বুধবার, জুন ১৯, ২০২৪

আমাদের কণ্ঠস্বর

প্রধান ম্যেনু

তারুণ্যের সংবাদ মাধ্যম

নাসরিনকে বিয়ে করেননি আরাফাত সানি, মায়ের দাবি

নাসরিন সুলতানাকে ছেলে বিয়ে করেননি বলে দাবি করেছেন ক্রিকেটার আরাফাত সানির মা নার্গিস আক্তার। আজ বৃহস্পতিবার সানির আইনজীবী এম জুয়েল আহম্মেদের চেম্বারে তিনি এ কথা বলেন।

নার্গিস আক্তার বলেন, সানিকে কোনো তৃতীয় পক্ষ ফাঁসানোর জন্য মিথ্যা মামলা করেছে। নাসরিনের সঙ্গে কোনোদিনই সানির বিয়ে হয়নি এবং বিয়ের কাবিননামা সঠিক না বলে তিনি দাবি করেন।

সানির মা বলেন, ‘আজ নারী নির্যাতনের মামলায় আদালত মামলার সঠিক ঘটনা বুঝতে পেরে জামিন দিয়েছেন। আমি সরকারের কাছে ও আদালতের কাছে সানির জন্য ন্যায়বিচার চাই। সানি এ মামলায় সম্পূর্ণ নির্দোষ।’

এদিকে, আজ নারী নির্যাতনের মামলায় ঢাকার মহানগর হাকিম এস এম মাসুদুজ্জামান সানির মায়ের জামিন মঞ্জুর করেন। সানির মা সকালে এ আদালতে আত্মসমর্পণ করে জামিনের আবেদন করেন।

সানির মায়ের আইনজীবী এম জুয়েল আহম্মেদ ও সাধারণ নিবন্ধন কর্মকর্তা (জিআরও) হরলাল মল্লিক এ বিষয়ে নিশ্চিত করেছেন।

জিআরও জানান, পুলিশ প্রতিবেদন দাখিল পর্যন্ত এ জামিন দিয়েছেন আদালত। এ ছাড়া সানি এ মামলায় কারাগারে আটক রয়েছেন। আগামী ৯ মার্চ মামলার জামিন শুনানির দিন ধার্য রয়েছে।

গত ২২ জানুয়ারি ঢাকার আমিনবাজার এলাকা থেকে তথ্যপ্রযুক্তি আইনে নাসরিন সুলতানার প্রথম মামলায় আরাফাত সানিকে গ্রেপ্তার করে মোহাম্মদপুর থানার পুলিশ। পরে ঢাকার মহানগর হাকিম প্রণব কুমার হুই তাঁকে একদিনের রিমান্ডে পাঠান। এর পর থেকেই সানি কারাগারে রয়েছেন। এরপর এ মামলায় বাংলাদেশ সাইবার ক্রাইম আদালত থেকে গত ১৬ ফেব্রুয়ারি সানি জামিন চাইলে আদালত তা নাকচ করে দেন।

মামলার নথিতে দাবি করা হয়, ২০১৪ সালের ১২ ডিসেম্বর ক্রিকেটার আরাফাত সানির সঙ্গে পাঁচ লাখ টাকা দেনমোহরে নাসরিন সুলতানার বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকে তাঁরা দুজন ভাড়া বাসায় সংসার শুরু করেন। সংসার চলার সময় ছয় মাস পর ক্রিকেটার আরাফাত সানি তাঁর মায়ের পরামর্শে নাসরিনের কাছে ২০ লাখ টাকা যৌতুক দাবি করেন। যৌতুকের টাকার জন্য সানি তাঁর স্ত্রীকে মারধর ও গালিগালাজ করে ভাড়া বাসায় ফেলে যান।

নথিতে আরো উল্লেখ করা যায়, ২০১৬ সালের ১২ জুন বাদী নাসরিন সুলতানা বাসা ভাড়াসহ যাবতীয় ভরণপোষণ না পেয়ে নিরুপায় হয়ে সংসার করতে সানির সঙ্গে দেখা করেন। এ সময় সানি যৌতুকের ২০ লাখ টাকা দাবি করে নাসরিনকে বলেন, ‘যৌতুকের টাকা না দিলে আমার মা তোমার সঙ্গে সংসার করতে দেবেন না এবং এ নিয়ে বেশি বাড়াবাড়ি করলে তোমার পরিণতি অনেক খারাপ হবে। কারণ তোমার কিছু অশ্লীল ছবি আমার মোবাইল ফোনে রয়েছে।’ এরপর বাদীকে ঘাড় ধাক্কা দিয়ে সানির মা তাঁদের বাড়ি থেকে বের করে দেন। তিনি হুমকি দিয়ে বলেন, ‘তোর সঙ্গে আমার ছেলে সংসার করবে না। তাই সম্পর্ক ছিন্ন করার ব্যবস্থা কর।’ এরপর বাদী তাঁর বাসায় চলে যান। ntv

এই সংক্রান্ত আরো সংবাদ

আফগানিস্তানকে বিশাল ব্যবধানে হারালো ওয়েষ্ট ইন্ডিজ

মঙ্গলবার (১৮ জুন) গ্রস আইসলেটে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের গ্রুপ ‘সি’ এরবিস্তারিত পড়ুন

নেপালকে হারিয়ে সুপার এইটে বাংলাদেশ

নেপালের বিরুদ্ধে ২১ রানে জয়ে টি২০ বিশ্বকাপে সুপার এইট নিশ্চিতবিস্তারিত পড়ুন

অস্ট্রেলিয়ার জয়ে ইংল্যান্ড সুপার এইটে

বিশ্বকাপ টি২০ ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার বনাম স্কটল্যান্ড ম্যাচে কোনো অঘটন ঘটেনি।বিস্তারিত পড়ুন

  • বিশ্বকাপে একমাত্র ক্রিকেটার হিসেবে যে রেকর্ড গড়লেন সাকিব
  • বাংলাদেশের সেরা আটে যাওয়ার লড়াই আজ 
  • টিম ম্যানেজমেন্টকে মধুর বিড়ম্বনায় ফেলছেন তানজিম
  • শ্রীলঙ্কা-নেপাল ম্যাচ বৃষ্টিতে পরিত্যক্ত
  • জিততে জিততে বাংলাদেশ হেরে গেল
  • ডালাসে শ্রীলঙ্কাকে ২ উইকেটে হারিয়ে বিশ্বকাপে শুভসূচনা বাংলাদেশের
  • বিশ্বকাপে উগান্ডাকে উড়িয়ে আফগানদের শুরু 
  • হার দিয়ে বিশ্বকাপের প্রস্তুতি সারলো বাংলাদেশ 
  • ফাইনালে হেরে কাঁদলেন রোনালদো
  • ভোটগ্রহণ শেষে চলছে গণনা
  • সানরাইজার্স-নাইট রাইডার্স আইপিএল ফাইনাল রোববার
  • আরও এক হারে সিরিজ খোয়ালো বাংলাদেশ