বুধবার, এপ্রিল ১৭, ২০২৪

আমাদের কণ্ঠস্বর

প্রধান ম্যেনু

তারুণ্যের সংবাদ মাধ্যম

থেমে থেমে বৃষ্টিতে সারাদেশেই জনদুর্ভোগ

টানা বৃষ্টিতে যানজট ও জলাবদ্ধতায় নাকাল রাজধানীবাসী। রাজধানীর বাইরে সারাদেশেই থেমে থেমে বৃষ্টিতে ভোগান্তিতে পড়তে হচ্ছে মানুষকে। শনিবারও টানা বৃষ্টি অব্যাহত থাকায় পানি বাড়ছেই এ সব এলাকায়। ফলে নতুন নতুন এলাকা প্লাবিত হচ্ছে প্রতিনিয়ত। দক্ষিণ-পশ্চিম মৌসুমী বায়ুর সক্রিয়তায় এই অবস্থা চললেও রোববার নাগাদ পরিস্থিতির উন্নতির আভাস দিয়েছে আবহাওয়া অধিদফতর।

রাজধানীর মোহাম্মপুর, মালিবাগ, শান্তিনগর, মিরপুর, সহ বিভিন্ন এলাকায় দেখা যায় প্রধান সড়ক সহ বিভিন্ন সড়কগুলোতে জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হয়েছে। টানা বৃষ্টিতে বিভিন্ন সড়কের বেহাল দশা, কোথাও কোথাও সড়কগুলোতে বড় আকারের গর্তেরও সৃষ্টি হয়েছে। এরই মধ্যে ঝুঁকি নিয়ে চলছে যানবাহন।

পুলিশ কন্ট্রোল রুম থেকে তথ্যে জানা যায়, শান্তিনগর, মালিবাগ মোড়, শান্তিবাগ, মিরপুরের বিভিন্ন সড়কে বৃষ্টির পানি সরতে দেরি হচ্ছে। এছাড়া বাংলা মোটর, পান্থপথসহ ভিআইপি সড়কগুলোতেও যানজট লেগে রয়েছে। গুলশান ১ এবং যমুনা ফিউচার পার্কের সামনের এলাকায় পানি জমে যানজট সৃষ্টি হয়েছে। মহাখালী-ফার্মগেইট সড়কে বেলা ১২টার দিকে তীব্র যানজট ছিল।

পুলিশ কন্ট্রোল রুম থেকে বলা হয়েছে, মূলত বৃষ্টির পানিতে সৃষ্ট জলাবদ্ধতা এবং সেই সঙ্গে ঈদের কেনাকাটার জন্য মানুষের ভিড় থাকায় বেশ কয়েকটি সড়কে যানজট তীব্র আকার ধারণ করেছে।মৌসুমী বায়ুর প্রভাবে সারাদেশেই বৃষ্টিপাত হচ্ছে। রোববার নাগাদ বৃষ্টি চলবে বলে আবহাওয়া অধিদপ্তরের আভাস।

ঢাকায় শুক্রবার ভোর ৬টা থেকে বেলা ১২টা পর্যন্ত ৬ ঘণ্টায় ১৯ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে। গত ২৪ ঘণ্টায় এর পরিমাণ ৬৭ মিলিমিটার। শনিবার সবচেয়ে বেশি বৃষ্টিপাত হয়েছে টেকনাফে। ভোর থেকে দিনের প্রথম ৬ ঘণ্টায় সেখানে ২১৩ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড হয়েছে।

দক্ষিণ-পশ্চিম মৌসুমী বায়ুর সক্রিয়তায় এই অবস্থা চললেও রোববার নাগাদ পরিস্থিতির উন্নতির আভাস দিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর। আবহাওয়া অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক এস এম মাহমুদুল হক জানান, “অতি ভারি বৃষ্টি হচ্ছে কোথাও কোথাও। শনিবার দুপুরের পর তা কমতে পারে।”

রাজধানীর বাইরে চট্টগ্রাম, কক্সবাজার, বরিশাল, ঝিনাইদহ, চাঁদপুর, কুমিল্লা, ফরিদপুরসহ বিভিন্ন এলাকায় জলাবদ্ধতা সৃষ্টি হওয়ায় পানিবন্দি হয়ে পড়েছে বহু মানুষ। যান চলাচলে বিঘœ ঘটার পাশাপাশি ফসলেরও ক্ষতির খবর পাওয়া গেছে এসব এলাকায়। এদিকে শুধুমাত্র কক্সবাজার ও বান্দরবানে ঢল ও পাহাড় ধসে অন্তত ১০ জনের মৃত্যু হয়েছে। কক্সবাজারে বন্যা পরিস্থিতি ক্রমেই অবনতি হচ্ছে।

এই সংক্রান্ত আরো সংবাদ

টাঙ্গাইলে ছাত্রলীগ নেতাকে কুপিয়ে হত্যা

টাঙ্গাইলের নাগরপুরে ছাত্রলীগ নেতা জাহিদ হাসান ঝলককে বাড়ি থেকে ডেকেবিস্তারিত পড়ুন

সন্ত্রাসী হামলায় আইনজীবী আহত

নিজস্ব সংবাদদাতা : কোর্টে বিরোধীদলীয় মামলা পরিচালনা করার কারনে সন্ত্রাসীবিস্তারিত পড়ুন

রাজধানীতে হাতিরপুলের আগুন নিয়ন্ত্রণে

রাজধানীর হাতিরপুলে কাঁচাবাজার সংলগ্ন ‘রাজ কমপ্লেক্স’ ভবনের দ্বিতীয় তলায় লাগাবিস্তারিত পড়ুন

  • ভর্তি পরীক্ষায় জালিয়াতি: জড়িতদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে আল্টিমেটাম
  • শিশুর গলায় পিস্তল ঠেঁকিয়ে স্বর্ণালঙ্কার লুট
  • তালাশ টিমের উপর হামলা, ক্র্যাবের নিন্দা ও প্রতিবাদ
  • ক্যাম্পে নাশকতার পরিকল্পনা, অস্ত্র-গোলাসহ ৪ গ্রেপ্তার
  • নাতনিকে ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগে দাদা আটক নীলফামারীতে
  • আমতলীতে তৃতীয়বার মেয়র হলেন মতিয়ার রহমান
  • সোনারগাঁয়ে ভোটকেন্দ্রে গুলিবিদ্ধ হয়ে যুবক নিহত
  • চুয়াডাঙ্গার সীমান্তে কোটি টাকার স্বর্ণের বারসহ যুবক আটক
  • মৌলভীবাজারে ২৯০ বস্তা ভারতীয় অবৈধ চিনি জব্দ
  • কলেজের পিয়ন আবার স্কুলের প্রধান শিক্ষকও তিনি
  • মানিকগঞ্জে হুমকি দিয়ে মন্দিরের মাটি কেটে রাস্তা নির্মাণ
  • বরগুনায় কোটি টাকা মূল্যের তক্ষক উদ্ধার