সোমবার, মে ২০, ২০২৪

আমাদের কণ্ঠস্বর

প্রধান ম্যেনু

তারুণ্যের সংবাদ মাধ্যম

জনপ্রিয়তা থাকলে নির্বাচন দিতে ভয় কেন: খালেদা জিয়া

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া সরকারকে উদ্দেশ করে বলেছেন, জনপ্রিয়তা থাকলে নির্বাচন দিতে ভয় কেন? নির্বাচনটি দিয়ে দিন। প্রমাণ হয়ে যাবে মানুষ কাকে চায়, কাকে চায় না। জন্মাষ্টমী উপলক্ষে সোমবার রাতে হিন্দু সম্প্রদায়ের সঙ্গে শুভেচ্ছা বিনিময় অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন। এ সময় তিনি যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক আইআরআই প্রকাশিত জরিপ ফলাফলের প্রতি ইঙ্গিত করেন।

আওয়ামী লীগকে সাপের সঙ্গে তুলনা করে হিন্দু সম্প্রদায়কে উদ্দেশে করে খালেদা জিয়া বলেন, আপনাদের চিন্তা ধারায় পরিবর্তন আনতে হবে। কিভাবে আজ আপনাদের সম্পদ, মা-বোনসহ সবার নিরাপত্তা বিনষ্ট হচ্ছে। আওয়ামী লীগ সাপের থেকে কোনো অংশে কম নয়। আমি বলব, সাপ দংশন করলে ওঝা হয়ে ঝাড়তে যাবে না। তারা (সাপ) যাতে দংশন করতে না পারে সেজন্য আপনাদের সতর্ক থাকতে হবে।

বিভিন্ন স্থানে হিন্দু সম্প্রদায়ের সম্পত্তি দখল ও তাদের ওপর নিপীড়ন-নির্যাতনের প্রসঙ্গ টেনে খালেদা জিয়া বলেন, আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় এলে হিন্দুরা নির্যাতিত হয়। বিপদে পড়ে। স্বাধীনতার পর থেকে হিন্দুদের সম্পত্তি দখল করেছে তারা। হাসিনার আত্মীয়-স্বজনরা আপনাদের সম্পত্তি দখল করেছে। বিএনপিকে একটি অসাম্প্রদায়িক দল অভিহিত করে তিনি বলেন, আমরা মুসলমান, হিন্দু, বৌদ্ধ, খ্রিস্টান সবাই বাংলাদেশী। আমরা সব ধর্মের সমান অধিকারে বিশ্বাস করি।

গুলশানে বিএনপি চেয়ারপারসনের রাজনৈতিক কার্যালয়ে আয়োজিত এ অনুষ্ঠানে বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান শাহ মোয়াজ্জেম হোসেন, চেয়ারপারসনের ?উপদেষ্টা আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী, হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিস্টান কল্যাণ ফ্রন্টের কেন্দ্রীয় নেতা সুশীল বড়ুয়া, অমলেন্দু দাস অপু, নুকুল সাহা, রমেশ দত্ত, তরুণ দে, মিল্টন বৈদ্য, রতন বালা, মৃণাল বৈষ্ণব প্রমুখ বক্তব্য রাখেন। দলের সহ-আইনবিষয়ক সম্পাদক নিতাই রায় চৌধুরী, হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিস্টান কল্যাণ ফ্রন্টের আহ্বায়ক গৌতম চক্রবর্তী, অবসরপ্রাপ্ত যুগ্ম সচিব বিজন কান্তি সরকার ও দলের সহ-ধর্মবিষয়ক সম্পাদক জয়ন্ত কুণ্ড এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

