বৃহস্পতিবার, জুলাই ১৮, ২০২৪

আমাদের কণ্ঠস্বর

প্রধান ম্যেনু

তারুণ্যের সংবাদ মাধ্যম

‘ডলার’ দেখিয়ে প্রতারণা করত আটক বিদেশীরা

প্রতারণার অভিযোগে আটক ৯ বিদেশীসহ র‌্যাবের হাতে আটক ১০ জনই ভুয়া ডলার ও মাদকের ব্যবসায় জড়িত। তারা ‘অব্যবহৃত মার্কিন ডলার’ দেখিয়ে প্রতারণা করে কালো কাগজ দিয়ে মানুষের কাছ থেকে বিপুল টাকা হাতিয়ে নিত।

সোমবার দুপুরে রাজধানীর আগারগাঁওয়ের কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত এক ব্রিফিংয়ে এ কথা জানান র‍্যাব-২ এর অধিনায়ক লে. কর্নেল মহিউদ্দিন আহমেদ।

প্রসঙ্গত, রোববার রাত থেকে সোমবার সকাল পর্যন্ত অভিযান চালিয়ে রাজধানীর বসুন্ধরা আবাসিক এলাকা থেকে জাল টাকা তৈরি চক্রের ১০ সদস্যকে আটক করে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)। পরে তাদের জিজ্ঞাসাবাদ শেষে সোমবার নিজ কার্যালয়ে সংবাদ ব্রিফিং করেন তারা।

ব্রিফিংয়ে র‍্যাব-২ এর অধিনায়ক লে. কর্নেল মহিউদ্দিন আহমেদ জানান, আটক বিদেশীদের মধ্যে ছয়জন ক্যামেরুন, দুজন লেসেথো ও একজন কঙ্গোর নাগরিক রয়েছেন। এদের কাছ থেকে বিপুল পরিমাণ বিদেশী জাল নোট, জাল নোট তৈরির সরঞ্জাম, কেমিক্যাল, ইয়াবা, মোবাইল সেট ও সিম জব্দ করা হয়।

তিনি আরও জানান, আটক আফ্রিকানরা জাল নোট তৈরির আন্তর্জাতিক চক্রের সদস্য। এই চক্রটি বিভিন্ন লোককে মোবাইল মেসেজ ও ই-মেইল করত। এতে বলা হতো, তাদের কাছে প্রচুর অব্যবহৃত মার্কিন ডলার রয়েছে। বাংলাদেশে এই ডলার তারা বিনিয়োগ করতে চায়। এই ডলারের নোট কালো রং করে এ দেশে আনা হয়েছে। এভাবে প্রতারক চক্রটি বেশ কয়েকজনের সঙ্গে চুক্তি করেছে। তারা ডলারের কালো নোট, জাল ডলার ও কেমিক্যাল বিক্রি করে মোটা অংকের টাকা হাতিয়ে নিত।

এই চক্রটি মাদক ব্যবসায়ও জড়িত ছিল বলে জানান লে. কর্নেল মহিউদ্দিন।

তিনি আরও জানান, এদের কাছে কোনো পাসপোর্ট পাওয়া যায়নি। এদের মধ্যে অনেকে সীমান্ত পাড়ি দিয়ে বাংলাদেশে প্রবেশ করেছেন। বাংলাদেশীদের বিয়ে করে বসবাস করছে।

তাদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেয়া হবে বলেও জানান র‌্যাব-২ এর অধিনায়ক।

এই সংক্রান্ত আরো সংবাদ

বিমানের লাগেজ থেকে সাড়ে ৪ কোটি টাকার স্বর্ণ উদ্ধার

 ৪ কেজি ৪২০ গ্রাম স্বর্ণের বার হযরত শাহজালাল আন্তর্জা‌তিক বিমানবন্দরবিস্তারিত পড়ুন

মোবাইল ফোনে প্রশ্নপত্রের ছবি তোলায় শিক্ষকের কারাদণ্ড

পটুয়াখালীর বাউফলে এইচএসসি সমমানের আলিম পরীক্ষার হলে মোবাইল ফোনে প্রশ্নপত্রেরবিস্তারিত পড়ুন

বেনজীরের ঢাবি’র পিএইচডি ডিগ্রি বাতিলের প্রস্তাব

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সিনেট সদস্যরা পুলিশের সাবেক মহাপরিদর্শক বেনজীর আহমেদের পিএইচডিবিস্তারিত পড়ুন

  • মতিউর গোয়েন্দা নজরদারির মধ্যে দেশেই আছেন 
  • কারাগারের ছাদ ফুটো করে পালানোর সময় মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত ৪ কয়েদি গ্রেফতার
  • রাজধানীতে পৃথক ঘটনায় দুই নারীর আত্মহত্যা
  • চাঁদা তুলে পরিবার চালানোর অধিকার রাজনীতিবিদদের নেই: ওবায়দুল কাদের
  • চাঁদপুরে যৌথ অভিযানে ১১ মণ জেলিযুক্ত চিংড়ি জব্দ
  • কুড়িগ্রামে অবৈধ জাল বিক্রি ও মজুদের দায়ে তিনজনকে কারাদণ্ড
  • নোয়াখালীতে অস্ত্র ঠেকিয়ে কিশোরীকে অপহরণের অভিযোগ
  • নান্দাইলে চাচাতো ভাইয়ের হাতে চাচাতো ভাই খুন
  • আছাদুজ্জামান মিয়ার বিরুদ্ধে দুর্নীতির তেমন অভিযোগ আসেনি, হলে বিচার হবে: ওবায়দুল কাদেরের
  • সাবেক কমিশনার ওয়াহিদা রহমানের দেশত্যাগে নিষেধাজ্ঞা
  • কালোবাজারি চক্রের বিরুদ্ধে র‍্যাবের গোয়েন্দার নজরদারি
  • মেয়াদোত্তীর্ণ ঔষুধ পাওয়ায় চার ফার্মেসিকে জরিমানা