বৃহস্পতিবার, জুলাই ১৮, ২০২৪

আমাদের কণ্ঠস্বর

প্রধান ম্যেনু

তারুণ্যের সংবাদ মাধ্যম

গরু রক্ষার নামে সহিংসতা বন্ধের আহ্বান মোদির

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি বলেছেন, কিছু লোক গরু রক্ষার নামে সমাজে উত্তেজনা ছড়াচ্ছে। তাদেরকে প্রতিহত করতে সচেতন জনতা এবং রাজ্য সরকারগুলোর প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন তিনি।

গরু রক্ষার নামে ভারতে অশান্তি সৃষ্টির বিরুদ্ধে শনিবার প্রথম মুখ খোলেন প্রধানমন্ত্রী মোদি। রোববার আবারো তিনি এর বিরুদ্ধে দেশের জনগণকে সোচ্চার হওয়ার আহ্বান জানালেন।

টাইমস অব ইন্ডিয়া অনলাইনের এক খবরে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

তেলেঙ্গানায় পানীয় জলের প্রকল্প ‘মিশন ভাগীরথা’ উদ্বোধনের সময় দেওয়া বক্তব্যে মোদি ‘ভুয়া গরু রক্ষাকারীদের’ বিরুদ্ধে রাজ্য সরকারগুলোকে সচেতন হতে বলেন। তিনি বলেন, আমি রাজ্য সরকারগুলোর প্রতি অনুরোধ জানাচ্ছি, এ ধরনের গরু রক্ষাকারীদের তালিকা তৈরি করে তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হোক। এসব লোক গরুর যতেœর তোয়াক্কা করে না। তারা শুধু গরু রক্ষার নামে সমাজে উত্তেজনা বাড়াতে চায়।’

ভারতীয় সমাজের বহু বৈচিত্র্যের বিষয়ে মোদি বলেন, ‘বহু জাতিমত, ভিন্ন ভিন্ন মূল্যবোধ এবং ঐতিহ্যের দেশ ভারত এবং এর ঐক্য ও প্রকৃতি রক্ষা করা আমাদের প্রধান দায়িত্ব।’ তিনি আবারো উল্লেখ করেন, ‘মুষ্ঠিমেয় কিছু লোক সামাজিক বন্ধন ধ্বংস করছে এবং সামাজিক সংঘর্ষ সৃষ্টি করছে।’

এক দিন আগে শনিবার দিল্লিতে এক সমাবেশে স্বঘোষিত ‘গাউ (গাভি) রক্ষাকারীদের’ নিয়ে অস্বস্তি প্রকাশ করেন মোদি। তিনি বলেন, ‘এই গাউ রক্ষা ব্যবসায় (গরু রক্ষার নামে তোড়জোড়) আমি ভীষণ ক্ষুব্ধ। এসব লোক রাতে অসামাজিক কাজ করে এবং দিনে গাউ রক্ষা করে। গরু রক্ষার নামে ‘‘দোকান’’ খুলেছে তারা। সব রাজ্যের উচিত, এদের বিরুদ্ধে কঠোর পদক্ষেপ নেওয়া।’

তবে তেলেঙ্গানায় দেওয়া বক্তব্যে মোদি ‘প্রকৃত গরুরক্ষাকারীদের’ প্রশংসা করেন। প্রকৃত গরুরক্ষাকারীরা গরুর প্রতি যতœ নেয় এবং দেখভাল করে। তিনি বলেন, ‘প্রকৃত গাউ রক্ষক এবং গাউ সেবকদের আমি স্যালুট করি।’ তাদের প্রতি তিনি অনুরোধ করেন, তারা যেন ভুয়া গরু রক্ষাকারীদের ধরিয়ে দেন।

গরু দিয়ে যারা হাল চাষ করে তাদের উদ্দেশে মোদি বলেন, ‘গরু দিয়ে হাল চাষে এ সেক্টরকে (কৃষিখাত) স্থিতিশীল করবে এবং অর্থনৈতিক উন্নয়নে সহায়তা করবে। গরু সম্পদ এবং তা কখনো বোঝা হতে পারে না।’

প্রধানমন্ত্রী মোদি এমন সময় গরু রক্ষা নিয়ে কথা বললেন, যখন উত্তর প্রদেশ, মধ্য প্রদেশ, গুজরাটসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে কথাকথিত গরুরক্ষাকারীদের হাতে দলিত ও সংখ্যালঘু মুসলিমরা নির্যাতনের শিকার হচ্ছেন। এ নিয়ে ‘নীরব’ থাকায় বিরোধীদলগুলো মোদির কঠোর সমালোচনা করে।

এই সংক্রান্ত আরো সংবাদ

প্রেসিডেন্ট মাসুদকে সতর্কতা ইরানিদের 

সংস্কারপন্থী মাসুদ পেজেশকিয়ান দ্যই কট্টর রক্ষণশীল প্রতিদ্বন্দ্বী সাঈদ জালিলিকে হারিয়েবিস্তারিত পড়ুন

ভারতের সঙ্গে চুক্তিতে দেশের মানুষের আস্থা প্রয়োজন

বিশিষ্টজনরা বলেছেন, ভারতের সঙ্গে পানি বণ্টন চুক্তিতে দেশের মানুষের আস্থাবিস্তারিত পড়ুন

ভারত আমাদের রাজনৈতিক বন্ধু, চীন উন্নয়নের : কাদের

সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, ভারত বাংলাদেশের রাজনৈতিকবিস্তারিত পড়ুন

  • ইসরায়েলে মুহুর্মুহু রকেট হামলা ইসলামিক জিহাদের
  • প্রথম বিতর্কের পর ট্রাম্পের দিকে ঝুঁকছেন দোদুল্যমান ভোটাররা!
  • রেবন্ত রেড্ডি এবং চন্দ্রবাবু নাইডু বৈঠক নিয়ে নানা জল্পনা
  • স্টারমারের দুঃখ প্রকাশের পরও বাংলাদেশি কমিউনিটিতে ক্ষোভ
  • রিয়াদে সৌদি আরবের সঙ্গে দ্বিতীয় রাজনৈতিক সংলাপে বসছে বাংলাদেশ
  • তুকতাক করার অভিযোগে গ্রেফতার মালদ্বীপের নারী মন্ত্রী
  • আজ লোকসভার স্পিকার নির্বাচন 
  • প্রধানমন্ত্রীর ভারত সফর নিয়ে সংবাদ সম্মেলন মঙ্গলবার
  • সহমতের ভিত্তিতেই সরকার পরিচালনা করব: মোদী
  • ২৭ জুন আটলান্টায় জো বাইডেন এবং ডোনাল্ড ট্রাম্পের মুখোমুখি বিতর্ক
  • লোকসভায় মোদীর শপথ, সনিয়া গান্ধীসহ বিরোধীদের বিক্ষোভ
  • পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে ইতালির পররাষ্ট্র সচিবের সঙ্গে সাক্ষাৎ