মঙ্গলবার, এপ্রিল ১৬, ২০২৪

আমাদের কণ্ঠস্বর

প্রধান ম্যেনু

তারুণ্যের সংবাদ মাধ্যম

সালাহ উদ্দিনের শারীরিক অবস্থা ভালো নেই

ভারতের শিলংয়ে নজরদারিতে থাকা বিএনপির যুগ্মমহাসচিব সালাহউদ্দিন আহমেদ মানসিক ও শারীরিকভাবে ভালো নেই। দীর্ঘ দিন ধরে তিনি কিডনি সমস্যায় ভুগছেন বলে গণমাধ্যমকে জানিয়েছেন তার স্ত্রী হাসিনা আহমেদ। এছাড়া দীর্ঘদিন দেশ ও পরিবারের কাছ থেকে দূরে থাকায় মানসিকভাবে নিরাসক্ত আর বিষন্নও হয়ে পড়েছেন বলেও জানা গেছে। সালাহউদ্দিন আহমেদের স্ত্রী হাসিনা আহমেদ কোরবানির ঈদের সময় শিলংয়ে ছিলেন। এখন ঢাকায় তিনি। সালাহউদ্দিনের শারীরিক অবস্থা সম্পর্কে বলেন, “উনি ভালো নেই। কিডনিতে সমস্যা দেখা দিয়েছে। চিকিৎসা চলছে।” খুব তাড়াতাড়ি ফের শিলং যাবেন বলেও জানিয়েছেন হাসিনা আহমেদ। বিএনপি নেতৃত্বধীন ২০ দলীয় জোটের ডাকা অনির্দিষ্টকালের অবরোধ কর্মসূচির মধ্যে গত ১০ মার্চ উত্তরার একটি বাসা থেকে নিখোঁজ হওয়ার ২ মাস ২ দিন পর গত ১১ মে ভারতের মেঘালয় রাজ্যের শিলংয়ের গলফ লিঙ্ক এলাকা থেকে উদ্ধার হন সালাহউদ্দিন। উদ্ধারের পর প্রথমদিকে শারীরিক ও মানসিকভাবে বেশ বিপর্যস্ত ছিলেন বিএনপির এই নেতা। মীমহ্যানস, সিভিল হাসপাতাল ও নেগ্রিমস হাসপাতালে নিবিড় চিকিৎসার পর এখন অনেকটাই সুস্থ হয়ে উঠেন তিনি। তবে এখনো তার চিকিৎসা চলছে। গত ৩ মে সালাহউদ্দিন আহমেদের বিরুদ্ধে ভারতীয় ‘ফরেনার্স অ্যাক্ট-৪৬’ এ দায়ের করা মামলার চার্জশিট দেওয়া হয়। পুলিশের পক্ষ থেকে মেঘালয় অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেটের কাছে এ চার্জশিট জমা দেওয়া হয়। চার্জশিটে ফরেনার্স অ্যাক্টের ১৪ ধারা অনুযায়ী বৈধ ডকুমেন্ট ছাড়া অবৈধ অনুপ্রবেশের অভিযোগ আনা হয় তার বিরুদ্ধে। ৫ মে শিলংয়ের আদালত থেকে শর্ত সাপেক্ষে জামিন পান তিনি। হাসিনা আহমেদ জানান, মামলার কার্যক্রম চালানোর জন্য পারিবারিকভাবে এসপি মোহান্তকে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। তিনি আইনগত দিকগুলো দেখছেন। সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, সালাহউদ্দিন শিলংয়ের একটি ডুপ্লেক্স বাসা ভাড়া নিয়ে থাকেন। এতে তিনটি বেডরুম ছাড়াও আছে ড্রইং ও লিভিং রুম। সালাহউদ্দিনের আইনজীবী এসপি মোহান্ত ও শিলংয়ে বসবাসরত কয়েকজন বাংলাদেশি তাকে এ ডুপ্লেক্সটির বন্দোবস্ত করে দিয়েছেন। দলীয় সূত্রে জানা গেছে, শিলংয়ের বাইরে না যাওয়ার শর্তে জামিন পাওয়া সালাহউদ্দিনের এখন দিন কাটছে অনলাইনে বাংলাদেশের পত্রপত্রিকা, স্থানীয় পত্রপত্রিকা, বিভিন্ন দেশের জার্নাল ও বই পড়ে। তবে সাধারণত বাসা থেকে বাইরে বের হচ্ছেন না। ডাক্তারের প্রেসক্রিপশন অনুযায়ী খাওয়া-দাওয়া করছেন। বাসাতেই খাবার রান্না হচ্ছে। এছাড়া তিনি যে শিলংয়েই আছেন, তা জানান দিতে সপ্তাহে একদিন আদালতে হাজিরা দিতে হচ্ছে। স্ত্রী হাসিনা আহমেদ এবং কক্সবাজার থেকে যাওয়া নিকট আত্মীয়-স্বজনরাই সালাহউদ্দিন আহমেদের সঙ্গে পালাক্রমে দেখতে যাচ্ছেন। একজনের ভিসার মেয়াদ শেষ হলে আরেকজন গিয়ে উঠছেন সালাহউদ্দিনের কটেজে। স্বজনরা ছাড়াও ঢাকা থেকে বিএনপির অনেক নেতাকর্মীও ঈদের আগে সালাহউদ্দিনের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেছেন বলে জানিয়েছেন তার স্ত্রী।

এই সংক্রান্ত আরো সংবাদ

শ্রমিক অধিকার নিয়ে নালিশের নিষ্পত্তি নভেম্বরে: আইনমন্ত্রী 

আইন, বিচার ও সংসদবিষয়ক মন্ত্রী আনিসুল হক জানিয়েছেন, আগামী নভেম্বরেবিস্তারিত পড়ুন

বিএনপির কেন্দ্রীয় ৩ নেতার পদোন্নতি

বিএনপিতে কেন্দ্রীয় কমিটির ৩ নেতার পদে রদবদল করা হয়েছে। মঙ্গলবারবিস্তারিত পড়ুন

বিএনপি মানে খাইখাই, আ.লীগ মানেই দেই-দেই: প্রধানমন্ত্রী

বিএনপি গণতন্ত্রের ভাষা বোঝে না বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগবিস্তারিত পড়ুন

  • ক্ষমা চেয়ে নিচ্ছি, তাড়াহুড়োয় ভুল হয়ে গেছে: বাণিজ্য প্রতিমন্ত্রী
  • হাসপাতাল থেকে বাসায় ফিরলেন খালেদা জিয়া
  • গুরুতর আহত মমতা, হাসপাতালে ভর্তি
  • সুপ্রিম কোর্টে মারামারি ঘটনায় ৩ সহকারী অ্যাটর্নি জেনারেল বরখাস্ত
  • কোস্ট গার্ডকে ত্রিমাত্রিক বাহিনী হিসেবে গড়ে তোলা হবে: প্রধানমন্ত্রী
  • সুপ্রিম কোর্ট নির্বাচন: হট্টগোল-মারামারিতে ভোট গণনা বন্ধ
  • সত্যকে কখনও মিথ্যা দিয়ে ঢাকা যায় না: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘নিরাপত্তা নিশ্চিতে অন্যদের নিষেধাজ্ঞা গ্রহণযোগ্য নয়’
  • ঐক্যফ্রন্টের লিয়াজোঁ ও স্টিয়ারিং কমিটিতে আছেন যারা
  • লুটেপুটে খায় এমন প্রার্থীদের বর্জন করার আহ্বান রাষ্ট্রপতির
  • ‘দুষ্টের দমন ও শিষ্টের পালনের জন্যই ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন’
  • ডায়াবেটিস ও ব্যথায় ভুগছেন খালেদা জিয়া