রবিবার, জুলাই ১৪, ২০২৪

আমাদের কণ্ঠস্বর

প্রধান ম্যেনু

তারুণ্যের সংবাদ মাধ্যম

ভালো বসের ৯ লক্ষণ, যা সবারই জেনে রাখা উচিত

যে কোনো প্রতিষ্ঠানের বস হয়ে ওঠা মানে বহু কাজের দায়িত্ব বেড়ে যাওয়া। আর এসব দায়িত্ব পালন করতে গিয়ে সবার কথা চিন্তা করার সময় থাকে না। কিন্তু তার পরেও কিছু বস আছেন, যারা সব বিষয় সামলাতে পারেন। এ ধরনের বসেরা সবার কাছ থেকে সম্মান ও ভালোবাসা পান। এ লেখায় তুলে ধরা হলো তেমন কিছু ভালো বসের লক্ষণ।

১. পক্ষপাতহীনতা
নির্দিষ্ট কোনো বিষয় যদি বসের প্রিয় হয় তাহলে অন্য বিষয়গুলো উপেক্ষিত থাকতে পারে। একইভাবে কর্মক্ষেত্রে যদি কোনো কর্মীর প্রতি বিশেষ নজর থাকে তাহলে অন্যরা বঞ্চিত হতে পারে। তাই ভালো বসেরা নির্দিষ্ট ব্যক্তির প্রতি পক্ষপাত না রেখে সবার প্রতিই মনোযোগ দেয়।

২. কর্মীদের মর্যাদা
অনেক বসেরই ধারণা কটুবাক্য, ভয়ভীতি প্রদর্শন কিংবা নানাভাবে বাড়তি চাপ দিয়ে কর্মীদের কাজে উৎসাহী করা সম্ভব। যদিও বাস্তবে যে বসেরা এসব কাজ করে সাময়িকভাবে তাদের কাজে গতি সঞ্চার হলেও সার্বিকভাবে লাভ হয় না।

৩. নতুন বিষয়ে আগ্রহী
পুরনো বিষয়গুলো নিয়েই বছরের পর বছর কাজ চালিয়ে নেওয়া মোটেই ভালো বসের লক্ষণ নয়। ভালো বসেরা সর্বদা নিত্যনতুন বিষয়ে আগ্রহী থাকে। এতে পরিবর্তিত পরিস্থিতির সঙ্গে মানিয়ে নেওয়া যেমন সহজ হয় তেমন প্রতিষ্ঠানও এগিয়ে যায়।

৪. সহায়তা প্রদান
কর্মীদের কোনো কঠিন কাজের দায়িত্ব নিয়ে দূরে চলে যাওয়া ভালো বসের লক্ষণ নয়। ভালো বসেরা সর্বদা কর্মীদের কঠিন কাজ সমাধানে নানাভাবে সহায়তা করে। কাজে কোনো বাধা-বিপত্তি আসলে তা দূর করার জন্য আন্তরিকভাবে চেষ্টা করে।

৫. ভালো প্রশিক্ষক
ভালো বসেরা অনেকটা ভালো প্রশিক্ষকের মতো। অনেকটা খেলার প্রশিক্ষকদের মতোই কর্মীদের কাজটি সঠিকভাবে করার জন্য তারা দিকনির্দেশনা দেয়, যা মেনে চললে কর্মীরা সাফল্যের সঙ্গে কাজ সম্পন্ন করতে পারে।

৬. মতামত আদানপ্রদান
কর্মীদের কাছ থেকে ভালো মতামত গ্রহণে সর্বদা প্রস্তুত থাকে ভালো বসেরা। এছাড়া কর্মীদের কোন উপায়ে কাজ করলে ভালো হবে, সে বিষয়ে যথাযথ মতামতও প্রদান করে তারা।

৭. স্বচ্ছতা নিশ্চিত
কর্মক্ষেত্রে বিভিন্ন কাজের ক্ষেত্রে কারণ জানানো ও স্বচ্ছতা নিশ্চিত করার প্রয়োজনীয়তা রয়েছে। প্রতিষ্ঠানে যে বসেরা বিভিন্ন কাজের ক্ষেত্রে স্বচ্ছতা নিশ্চিত করে তারা ভালো বস হিসেবে বিবেচিত হয়।

৮. সমস্যায় নয়, সমাধানে মনোযোগী
কোনো একটি সমস্যা তৈরি হলে সর্বাগ্রে তা সমাধান করা প্রয়োজন। ভালো বসেরা তাই কোনো দোষ-ত্রুটির ক্ষেত্রে কাউকে দোষারোপের তুলনায় সমস্যা সমাধানে বেশি আগ্রহী থাকে।

৯. কর্মীদের লক্ষ্য পূরণে সহায়তাকারী

আদর্শ বসেরা কখনোই কর্মীদের স্বপ্নপূরণে বাধা হয়ে দাঁড়ায় না। তারা সর্বদা কর্মীদের সামনে এগিয়ে যেতে ও লক্ষ্য পূরণে সহায়তার হাত বাড়িয়ে দেয়।

You Might Also Like

এই সংক্রান্ত আরো সংবাদ

মানবদেহে আদার অনেক উপকার

আমাদের দিনে কয়েকবার রঙিন খাবার খাওয়া উচিত, কিন্তু আপনি কিবিস্তারিত পড়ুন

হোটেল ঘরে বিছানার চাদর সাদা হয় কেন ?

বেড়াতে গিয়ে হোটেলের ঘরে ঢুকে প্রথম যে বিষয়টি নজরে আসে,বিস্তারিত পড়ুন

ধনিয়া পাতার উপকারি গুণ

চিকিৎসকদের মতে, ধনে বা ধনিয়া একটি ভেষজ উদ্ভিদ যার অনেকবিস্তারিত পড়ুন

  • ওজন কমাতে যা খাওয়া যেতে পারে
  • প্রতিদিনের খাদ্যতালিকায় রসুন
  • আমলকি কখনো স্বাস্থ্যের জন্য ‘বিপজ্জনক’ হয়ে ওঠে
  • বাসি দই ও পান্তা ভাতের আশ্চর্যজনক উপকারিতা
  • স্বাদে ও পুষ্টিগুণে ভরপুর সবজি হলো লাউ
  • মৌসুমের সব রেকর্ড ভেঙে তাপমাত্রার পারদ উঠল ৪৩ ডিগ্রিতে
  • যেসব অঞ্চলে টানা ৩ দিন ঝড়বৃষ্টি
  • ২৪ ঘণ্টা না যেতেই ফের কমলো স্বর্ণের দাম
  • গরমে চুলের যত্ন নেবেন কীভাবে?
  • একলাফে সোনার দাম ভ‌রিতে কমলো ৩১৩৮ টাকা
  • কত দিন পর পর টুথব্রাশ বদলাবেন?
  • ত্বকের দাগ দূর করার ঘরোয়া উপায়