দেশের বর্তমান অবস্থা সম্পর্কে খালেদা জিয়া বলেন, আজ কোনো ধর্মের মানুষ শান্তিতে নেই। এমনকি কোনো ধর্মের মেয়েরা নিরাপদে নেই। কাউকে ছাড় দেয়া হয় না। আবার যদি কোনো হিন্দু ধরা পড়ে, তাকে আরও বেশি পিটিয়ে বলে, তুই বিএনপি করিস কেন। তোদের আওয়ামী লীগে থাকতে হবে, আওয়ামী লীগে ভোট দিতে হবে। আওয়ামী লীগ ছাড়া অন্য কিছু করবি না- এরকম চিন্তা তাদের। সেজন্য আপনাদের (হিন্দু সম্প্রদায়) চিন্তাধারায় পরিবর্তন আনতে হবে।

দেশে গণতন্ত্র ফিরিয়ে আনতে হিন্দু সম্প্রদায়সহ সব ধর্মের জাতীয় ঐক্যের আহ্বান জানিয়ে বিএনপি চেয়ারপারসন বলেন, আসুন দেশটাকে বাঁচানোর জন্য সরকারের জুলুম নির্যাতনের প্রতিবাদ করি, গণতন্ত্র ফিরিয়ে আনতে আমরা ঐক্যবদ্ধ হই। তৎকালীন গণতন্ত্রী পার্টির নেতা সুরঞ্জিত সেনগুপ্ত যিনি বর্তমানে আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা তার প্রসঙ্গ টেনে খালেদা জিয়া বলেন, অনেকদিন আগের কথা বলছি, ’৯১-’৯২ সালের কথা।

গণতন্ত্রী পার্টির সুরঞ্জিত সেনগুপ্ত যিনি জিয়াউর রহমান সম্পর্কে জানেন, তাকে একটি আলোচনা সভায় দাওয়াত দেয়া হয়েছিল। তিনি জিয়াউর রহমানকে যেভাবে মুক্তিযুদ্ধে দেখেছেন, তা বলেছেন। জিয়াউর রহমান সম্পর্কে ভালো ভালো কথা সে বলল কেন। সেজন্য তার বাড়িতে শুধু আক্রমণই করা হয়নি, আগুনও দেয়া হয়। আওয়ামী লীগ হচ্ছে এরকম জিনিস।

এই সংক্রান্ত আরো সংবাদ

দেশটা এখন মগের মুল্লুকে পরিণত হয়েছে : মির্জা ফখরুল  

বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর দলটির আন্তর্জাতিক সম্পর্কবিষয়ক কমিটিরবিস্তারিত পড়ুন

আওয়ামী লীগ ক্ষমতা দখল করে আরও হিংস্র হয়ে উঠেছে

আওয়ামী শাসকগোষ্ঠী ‘ডামি’ নির্বাচনের মাধ্যমে ক্ষমতা দখল করে আরও হিংস্রবিস্তারিত পড়ুন

চড়াই-উতরাই থাকবে হতাশ হবেন না: প্রধানমন্ত্রী

দেশের অর্থনৈতিক অবস্থার কথা উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন,বিস্তারিত পড়ুন

  • শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস আজ
  • দেশের জনগণ পানির ন্যায্য হিস্যা থেকে বঞ্চিত : মির্জা ফখরুল
  • আওয়ামী লী‌গ ভিসানীতির পরোয়া করে না : ওবায়দুল কাদের
  • কমরেড রনো চির জাগরূক থাকবেন
  • বিএনপি আন্দোলন অব্যাহত রাখার ঘোষণা 
  • মোহাম্মদপুরের গজনবী রোডে ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগের ‘শান্তি ও উন্নয়ন’ সমাবেশ
  • উপজেলা নির্বাচন প্রত্যাখ্যান করেছে জনগণ: রিজভী
  • আহসানউল্লাহ মাস্টার হত্যা স্বাধীনতা বিরোধীদের নীলনকশার অংশ : মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী
  • বিএনপি নেতাকর্মীরা বগুড়ায় আ.লীগ নেতার নির্বাচনী প্রচারণায়
  • পবিত্র ওমরাহ পালনে সৌদি আরব গেছেন মির্জা ফখরুল
  • ড. ইউনূসসহ ১৪ জনের জামিন 
  • সব পন্থি সরকারের হাত থেকে মুক্তি চায়: ফখরুল