রবিবার, এপ্রিল ২১, ২০২৪

আমাদের কণ্ঠস্বর

প্রধান ম্যেনু

তারুণ্যের সংবাদ মাধ্যম

রাজন হত্যায়, ১৩ জনকে আসামি করে চার্জশিট

অবশেষে শিশু সামিউল আলম রাজন হত্যা মামলার চার্জশিট দিয়েছে সিলেট মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ। হত্যার ৩৯ দিনের মাথায় রোববার সন্ধ্যায় মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে তা দাখিল করেন তদন্ত কর্মকর্তা ডিবি পুলিশের ইন্সপেক্টর সুরঞ্জিত তালুকদার। অভিযোগপত্র নং ৮১, ধারা-৩০২/২০১/৩৪। চার্জশিটে আসামি করা হয়েছে সৌদি আরবে আটক প্রধান ঘাতক কামরুল ইসলামসহ ১৩ জনকে।

অন্য আসামিরা হচ্ছে- চৌকিদার ময়না মিয়া, মুহিত আলম, আলী হায়দার, শামীম, তাজ উদ্দিন বাদল, ভিডিওচিত্র ধারণকারী নূর মিয়া, আয়াজ আলী, রুহুল আমিন, পাভেল, দুলাল আহমদ, ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী ফিরোজ আলী ও আজমত উল্লাহ। এর মধ্যে পলাতক রয়েছে কামরুল (সৌদিতে আটক), শামীম ও পাভেল। আসামিদের মধ্যে ৮ জন এরই মধ্যে আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে। এরা হচ্ছে- ময়না মিয়া, মুহিত আলম, আলী হায়দার, নূর মিয়া, আয়াজ আলী, দুলাল আহমদ, ফিরোজ আলী ও আজমত উল্লাহ। চার্জশিটে অব্যাহতি দেয়া হয়েছে ২ জনকে। তারা হচ্ছেন- ইসমাইল হোসেন আবলুস ও মুহিতের স্ত্রী লিপি বেগম। চার্জশিটে ৩৮ জনকে সাক্ষী করা হয়েছে।

এসএমপির উপপুলিশ কমিশনার (মিডিয়া) রহমত উল্লাহ চার্জশিট দেয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। চার্জশিটে হত্যা করে লাশ গুম করার অভিযোগ আনা হয়েছে। এর বেশি কোনো তথ্য দিতে রাজি হননি তিনি। এ ব্যাপারে জানতে চাইলে রাজনের বাবা আজিজুর রহমান ও মা লুবনা আক্তার মোবাইল ফোনে যুগান্তরকে বলেন, চার্জশিট দেয়ার আগে আমাদের জানানো হয়নি। তারা বলেন, খুনিদের বাদ দিয়ে চার্জশিট হলে আমরা তা প্রত্যাখ্যান করব।

৮ জুলাই শহরতলির কুমারগাঁও বাসস্ট্যান্ড এলাকায় পৈশাচিক নির্যাতনে শিশু রাজনকে খুন করা হয়। দু’দিন পর রাজনের ওপর চালানো নির্যাতনের ভিডিও ফুটেজ ইন্টারনেটে ছেড়ে দেয় ঘাতক চক্র। এতে দেশে-বিদেশে প্রতিবাদের ঝড় উঠে। খুনিদের রক্ষায় জালালাবাদ থানার তিন পুলিশ কর্মকর্তার উঠেপড়ে লাগার অভিযোগ প্রাথমিকভাবে প্রমাণিত হলে তাদের বরখাস্ত করা হয়। তোলপাড় শুরু হয় প্রশাসনে। সৌদি আরবে স্থানীয় জনতা প্রধান আসামি কামরুলকে ধরে পুলিশে দেয়।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামালসহ সরকারের মন্ত্রীরা দ্রুত আসামিদের গ্রেফতার ও বিচারের আশ্বাস দেন। সবশেষ পাঁচদিন আগে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেছিলেন, তিনদিনের মধ্যেই এ মামলার চার্জশিট দেয়া হবে। শিক্ষার্থীদের মানববন্ধন : রাজনসহ সারা দেশে শিশু হত্যা ও নির্যাতনের প্রতিবাদে মানববন্ধন করেছে সিলেট সরকারি অগ্রগামী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় ও কলেজের শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা। রোববার জিন্দাবাজারে স্কুলের সামনের রাস্তার দুই পাশে আধঘণ্টা এ মানববন্ধন কর্মসূচি পালিত হয়। এ সময় সংক্ষিপ্ত সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন প্রধান শিক্ষিকা বাবলী পুরকায়স্থ। সমাবেশ পরিচালনা করে স্কুলছাত্রী মৌরিন সুলতানা ও আয়শা বেগম।

এই সংক্রান্ত আরো সংবাদ

মৌলভীবাজারে ২৯০ বস্তা ভারতীয় অবৈধ চিনি জব্দ

মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জে চোরাইভাবে আসা ২৯০ বস্তা ভারতীয় চিনি জব্দ করাবিস্তারিত পড়ুন

বাঁধ নির্মাণ শুরু হয়নি হাওরে, নীতিমালা বদলালেও

সুনামগঞ্জে এক ফসলি বোরো ধান উৎপাদনসমৃদ্ধ হাওরগুলো রক্ষায় কাবিটার নতুনবিস্তারিত পড়ুন

নিহতদের পাঁচজনই মাদ্রাসাছাত্র: পাথর তুলতে গিয়ে

সিলেটের কানাইঘাটে নদী তীর থেকে পাথর তুলতে গিয়ে ভূমিধসের ঘটনায়বিস্তারিত পড়ুন

  • সিলেটে বন্যার উন্নতি হলেও পিছু ছাড়ছে না দুর্ভোগ
  • সিলেটে দোকানে দোকানে পানি, ব্যবসায়ীদের মাথায় হাত
  • সিলেটে মৃদু ভূমিকম্প
  • সিলেটে ঢলের পানিতে শিশুসহ চার ও বজ্রপাতে একজনের মৃত্যু
  • ১০ ঘণ্টা পর সিলেটের পথে রেল চলাচল শুরু
  • সিরাজগঞ্জে ‘খাদ্যে বিষক্রিয়ায়’ মা-ছেলের মৃত্যু
  • ‘ধর্ষণে ব্যর্থ হয়ে’ গৃহবধূকে পিটিয়ে হত্যা
  • মৌলভীবাজারে টয়লেট থেকে মোবাইল তুলতে গিয়ে যুবকের মৃত্যু
  • অমতে বিয়ে ঠিক করায় স্কুলছাত্রীর আত্মহত্যা
  • ধর্ম নিয়ে কটূক্তির অভিযোগে সিলেটে হিন্দু মহাজোট নেতা গ্রেপ্তার
  • শ্বশুর বাড়ি থেকে স্ত্রী না ফেরায় শ্যালিকাকে কুপিয়ে হত্যা
  • বিয়ের দাবিতে প্রেমিকের বাড়িতে স্কুলছাত্রীর অনশন