রবিবার, মে ১৯, ২০২৪

আমাদের কণ্ঠস্বর

প্রধান ম্যেনু

তারুণ্যের সংবাদ মাধ্যম

৬৯ তম স্বাধীনতা দিবসে মোদীর ভাষণ

স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষ্যে দ্বিতীববার লালকেল্লা থেকে কী বলছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী? পড়ুন সরাসরি। ২০২২ সালে দেশের একজন গরীবও যেন খালি পেটে থাকে। আমাদের মেয়েরা যেন স্বনির্ভর হয়। আমাদের সমাজে কেউ যেন পিছিয়ে না থাকে। এই স্বপ্নের সঙ্গে স্বাধীনতার দিবসে সকলকে শুভেচ্ছা জানাই। ভারত মাতা কি জয়! জব হিন্দ।

২০২২ সালে স্বাধীনতার ৭৫ বছর। আজই আমাদের সংকল্প নিতে হবে। দেশের ৬ লক্ষ গ্রামকে শপথ নিতে হবে, আমি দেশের ভালোর জন্য কাজ করব। স্বচ্ছ সমৃদ্ধ ও সুস্থ ভারত বানাব।

দেশের সীমান্তে জওয়ানরা পাহারা দিচ্ছেন বলেই আমরা শান্তিতে ঘুমোচ্ছি। তিরঙ্গার ছায়ায় দাঁড়িয়ে বলছি, সেনা জওয়ানরা শুনুন- ওয়ান র‍্যাঙ্ক ওয়ান পেনশন আমরা স্বীকার করে নিয়েছে।

কেন ইন্টারভিউর মাধ্যমে চাকরি হবে? অনলাইনে মার্কশিট দেখে আগে এলে আগে পাবেন ভিত্তিতে কেন চাকরি হবে না? মেরিটের থেকেও বেশি ইন্টারভিউ বিবেচ্য হয়। কী করে দু মিনিটে কারও পুরোটে জেনে ফেলেন আপনি? কেউ পারে?

বহু চাকরিতে এখনও দুর্নীতি রয়েছে। স্কিল ইন্ডিয়া, ডিজিটাল ইন্ডিয়া আমাদের দেশকে অনেক এগিয়ে নিয়ে এসেছে। আমাদের দেড়ে যে পুঁজি নিবেশ হবে, তাতে সরকারের প্যারামিটার হবে, আপনি যে শিল্প স্থাপন করছেন এখানে, সেখানে যত লোককে চাকরি দেবেন, আপনাকে তত সুবিধে দেবে সরকার।

স্টার্ট আপ ইন্ডিয়ান প্রকল্পে কয়েক লক্ষ দলিতকে নয়া সুযোগ তৈরি করে দেবে। মহিলা উদ্যোগপতিদের বিশেষভাবে সাহায্য করা হবে। উদ্যোগপতিদের উৎসাহ দিতে হবে। স্টার্ট আপ ইন্ডিয়া, স্ট্যান্ড আপ ইন্ডিয়া -কে গিয়ে নিয়ে যাব আমি।

পুরো বিশ্বের তুলনায় আমাদের সামনে এগোতে হলে যুবকদের এগোতে দিতে হবে। কী করে তারা উদ্যোগপতি হবে তার দিকে নজর দিতে হবে। কয়লা হোক বা বক্সাইট, যেখান থেকে উত্তোলিত হয় সেই খনির বিকাশ কে দেখবে? আমরা সেখানকার মজদুরদের জন্য বিশেষ যোজনা বানিয়েছি।

সব রাজ্য পিছিয়ে নেই। কয়েকটি রাজ্যই রয়েছে। তাদের নাম নিলে ফের রাজনৈতিক তরজা শুরু হয়ে যাবে। সাড়ে ১৮ হাজার ৫০০ গ্রামে এখনও বিদ্যুৎ নেই। স্বাধীনতার আলো তাদের ছোঁয় না। আগামী এক হাজার দিনের মধ্যে তাদের গ্রামে আলো পৌঁছে যাবে।

