রবিবার, জুলাই ১৪, ২০২৪

আমাদের কণ্ঠস্বর

প্রধান ম্যেনু

তারুণ্যের সংবাদ মাধ্যম

যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে পেট্রো-ডলার চুক্তি নবায়ন করবে না সৌদি

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সাথে তার ৫০ বছরের পেট্রো-ডলার চুক্তি পুনর্নবীকরণ না করার সৌদি আরবের সিদ্ধান্তের পরে আর্থিক বিশ্ব একটি উল্লেখযোগ্য উত্থান ঘটছে, যা রবিবার, ৯ জুন, ২০২৪ তারিখে শেষ হয়েছে।

চুক্তি নবায়ন না করার গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত সৌদি আরবকে একচেটিয়াভাবে মার্কিন ডলারের পরিবর্তে চীনা আরএমবি, ইউরো, ইয়েন এবং ইউয়ান সহ একাধিক মুদ্রায় তেল এবং অন্যান্য পণ্য বিক্রি করতে সক্ষম করে। উপরন্তু, বিটকয়েনের মতো ডিজিটাল মুদ্রার সম্ভাব্য ব্যবহারও বিবেচনা করা যেতে পারে।

যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে ৮০ বছর মেয়াদের পেট্রোডলার চুক্তি নবায়ন না করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সৌদি আরব। গত ৯ জুন রোববার ২০২৪ তারিখে সৌদি-যুক্তরাষ্ট্রের এ চুক্তির মেয়াদ শেষ হয়ে যায়।

১৯৭৪ সালের ৮ জুন স্বাক্ষরিত এই পেট্রো-ডলার চুক্তি বিশ্বজুড়ে যুক্তরাষ্ট্রের অর্থনৈতিক প্রভাব বিস্তারে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখেছে।

এ সিদ্ধান্তের ফলে ১৯৭২ সালে প্রতিষ্ঠিত পেট্রোডলার ব্যবস্থা থেকে বলতে গেলে সরেই এল সৌদি।

উল্লেখ্য, দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের আগে প্রায় সব দেশই গোল্ড স্ট্যান্ডার্ডকে তাদের মুদ্রামান নির্ধারণের জন্য ব্যবহার করত। দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময় ইউরোপের উপনিবেশিক দেশগুলো ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতির সম্মুখীন হয় এবং সে সময় পৃথিবীর মোট সোনার দুই-তৃতীয়াংশ রিজার্ভ ছিল যুক্তরাষ্ট্রের কাছে। কাজেই বিশ্বযুদ্ধ শেষে ইউরোপকে পুনর্গঠনের সময় ব্রেটন উডস চুক্তি ও আইএমএফ-এর কল্যাণে ডলারভিত্তিক আন্তঃরাষ্ট্রীয় বাণিজ্য স্থাপিত হয়। ১৯৭২ সালে যুক্তরাষ্ট্র গোল্ড স্ট্যান্ডার্ড তুলে দেয়, ফলে কার্যত পৃথিবী নির্ভরশীল হয়ে পড়ে মার্কিন ডলারের ওপর। ১৯৭৩ সালে সৌদি আরব যুক্তরাষ্ট্রের কাছে একমাত্র ডলারেই তেল বিক্রি করতে সম্মত হয়, যা ১৯৭৫ সালের মধ্যে অন্যান্য ওপেক দেশও মেনে নেয়। ফলে বৈশ্বিক তেল আমদানি রপ্তানি হয়ে পড়ে পেট্রোডলার নির্ভর।

এখন সৌদি পেট্রোডলার চুক্তি নবায়ন না করার সিদ্ধান্ত নেওয়ায় মার্কিন ডলারকে পাশ কাটিয়ে অন্যান্য মুদ্রায় আন্তর্জাতিক বাণিজ্য সম্পন্ন করার প্রবণতা বাড়তে পারে।

বৈশ্বিক অর্থনীতির বাঁকবদল শুরু!

