রবিবার, এপ্রিল ১৪, ২০২৪

আমাদের কণ্ঠস্বর

প্রধান ম্যেনু

তারুণ্যের সংবাদ মাধ্যম

ভাগ্য নির্ধারণ করবেন আদালত সালাহ উদ্দিনের

ভারতে অনুপ্রবেশের অভিযোগে শিলংয়ে আটক বিএনপির নেতা সালাহ উদ্দিন আহমদের ভাগ্য নির্ধারণ করবেন আদালত। শিলংয়ে আদালতের রায়ের ভিত্তিতে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেওয়া হবে।

নয়াদিল্লিতে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের উত্তর-পূর্বাঞ্চলের ভারপ্রাপ্ত যুগ্ম সচিব শম্ভু সিং গতকাল সোমবার সন্ধ্যায় প্রথম আলোকে এ তথ্য জানান।
এদিকে, শিলংয়ের নেগ্রিমস হাসপাতালের পরিচালক এ জে এহেনগার প্রথম আলোকে জানান, সালাহ উদ্দিন আহমদের শারীরিক অবস্থা স্থিতিশীল থাকলেও জটিল রোগের কারণে তাঁকে চিকিৎসকদের নিয়মিত পর্যবেক্ষণে রাখা হয়েছে। পুরোপুরি সুস্থ হয়ে উঠলে তাঁকে হাসপাতাল থেকে আদালতে পাঠানোর ছাড়পত্র দেওয়া হবে।

সালাহ উদ্দিন আহমেদকে পুলিশ জিজ্ঞাসাবাদ শুরু করার প্রসঙ্গে জানতে চাইলে এ জে এহেনগার বলেন, চিকিৎসকের উপস্থিতিতে তাঁকে জেরা করার অনুমতি দিতে পুলিশ সুপারের কার্যালয় অনুরোধ জানিয়েছে। কিন্তু পুরোপুরি সুস্থ না হওয়ায় এখনো তাঁকে জেরা করার পক্ষে চিকিৎসকেরা মত দেননি।

সালাহ উদ্দিনের ভবিষ্যৎ সম্পর্কে জানতে চাইলে শম্ভু সিং বলেন, ‘আদালত ওঁর বিরুদ্ধে পাসপোর্ট (এনট্রি ইনটু ইন্ডিয়া) আইন অনুযায়ী আইনগত ব্যবস্থা নিতে নির্দেশ দিতে পারেন। এটা হলো অবৈধভাবে ভারতে অনুপ্রবেশ-সংক্রান্ত মামলা। অথবা আদালত ওঁকে বাংলাদেশে ফেরত পাঠানোর নির্দেশও দিতে পারেন। সে ক্ষেত্রে সালাহ উদ্দিনের বিচার বাংলাদেশের আদালতে হবে।’

সালাহ উদ্দিনের ভাগ্যে কী আছে, তা অনুমান করা সম্ভব নয় জানিয়ে শম্ভু সিং বলেন, ‘দুই-এক দিনের মধ্যেই মনে হচ্ছে আদালতের মত জানা যাবে। আদালতই চূড়ান্ত। সেই অনুযায়ী ব্যবস্থা।’প্রসঙ্গত, বিনা পাসপোর্টে ভারতে অনুপ্রবেশের অভিযোগে শিলংয়ের পুলিশ সালাহ উদ্দিনের বিরুদ্ধে ‘ফরেনার্স অ্যাক্ট-৪৬’-এ মামলা দায়ের করেছে। শম্ভু সিং বলেন, ‘উনি প্রতিবেশী রাষ্ট্রের গুরুত্বপূর্ণ এক রাজনৈতিক নেতা।

