা ইন্দ্রনীল রায় চৌধুরী।

‘ভালোবাসার শহর– দ্য সিটি অফ লাভ’-এ প্রথমবারের মতো জয়া অভিনয় করছেন ‘নামহীন’ এক চরিত্রে। এ প্রসঙ্গে গ্লিটজকে তিনি বলেন, “আমার অভিনীত চরিত্রটির কোনো নাম নেই। আপনি যদি আমাকে প্রশ্ন করেন আমার চরিত্র প্রসঙ্গে, তাহলে বলবো আমি নামহীন একটি চরিত্রে অভিনয় করেছি। সিনেমাটি দেখার পরেই আপনারা বুঝতে পারবেন, কেনো মেয়েটির নাম দেয়া হয়নি।”

প্রথমবাবের মতো স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্রে অভিনয় সম্পর্কে গ্লিটজকে জয়া আহসান বলেন, “সময়ের দিক থেকে হিসেব কষলে এটি স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র। হয়ত ১৫ থেকে ২০ মিনিট দৈর্ঘ্যের সিনেমা হবে। কিন্তু আসলে এটা একটি সম্পূর্ণ সিনেমা। সিনেমাতে কাজের অনূভুতির মতোই একই রকম অনূভুতি এখানেও কাজ করেছে। আসলে একটি ব্যতিক্রম ইমেজে নিজেকে দেখা– যেমনটি একজন অভিনেতার হয়ত মঞ্চে কিংবা অন্য মাধ্যমে নিজেকে দেখে মনে হয়— সে রকম অনূভুতিই কাজ করেছে ‘ভালোবাসার শহর– দ্য সিটি অফ লাভ’-এ।”

বাণিজ্যিক এবং বিকল্প– দুই ধারাতেই পূর্ণদৈর্ঘ্য সিনেমায় যখন তুঙ্গে রয়েছেন জনপ্রিয়তার, ঠিক এই সময়টাতে স্বল্পদৈর্ঘ্য সিনেমায় কাজের নেপথ্যের কারনটা কী?

এমন প্রশ্নের উত্তরে জয়া বললেন, “প্রথমত, সিনেমার গল্প। অসাধারণ একটা গল্প, ভীষণ কমিটেড একটা গল্প। আমার কাছে মনে হয়েছে সময় মনে রাখবে এই গল্পটা। সিনেমার নির্মাতাও একটি গুরুত্বপূর্ণ কারণ। তাছাড়া, কখনো তো স্বল্পদৈর্ঘ্য সিনেমায় কাজ করা হয়নি, একটু কাজ করেই দেখি না আসলে কেমন হয়। স্বল্পদৈর্ঘ্য সিনেমার মতো এতো ছোট পরিসরে পুরো চলচ্চিত্রটাকে বলা যায় কীনা সেটাও দেখার বিষয়।”
স্বল্পদৈর্ঘ্য সিনেমা হলেও কাজের ক্ষেত্রে কোনো চ্যালেঞ্জের মুখোমুখি হননি জয়া। সিনেমাটিতে কাজের অভিজ্ঞতা প্রসঙ্গে তিনি বলেন, “একজন অভিনেতা যেমন করে কাজ করে এই স্বল্পদৈর্ঘ্য সিনেমাতে ঠিক সেই ভাবেই কাজ করেছি। একজন অভিনেতা যখন কোনো নাটক কিংবা পূর্ণদৈর্ঘ্য সিনেমা কিংবা কোন স্বল্পদৈর্ঘ্য সিনেমায় অভিনয় করেন তখন তিনি তার সবটুকুই দিয়েই অভিনয় করেন। আসলে একটি সিনেমা নির্মাণের জন্য যেমন আয়োজন করা হয় সেই ধরনের পুরো আয়োজনই ছিলো এই স্বল্পদৈর্ঘ্য সিনেমাটির ক্ষেত্রে।”

ইন্দ্রনীল রায় চৌধুরীর স্বল্পদৈর্ঘ্য সিনেমাতে বাংলাদেশের জয়া আহসান ছাড়াও আরো অভিনয় করেছেন কলকাতার হৃত্বিক চক্রবর্তী, অরুণ মুখোপাধ্যায় এবং শর্মী সরকার।

জয়ার ভক্তরা কি তাকে এই সিনেমায় আবারও নতুন কোন অবতারে পেতে যাচ্ছেন? এমন প্রশ্নের উত্তরে জয়া হেসে বললেন, “না, সে রকম কিছু নয়। খুব ছোট জায়গা তো, মাত্র বিশ মিনিটের একটি সিনেমা। আসলে সিনেমার গল্পটি নিজেই নিজের শক্তি। সিনেমাটিকে সবাই গল্পের কারণেই মনে রাখবে। সিনেমার সঙ্গে যদি কেউ জয়াকে মনে রাখে তাহলে সেটা আমার জন্য বোনাস।”

তাহলে ‘ভালোবাসার শহর– দ্য সিটি অফ লাভ’ কোন শহরের গল্প? আবারো জয়া হেসে বললেন, “এই গল্পটি হতে পারে পৃথিবীর যে কোনো শহরের গল্প। এই গল্পটা হতে পারে ঢাকার গল্প, গল্পটা হতে পারে কলকাতার, আবার ইস্তাম্বুলেরও। এই গল্পটা হতে পারে তৃতীয় বিশ্বের যে কোনো শহরের, যে কোনো জায়গার। যে কোনো ভালোবাসার শহরের গল্পই হতে পারে এটি।”

এই সংক্রান্ত আরো সংবাদ

শাকিবের সঙ্গে আমার বিয়ের সম্ভাবনা থাকতেই পারে: মিষ্টি জান্নাত

ঢালিউড সুপারস্টার শাকিব খান ডাক্তার পাত্রীকে বিয়ে করছেন বলে সংবাদবিস্তারিত পড়ুন

এবার পরিবারের পছন্দে বিয়ের পিঁড়িতে বসছেন শাকিব খান

চিত্রনায়িকা অপু বিশ্বাস ও শবনম বুবলীর সঙ্গে অনেক আগেই দাম্পত্যবিস্তারিত পড়ুন

বুবলী আগে থেকেই বিবাহিত, সেখানে একটি মেয়েও আছে: সুরুজ বাঙালি

ব্যক্তিজীবন নিয়ে কথা বলে বারবার শিরোনামে জায়গা করে নিয়েছেন আলোচিতবিস্তারিত পড়ুন

  • এফডিসিতে সাংবাদিকদের ওপর হামলা
  • অভিনেতা ওয়ালিউল হক রুমি মারা গেছেন
  • এক রোমাঞ্চকর অসমাপ্ত ভ্রমণ গল্প
  • পরীমণিকে আদালতে হাজির হতে সমন
  • শাকিব ছাড়া দ্বিতীয় কোনো পুরুষের জায়গা নেই: বুবলী
  • সিনেমা মুক্তি দিতে হল না পেয়ে কান্নায় ভেঙে পড়লেন নায়ক
  • বিশাখাপত্তনমে কয়েকদিন
  • সংগীত শিল্পী খালিদ আর নেই
  • কঠিন রোগে ভুগছেন হিনা খান, চাইলেন ভক্তদের সাহায্য
  • মোহাম্মদপুর কেন্দ্রীয় কবরস্থানে সমাহিত হবেন সাদি মহম্মদ
  • কে কোন ক্যাটাগরিতে জিতলেন অস্কার?
  • রাজকে নিয়ে বিস্ফোরক মন্তব্য পরীমনির