এছাড়া সৌদি আরব প্রজেক্ট এমব্রিজ-এ যোগ দিয়েছে। এ যৌথ উদ্যোগের আওতায় কেন্দ্রীয় ব্যাংক ও বাণিজ্যিক ব্যাংকগুলোর মধ্যে ডিজিটাল মুদ্রা প্ল্যাটফর্ম তৈরির সম্ভাবনা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

এ প্রকল্পের লক্ষ্য লেজার প্রযুক্তি ব্যবহার করে তাৎক্ষণিক আন্তঃসীমান্ত পেমেন্ট ও বৈদেশিক মুদ্রা লেনদেন আরও সহজ করা।

প্রজেক্ট এমব্রিজ শুরু হয় ২০২১ সালে। বিশ্বের বেশ কয়েকটি প্রখ্যাত কেন্দ্রীয় ব্যাংক ও প্রতিষ্ঠান এ প্রকল্পের সঙ্গে যুক্ত আছে। 

সৌদি আরবের পেট্রোডলার চুক্তি নবায়ন না করার সিদ্ধান্তে আন্তর্জাতিক অর্থনৈতিক গতিপ্রবাহে বড় পরিবর্তনের শুরু বলে মনে করা হচ্ছে। যদিও আন্তর্জাতিক বাণিজ্য ও আর্থিক খাতে এ সিদ্ধান্তের সম্পূর্ণ প্রভাব কেমন হবে, তা এখনও স্পষ্ট হয়নি।

এই সংক্রান্ত আরো সংবাদ

প্রেসিডেন্ট মাসুদকে সতর্কতা ইরানিদের 

সংস্কারপন্থী মাসুদ পেজেশকিয়ান দ্যই কট্টর রক্ষণশীল প্রতিদ্বন্দ্বী সাঈদ জালিলিকে হারিয়েবিস্তারিত পড়ুন

ভারতের সঙ্গে চুক্তিতে দেশের মানুষের আস্থা প্রয়োজন

বিশিষ্টজনরা বলেছেন, ভারতের সঙ্গে পানি বণ্টন চুক্তিতে দেশের মানুষের আস্থাবিস্তারিত পড়ুন

ভারত আমাদের রাজনৈতিক বন্ধু, চীন উন্নয়নের : কাদের

সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, ভারত বাংলাদেশের রাজনৈতিকবিস্তারিত পড়ুন

  • ইসরায়েলে মুহুর্মুহু রকেট হামলা ইসলামিক জিহাদের
  • প্রথম বিতর্কের পর ট্রাম্পের দিকে ঝুঁকছেন দোদুল্যমান ভোটাররা!
  • রেবন্ত রেড্ডি এবং চন্দ্রবাবু নাইডু বৈঠক নিয়ে নানা জল্পনা
  • স্টারমারের দুঃখ প্রকাশের পরও বাংলাদেশি কমিউনিটিতে ক্ষোভ
  • রিয়াদে সৌদি আরবের সঙ্গে দ্বিতীয় রাজনৈতিক সংলাপে বসছে বাংলাদেশ
  • তুকতাক করার অভিযোগে গ্রেফতার মালদ্বীপের নারী মন্ত্রী
  • আজ লোকসভার স্পিকার নির্বাচন 
  • প্রধানমন্ত্রীর ভারত সফর নিয়ে সংবাদ সম্মেলন মঙ্গলবার
  • সহমতের ভিত্তিতেই সরকার পরিচালনা করব: মোদী
  • ২৭ জুন আটলান্টায় জো বাইডেন এবং ডোনাল্ড ট্রাম্পের মুখোমুখি বিতর্ক
  • লোকসভায় মোদীর শপথ, সনিয়া গান্ধীসহ বিরোধীদের বিক্ষোভ
  • পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে ইতালির পররাষ্ট্র সচিবের সঙ্গে সাক্ষাৎ