বৃহস্পতিবার, জুন ২০, ২০২৪

আমাদের কণ্ঠস্বর

প্রধান ম্যেনু

তারুণ্যের সংবাদ মাধ্যম

৪ হাজার কোটির খুলনা-মোংলা রেলপথ প্রস্তুত 

ট্রেন চলাচলের জন্য পুরোপুরি প্রস্তুত খুলনা থেকে মোংলা পর্যন্ত নতুন রেলপথ। সব ধরনের পরীক্ষা-নিরীক্ষা শেষ। ৪ হাজার কোটি টাকার বেশি ব্যয়ের এ রেলপথে কবে থেকে বাণিজ্যিকভাবে ট্রেন যাত্রা শুরু হবে তা বলতে পারছেন না প্রকল্প সংশ্লিষ্ট কেউই। উদ্বোধনের প্রায় ৬ মাস পরও চালু না হওয়ায় ক্ষুব্ধ সাধারণ মানুষ।

সংশ্লিষ্টরা জানান, ২০১০ সালে একনেকে অনুমোদনের পর প্রকল্পের কাজ শুরু হয় ২০১৬ সালের সেপ্টেম্বরে। নানা জটিলতায় পাঁচ দফায় মেয়াদ বাড়িয়ে কাজ শেষে ২০২৩ সালের পহেলা নভেম্বর এ প্রকল্পের উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।

৯১ কিলোমিটার নতুন এই রেলপথে রূপসা নদীর ওপর ৫ দশমিক এক তিন কিলোমিটার দীর্ঘ একটি রেলসেতু নির্মাণ করা হয়। এ ছাড়া ১১টি প্লাটফর্ম, ১০৭টি কালভার্ট, ৩১ ছোট ব্রিজ ও ৯টি আন্ডারপাসের নির্মাণ সম্পন্ন। এরই মধ্যে চার দফায় পরীক্ষামূলকভাবে চলেছে ট্রেন। চলতি বছর পহেলা জানুয়ারি থেকে যাত্রীবাহী ট্রেন চলার ঘোষণাও দেয়া হয়। তবে অজ্ঞাত কারণে এখনও যাত্রা শুরু করেনি যাত্রীবাহী বা পণ্যবাহী কোনো বাণিজ্যিক ট্রেন। এতে ক্ষুব্ধ খুলনা অঞ্চলের মানুষ।

ব্যবসায়ীদের অভিযোগ, নতুন এই রেলপথটি চালু না হওয়ায় মোংলা বন্দরকেন্দ্রিক অর্থনৈতিক সম্ভাবনা থমকে গেছে।

স্থানীয়রা জানান, অধীর আগ্রহে অতি শিগগিরই এ রেললাইনটি চালুর অপেক্ষা করছি। আশা করছি আমরা যেন খুলনা থেকে দ্রুত পণ্য নিয়ে মোংলা যেতে পারি। এতে কর্মজীবীদেরও সুবিধা হবে; সময় বাঁচবে; বাণিজ্যিক উন্নয়নও হবে।
 
এ বিষয়ে খুলনা চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রিজের পরিচালক মফিদুল ইসলাম টুটুল বলেন, ‘একটি সম্ভাবনাময় উন্নয়ন থেমে আছে। এতোগুলো টাকা খরচ করে খুলনা-মোংলা রেলপথ নির্মাণ সম্পন্ন হলেও এটা বসে আছে, চালু হচ্ছে না। এতে আমাদের ব্যবসা-বাণিজ্যের ব্যাপক ক্ষতি হচ্ছে। মোংলা বন্দর সচল হচ্ছে না।’

খুলনা-মোংলা রেল প্রকল্পের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা আহম্মদ হোসেন মাসুম বলেন, ‘ঊর্ধ্বতন রেলওয়ে কর্তৃপক্ষে এই খুলনা-মোংলা নতুন রেলপথটি পরিদর্শন করেছে। তাদের রির্পোটের জন্য আমরা অপেক্ষা করছি। এ রিপোর্ট পাওয়ার পর যেকোনো সময় ট্রেন চালু করা হবে।’

ভারত সরকারের ঋণ সহায়তা চুক্তির আওতায় খুলনা-মোংলা রেল প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করেছে ভারতীয় প্রতিষ্ঠান এলঅ্যান্ডটি এবং ইরকন ইন্টারন্যাশনাল।

চার হাজার ২৬১ কোটি টাকা ব্যয়ের এ রেলপথ আর কতদিন এভাবে পড়ে থাকবে? রেলওয়ে সূত্রের খবর, জনবল সংকট, কোচ-ইঞ্জিনের সংকটে এ পথে রেল চলছে না। তবে অর্থনৈতিক গুরুত্ব বিবেচনায় সব সংকটের দ্রুত সমাধান করে এ রেলপথ চালুর দাবি এ অঞ্চলের মানুষের।

এই সংক্রান্ত আরো সংবাদ

খুলনায় তিন কেন্দ্রে ব্যালট বই ছিনতাই, গণসিল, মহিলার কারাদণ্ড

খুলনার ফুলতলা উপজেলার দুটি ভোট কেন্দ্রের তিনটি বুথে ব্যালট বইবিস্তারিত পড়ুন

খুলনায় ছাত্রদলকর্মীকে কুপিয়ে হত্যা

খুলনা ব্রজলাল বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের স্নাতকোত্তর শ্রেণির ছাত্র ও ছাত্রদলকর্মী আবদুল্লাহবিস্তারিত পড়ুন

খুলনায় যুব‌কের মস্তক‌বিহীন লাশ উদ্ধার

খুলনার রূপসা উপজেলার অাঠা‌রো‌বে‌কি নদী থেকে মস্তকবিহীন এক যুবকের লাশবিস্তারিত পড়ুন

  • খুলনায় যৌতুকের দাবিতে গৃহবধূকে পিটিয়ে হত্যা
  • রায়ে অসন্তষ্ট রাকিবের পরিবার
  • খুলনায় স্ত্রী‌কে পি‌টি‌য়ে হত্যা, পাষণ্ড স্বামী গ্রেফতার
  • মোটরসাইকেল বাঁচাতে গিয়ে বাস খাদে, নিহত ৪
  • মোটরসাইকেল বাঁচাতে বাস খাদে, নিহত ৪
  • খুলনায় নিজ বাসার সামনে শিক্ষক গুলিবিদ্ধ
  • খুলনায় লা‌খো মুসল্লির সমাগ‌মে‌ ইজ‌তেম‌া শুরু
  • খুলনায় যুবদল নেতাকে গুলি করে হত্যা
  • খুলনায় যুবলীগ নেতাকে গুলি করে হত্যা
  • ২৫তম স্ত্রীর মামলায় ২৭তম স্ত্রীর বাড়ি থেকে গ্রেফতার
  • বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় এমপি ভালোভাবে নেয়নি বিশ্ব