শনিবার, মে ১৮, ২০২৪

আমাদের কণ্ঠস্বর

প্রধান ম্যেনু

তারুণ্যের সংবাদ মাধ্যম

মানচিত্র থেকে মুছে গেল ছিটমহল

বাংলাদেশের ভেতরে আগে ভারতের অংশ ছিল এমন ১১১টি ছিটমহলে উল্লাসের মধ্য দিয়ে শনিবার সকালে ‍ওড়ানো হয় বাংলাদেশের লাল-সবুজ পতাকা। নাগরিকত্বের স্বীকৃতি নিয়ে মধ্যরাত থেকে ছিটমহলগুলোতে যে বাঁধভাঙা উল্লাসের শুরু, আনুষ্ঠানিক পতাকা উত্তোলনের সময় বৃষ্টিও তাতে বাঁধ সাধতে পারেনি।

স্থল সীমান্ত চুক্তি কার্যকরে দুই দেশের ছিটমহল বিনিময় হয় মধ্যরাতে, ৬৮ বছরের বন্দিত্বের অন্ধকার কাটাতে মোমবাতি জ্বালিয়ে আলোর পথে যাত্রা শুরু করে বিচ্ছিন্ন ভূখণ্ডের বাসিন্দারা।

বিদ্যুতের মতোই কোনো সুবিধা নেই তাদের, নেই স্কুল কিংবা কোনো শিক্ষা প্রতিষ্ঠানও, ভূমি বিনিময়ে নেই কোনো আনুষ্ঠানিক ব্যবস্থাও। বাংলাদেশের ভেতরে ভারতের এই রকম ১১১টি ছিটমহলে বাসিন্দা ৩৭ হাজার। বিনিময়ের মধ্য দিয়ে পেটের ভেতরে থাকা ১৭ হাজার ১৬০ একর ভূমি এখন বাংলাদেশের, এর বাসিন্দারাও বাংলাদেশের নাগরিক।

অন্যদিকে এর মধ্য দিয়ে ভারত পেল সে দেশের মধ্যে থাকা ৫১টি ছিটমহলের ৭ হাজার ১১০ একর ভূমি, যার ১৪ হাজার বাসিন্দা এখন ভারতীয় হয়ে গেলেন। বাংলাদেশে থাকা ভারতীয় ছিটমহলগুলোর মধ্যে সবচেয়ে বেশি ৫৯টি লালমনিরহাটে। এগুলো পাটগ্রাম ও হাতীবান্ধা উপজেলার অন্তর্গত, এর ১৭টিতে জনবসতি নেই।

ছিটমহলের চারটি পেয়েছে নীলফামারী জেলা, এই চারটি ডিমলা উপজেলায়। পঞ্চগড় পেয়েছে ৩৬টি ছিটমহল। এগুলোর অবস্থান সদর, বোদা এবং দেবীগঞ্জ উপজেলায়। কুড়িগ্রামের ১২টি ছিটমহল সদর, ফুলবাড়ী এবং ভুরুঙ্গামারী উপজেলায়।

ছিটমহল বিনিময়ের মধ্য দিয়ে এই জনপদগুলোর বাসিন্দারা বাংলাদেশি নাগরিক হিসেবে স্বীকৃত হলেন। তবে এর মধ্যে প্রায় এক হাজার জন ভারতেরে নাগরিকত্ব নিয়ে সে দেশে চলে যেতে চেয়েছেন। ওপার থেকে অবশ্য কেউ আসতে চাননি। নাগরিক হিসেবে স্বীকৃতি পাওয়ার পর এতদিন ধরে বঞ্চনার আঁধার কাটার আশায় আছেন ছিটমহলের বাসিন্দারা। সেই আশায় শনিবার পতাকা তোলার সময় উৎসাহের কমতি ছিল না।

এই সংক্রান্ত আরো সংবাদ

শিল্পকলা পুরস্কার পেলেন ১৩ জন আলোকচিত্র শিল্পী

 ‘উন্নয়নের বাংলাদেশ, নান্দনিক বাংলাদেশ’ শিরোনামে শিল্পকলা একাডেমি আয়োজিত প্রতিযোগিতায় পুরস্কারবিস্তারিত পড়ুন

‘আমলাতন্ত্রকে ভেঙে গণমুখী বাজেট তৈরির আহ্বান’

জাতীয় বাজেটকে গণবান্ধব ও কর্মসংস্থানমুখী করতে হলে তেভাগা পদ্ধতিতে যেতেবিস্তারিত পড়ুন

চড়াই-উতরাই থাকবে হতাশ হবেন না: প্রধানমন্ত্রী

দেশের অর্থনৈতিক অবস্থার কথা উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন,বিস্তারিত পড়ুন

  • দাম বাড়ছেই ডিমের
  • শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস আজ
  • নিরাপদে যুক্তরাষ্ট্রে পৌঁছালো বাংলাদেশ দল
  • নীতি সহায়তা যুক্ত হচ্ছে রফতানিতে
  • ৪ হাজার কোটির খুলনা-মোংলা রেলপথ প্রস্তুত 
  • বাকৃবি গবেষকের সাফল্য এই প্রথম সুস্বাদু দেশীয় শিং মাছের জিনোম সিকুয়েন্স উদ্ভাবন
  • এক ভিসায় ভ্রমণ করা যাবে উপসাগরীয় ছয় দেশ
  • আইসিসি পুরুষ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের দল ঘোষণা
  • কমরেড রনো চির জাগরূক থাকবেন
  • উপজেলা নির্বাচনের তৃতীয় ধাপে শোকজ শুরু করেছে বিএনপি
  • সমাজ পরিবর্তনে পোশাক শিল্প গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করছে : বস্ত্র ও পাট মন্ত্রী
  • জাতির পিতার স্মৃতি বিজড়িত প্রাথমিক বিদ্যালয় পরিদর্শনে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী