সোমবার, জুন ১৭, ২০২৪

আমাদের কণ্ঠস্বর

প্রধান ম্যেনু

তারুণ্যের সংবাদ মাধ্যম

স্ত্রী মারা গিয়েছে এই ভয়ে পাগলের মতো কেঁদেছিল

পাঠকের জন্য, পাঠকেরই ভালোবাসার কাহিনী নিয়ে শুরু হলো “প্রিয় লাভ ডায়রি”। মিষ্টি একটা প্রেম বা বিয়ের গল্প সবার জীবনেই থাকে। আপনারও কি আছে এমনই একটি দুষ্টু-মিষ্টি ভালোবাসার কাহিনী? তাহলে দারুণ কিছু ছবি সহ যোগাযোগ করতে পারেন আমাদের সাথে। আপনার ভালোবাসার সেই মিষ্টি কাহিনী ছাপা হবে , জানবে সারা বিশ্ব। নিজের ভালোবাসার কথা সকলকে জানাতে চাইলে ছবি সহ যোগাযোগ করুন আমাদের ফেসবুক পেজের ইনবক্সে। পেজ লিঙ্ক-https://www.facebook.com/amaderkonthosor

কারো কারো জীবনে ভালোবাসা আসে ঝড়ের মত। “লাভ অ্যাট ফার্স্ট সাইট”- সেই ভালোবাসার জন্য দরকার হয় কেবল ক্ষণিকের দৃষ্টিপাত। কিন্তু আরেক রকমের ভালোবাসাও মানুষের জীবনে আসে। ঝড়ের বিপরীতে সেই ভালোবাসা শান্ত সাগরের মতো বিস্তৃত। বিন্দু বিন্দু করে গড়ে ওঠা এই ভালোবাসায় খাদ থাকে না কোনো। আয়েশা আর খালেদের তেমনি এক নিখাদ ভালবাসার গল্প আজ বলবো আপনাদেরকে।

২০১০ সালের কথা, আয়েশা সবে উনিশ বছরের তরুণী, ইন্টার পাশ করে ইউনিভার্সিটি জীবন শুরু করেছেন মাত্র। এমন সময়ে বিয়ের প্রস্তাব। ছেলে বুয়েটে চাকরি করে। বয়সে ৭ বছর বড় শুনেই আয়েশার কান্নাকাটি শুরু। এরপর ভেবেচিন্তে বলল আগে দেখা করবে, তারপর বাকিটা দেখা যাবে। এরপর সেই প্রথম দেখা।

শুরুতেই পড়াশোনার প্রসঙ্গ তোলে আয়েশা। বলে পড়া শেষ হলে তারপর নাহয় বিয়ে। তাছাড়া পরিবারের বড় মেয়ে বলে তার দায়িত্বও বেশি। কিন্তু একী! পড়াশোনার প্রতি আগ্রহ দেখে আয়েশাকে আরও বেশি ভালো লেগে যায় খালেদের। আয়েশার দায়িত্ত্ব ভাগ করে নিতে চায় সে। বাসায় ফিরে অনেক কিছু ভেবে শেষ পর্যন্ত “হ্যাঁ” বলে দেয় আয়েশা। ঠিক পরের দিনই বিয়ে হয়ে গেলো তাদের। এক সপ্তাহ পড়ে তুলে নেওয়া হলো। নতুন জীবন শুরু করলো আয়েশা এবং খালেদ।

প্রথম প্রথম প্রায় অচেনা দুটো মানুষের মাঝে জড়তা থাকেই। কিন্তু একটু একটু করে আয়েশা বুঝতে পারে, একটুও ভুল করেনি সে, একটুও না। অফিসের ফাঁকে মিষ্টি টেক্সট, ফেরার পথে একটা গোলাপ নিয়ে আসা, রিকশায় করে দুজনে অকারণেই ঘোরাঘুরি- কখন যেন দুজন দুজনের খুব কাছে এসে গেছে। খুব ভালো বন্ধুত্ব গড়ে উঠেছে একটা, এমন বন্ধু যাকে মন-প্রাণ উজাড় করে ভালোবাসা যায়, সবকিছু যাকে খুলে বলা যায়, যার সাথে সতর্ক হয়ে পা ফেলতে হয় না।