তাঁর বিরুদ্ধে রাষ্ট্র হিসেবে ভারত অভিযোগ এনেছে। তবে তাঁরও নিশ্চয় কিছু বলার আছে। আদালতই সেই কথা শোনার একমাত্র স্থান। কিন্তু উনি কিছুতেই হাসপাতাল ছেড়ে যেতেই চাইছেন না। বারবার অসুস্থতার কথা বলছেন। সে জন্যই সোমবার একটা মেডিকেল বোর্ড গঠন করা হয়েছে। সেই বোর্ড আজ মঙ্গলবার খতিয়ে দেখবে তিনি কতটা অসুস্থ। তাঁকে হাসপাতাল থেকে আদালতে নেওয়া যাবে কি না। কিংবা গেলেও কবে। মেডিকেল বোর্ড ছাড়পত্রের অনুকূল প্রতিবেদন দিলে মঙ্গলবার তাঁকে আদালতে হাজির করানো যেতে পারে।’

বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব সালাহ উদ্দিন আহমেদকে উদ্ভ্রান্ত অবস্থায় ঘুরতে দেখে শিলংয়ের গলফ-লিংক এলাকার লোকজন গত ১১ মে ভোরে পুলিশে খবর দেয়। এরপর পুলিশ তাঁকে গ্রেপ্তার করে পাস্তুর পুলিশ ফাঁড়িতে নিয়ে যায়। পরে তাঁকে প্রাথমিক স্বাস্থ্য পরীক্ষার পর নেওয়া হয় সেখানকার সিভিল হাসপাতালে। এরপর শিলং সদর পুলিশ থানা হয়ে নেওয়া হয় মানসিক হাসপাতাল মিমহানসে। এক দিন পর মিমহানস থেকে আবার তাঁকে পাঠানো হয় সিভিল হাসপাতালে। আট দিন পর সিভিল হাসপাতাল থেকে সালাহ উদ্দিন আহমেদকে স্থানান্তরিত করা হয় নেগ্রিমসে।

এই সংক্রান্ত আরো সংবাদ

শ্রমিক অধিকার নিয়ে নালিশের নিষ্পত্তি নভেম্বরে: আইনমন্ত্রী 

আইন, বিচার ও সংসদবিষয়ক মন্ত্রী আনিসুল হক জানিয়েছেন, আগামী নভেম্বরেবিস্তারিত পড়ুন

বিএনপির কেন্দ্রীয় ৩ নেতার পদোন্নতি

বিএনপিতে কেন্দ্রীয় কমিটির ৩ নেতার পদে রদবদল করা হয়েছে। মঙ্গলবারবিস্তারিত পড়ুন

বিএনপি মানে খাইখাই, আ.লীগ মানেই দেই-দেই: প্রধানমন্ত্রী

বিএনপি গণতন্ত্রের ভাষা বোঝে না বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগবিস্তারিত পড়ুন

  • ক্ষমা চেয়ে নিচ্ছি, তাড়াহুড়োয় ভুল হয়ে গেছে: বাণিজ্য প্রতিমন্ত্রী
  • হাসপাতাল থেকে বাসায় ফিরলেন খালেদা জিয়া
  • গুরুতর আহত মমতা, হাসপাতালে ভর্তি
  • সুপ্রিম কোর্টে মারামারি ঘটনায় ৩ সহকারী অ্যাটর্নি জেনারেল বরখাস্ত
  • কোস্ট গার্ডকে ত্রিমাত্রিক বাহিনী হিসেবে গড়ে তোলা হবে: প্রধানমন্ত্রী
  • সুপ্রিম কোর্ট নির্বাচন: হট্টগোল-মারামারিতে ভোট গণনা বন্ধ
  • সত্যকে কখনও মিথ্যা দিয়ে ঢাকা যায় না: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘নিরাপত্তা নিশ্চিতে অন্যদের নিষেধাজ্ঞা গ্রহণযোগ্য নয়’
  • ঐক্যফ্রন্টের লিয়াজোঁ ও স্টিয়ারিং কমিটিতে আছেন যারা
  • লুটেপুটে খায় এমন প্রার্থীদের বর্জন করার আহ্বান রাষ্ট্রপতির
  • ‘দুষ্টের দমন ও শিষ্টের পালনের জন্যই ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন’
  • ডায়াবেটিস ও ব্যথায় ভুগছেন খালেদা জিয়া
  • Leave a Reply

    Your email address will not be published. Required fields are marked *