কৃষি মন্ত্রকের কাজ কৃষি কল্যাণ। তাই এবার থেকে ভারত সরকারের কৃষি মন্ত্রক কৃষি মন্ত্রণালয় এবং কিষাণ কল্যাণ মন্ত্রনালয় নামে পরিচিত হবে। গোটা দেশেই ডিজিটালাইজেশন চেয়েছি। পশ্চিমবঙ্গ শক্তিশালী না হলে ভারত শক্তিশালী হবে না।

কৃষকদের অর্থ যায় দালালদের পেটে। সরকারি কোষাগারে চাপ পড়লেও ইউরিয়াকে ১০০ শতাংশ শুধু চাষের কাজেই ব্যবহার করার প্রযুক্তি আনা হচ্ছে। যাতে কোনও রাসায়নিক কারখানা ইউরিয়া ব্যবহার করতে না পারে। কৃষকদের কাছে অনুরোধ, এবার থেকে সরকারি ইউরিয়া কিনুন।

বৃষ্টি কম হলেও এখন কৃষকেরা না খেয়ে থাকেন না। তাদের পেটে দানা পড়ে। আমাদের দেশের কৃষিতে বড় বিপ্লব আনতে হবে। দেশজুড়ে জমি কমছে। পেট বাড়ছে। ৫০ হাজার কোটি টাকা প্রধানমন্ত্রী কৃষকদের জন্য বরাদ্দ কথা ভাবছে।

সরকারি আধিকারিকেরাও দোষ করলে, সিবিআই তাদের রেয়াৎ করবে না। এরপর থেকে কেউ আর দেশের বাইরে কালো টাকা পাচার করবে না। ৬৫ হাজার কোটি টাকা ভারতের ভাঁড়ারে আসবে। কড়া ওষুধের সাইড এফেক্ট হয়।

কালো টাকা নিয়ে কড়া আইনে অনেক লোকের অসুবিধে হচ্ছে। তারা চাইছেন একটু নিয়মে শিথিলতা আসুক। তাদের বিরুদ্ধে বলে দিই, কালো টাকা এ দেশের ফিরিয়ে আনতে হবে।

আমরা বিদেশি রাষ্ট্রগুলির সঙ্গে এমন রাষ্ট্রগুলির সঙ্গে এমন সম্পর্ক তৈরি করেছি, যাতে তাদের কাছে কালো টাকা জমা পড়লে আমাদের জানাবে। আমাদের সরকারের বিরুদ্ধে কেউ দুর্নীতির অভিযোগ তুলতে পারবে না।

এফ এম রেডিওর দিকে আমি নজর দেওয়ায় অনেকের গা জ্বলে উঠেছিল। অনেকেই আমার উপর চাপ দিতে চেয়েছিলেন। আজ ৮০-৮৫ শহরে এফ এম রেডিও স্টেশনের নিলাম হচ্ছে। এই টাকা গরীবদের কাজে লাগবে।

রাজনীতির পণ্ডিতরা বলবেন, কয়লা নিয়ে চর্চা নয়। দয়া করে রাজনীতির পাল্লায় একে মাপবেন না। এটা রাষ্ট্রের ব্যাপার। ১ লাখ ৭৪ হাজার কোটি টাকার দুর্নীতি হয়েছে। আমরা সময়সীমার মধ্যে কয়লা, স্পেকট্রামের এখন নিলাম করতে হবে। দেড়শো কোটি মানুষ আজ আমাদের আশীর্বাদ করে বলছেন আমরাই ঠিক।

বড়লোকদের বলেছিলাম, ৫০০-৭০০ টাকা নিয়ে আপনি কি করবেন? আপনার তো এক দিনের খরচ ওই টাকাটা। আজ বিশ লাখ মানুষ চাইছেন নিজের সাবসিডি ছেড়ে দিতে।

আমরা এলপিজি সাবসিডিকে সরাসরি গ্রাহকের অ্যাকাউন্টে পাঠিয়েছি। দালালদের দোকান বন্ধ হয়ে গিয়েছে। কারও ১ টাকা অনৈতিকভাবে কাটেনিই। আজ দেড়শো কোটির ভারতবাসী ১৫ হাজার কোটি টাকা প্রতি বছর যা গ্যাস সিলিন্ডারের নামে চুরি হত। বেঁচে যায় এখন।