এক পর্যায়ে অন্তঃসত্ত্বা আয়েশা পা পিছলে পড়ে যায় বাথরুমে। সেই ভারি শরীরটাকে কোলে করে সযত্নে ৫ তলা থেকে নামিয়ে হাসপাতাল নিয়ে যায় খালেদ। জ্ঞান ফেরার পর আয়েশা জানতে পারে, স্ত্রী মারা গিয়েছে এই ভয়ে পাগলের মতো কেঁদেছিল খালেদ। সুস্থ হবার আগ পর্যন্ত তার আদরে যত্নে এতটুকু কমতি ছিলো না। রাতে প্রচন্ড পায়ের ব্যাথায় কাতর হয়ে গেলে আয়েশার পা ম্যাসাজ করে ঘুম পাড়িয়ে দেয় খালেদ। এমন আরো কতো টুকরো টুকরো ভালোবাসার গল্প আছে, বলে শেষ করা যাবে না।

এভাবেই একটু একটু করে ভালোবাসা বাড়ে। এখন তো দুজন দুজনকে ছাড়া বাঁচার চিন্তাই করতে পারে না। বাবু হবার কিছুদিন পর মাস্টার্স করতে খালেদ চলে এলেন জার্মানিতে। আয়েশাও বাচ্চা নিয়ে চলে এলেন। পড়াশোনায় ব্যাঘাত ঘটলে আয়েশা মুষড়ে পড়লেও তার ওপরে পুর্ণ আস্থা ছিলো খালেদের। সংসার সামলেও খালেদেরই অনুপ্রেরণায় পড়াশোনায় আবার নতুন করে ঝাঁপিয়ে পড়ে আয়েশা।

হয়তো মনে হতে পারে একেবারে ছবির মতো নিখুঁত দাম্পত্য জীবন তাদের। না, একটু আধটু ঝগড়াঝাঁটি তো হচ্ছেই! কিন্তু ঝগড়া কখনো বেশিদুর গড়ায় না। পঞ্চম বিবাহবার্ষিকী ছিলো সম্প্রতি। খালেদ জিজ্ঞাসা করে “কে কাকে বেশি ভালোবাসে?” এর কোনো জবাব দেননি আয়েশা। কারণ তিনি এই একটা জায়গাতে ইচ্ছে করেই হেরে যেতে চান। তিনি স্বামীকে যতটা ভালোবাসেন, ভালোবাসা পেতে চান তারচাইতে অনেক অনেক বেশি।

এই সংক্রান্ত আরো সংবাদ

হোটেল ঘরে বিছানার চাদর সাদা হয় কেন ?

বেড়াতে গিয়ে হোটেলের ঘরে ঢুকে প্রথম যে বিষয়টি নজরে আসে,বিস্তারিত পড়ুন

ধনিয়া পাতার উপকারি গুণ

চিকিৎসকদের মতে, ধনে বা ধনিয়া একটি ভেষজ উদ্ভিদ যার অনেকবিস্তারিত পড়ুন

ওজন কমাতে যা খাওয়া যেতে পারে

আমাদের রান্নাঘরে খাবার তৈরির অনেক পণ্য  থাকে। সেই সবে এমনবিস্তারিত পড়ুন

  • প্রতিদিনের খাদ্যতালিকায় রসুন
  • আমলকি কখনো স্বাস্থ্যের জন্য ‘বিপজ্জনক’ হয়ে ওঠে
  • বাসি দই ও পান্তা ভাতের আশ্চর্যজনক উপকারিতা
  • স্বাদে ও পুষ্টিগুণে ভরপুর সবজি হলো লাউ
  • মৌসুমের সব রেকর্ড ভেঙে তাপমাত্রার পারদ উঠল ৪৩ ডিগ্রিতে
  • যেসব অঞ্চলে টানা ৩ দিন ঝড়বৃষ্টি
  • ২৪ ঘণ্টা না যেতেই ফের কমলো স্বর্ণের দাম
  • গরমে চুলের যত্ন নেবেন কীভাবে?
  • একলাফে সোনার দাম ভ‌রিতে কমলো ৩১৩৮ টাকা
  • কত দিন পর পর টুথব্রাশ বদলাবেন?
  • ত্বকের দাগ দূর করার ঘরোয়া উপায়
  • তরমুজ খেলে কি সত্যিই ওজন কমে?