যোজনা খুঁতখুঁতেদের জন্য নয়। কেউ কেউ দেশের উন্নয়ন দেখতে পান না। ১৫ হাজার কোটি টাকার গ্যাদের ভর্তুকি বন্ধ করতে চাওয়ায় আমার প্রবল সমালোচনা হয়েছে।

ভারতকে দুর্নীতিমুক্ত করা সম্ভব। আইন কাউকে বিভ্রান্ত করার জন্য নয়। শ্রমিকরা ভাবত আমার জন্য কোনটি প্রযোজ্য? আমরা শ্রমিকদের জন্য সেই আইনকে সহজ করেছি।

শ্রমিকদের জন্য বিশেষ পরিচয়পত্র নিয়ে এসেছি আমরা। নিয়ে এসেছি শ্রমভ জয়তে যোজনা। চাকরি ছেড়ে, কারখানা ছেড়ে চলে যান এই কার্ডের নম্বর আপনার সঙ্গে সঙ্গে ষাবে। ২৭ হাজার কোটি টাকার ইন্ডাস্ট্রিকে সুগঠিত করে দেওয়া হয়েছে।

ভারতের গরীব শ্রমিকদের জন্য সম্মানে আমার মাথা নিচু হয়ে আসে। কোট-প্যান্টের চেয়ে একজন দুধবিক্রেতার প্রতি আমার শ্রদ্ধা বেশি। কিন্তু সমাজ এদের ভাল চোখে দেখত না এতদিন। যাদের জন্য দেশের ভাল কাজ হয়, তাদের দিকেই দেশ ভাল চোখে তাকাত না। আমাদের রাষ্ট্রীয় স্বভাব হিসেবে গড়ে তোলা উচিত।

আমরা প্রতিদিন সামনের দিকে এগোব। টিম ইন্ডিয়া পিছনে থাকবে না। ছাত্র ও ছাত্রীদের পৃথক শৌচালয় গড়ার প্রতিশ্রতি রক্ষা করেছি আমরা। ২ লক্ষ ৬২ হাজার বিদ্যালয়ের সাড়ে চার লক্ষ শৌচাগার বানাতে হত। টিম ইন্ডিয়া দাঁতে দাঁতে চেপে অসম্ভবকে সম্ভব করেছে।

মহাত্মা গান্ধীর ১৫০ তম জন্মশতবার্ষিকীতে স্বচ্ছ ভারত উপহার দেব আমরা। স্বচ্ছ ভারতের সবথেকে বড় ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসডর আপনার বাড়ির খুদেটি।

গতবার আমি শৌচালয় বানানোর কথা বলেছিলাম বলে অনেকেই লুকিয়ে হেসেছিল। কিন্তু আজ দেশের উন্নয়ন নিয়ে কথা উঠলেই সকলে বলেন, ভারত স্বচ্ছতা অভিযানে নিয়ে দারুন কাজ করছে। যার জন্য সেলিব্রিটি থেকে শুরু করে অধ্যাত্মিক গুরুদের ধন্যবাদ। মিডিয়াকেও ধন্যবাদ। তারা সমালোচনা না করে এই কাজের জন্য সকলকে উৎসাহী করেছেন।

১০ কোটি মানুষ এখন এই বীমার আওতায় রয়েছেন। বীমা কাকে বলে, গরীব তো ছেড়েই দিন, বড়লোকেরাও জানত না। আমরাই এসে প্রতিদিন ১ টাকা করে জমা দিলে আপনার পরিবারে পাবে এক লাখ টাকার বীমা।

আমি একা নই। টিম ইন্ডিয়া কাজ করেছে। ১ পয়সা না থাকলেও ব্যাঙ্কে অ্যাকাউন্ট খোলা যাবে আশ্বাস দিয়েছিলাম। দেশের বড়লোকেরা বলেছিল দেখে নেব। এখন গরীর মানুষের বড়লোকি দেখছে গোটা দেশ।

২৬ জানুয়ারি যখন দেশ আবার একবার তিরঙ্গার সামনে দাঁড়াবে- আমি আমার মিশন পুরো করে ফেলব। ৭০ কোটি লোক প্রধানমন্ত্রী জন ধন যোজনার অধীনে ব্যাঙ্কে খাতা খুলেছে।

গরীবদের জন্য এতদিন কোনও ব্যাঙ্ক পরিষেবা দিত না। আমরাই এসে প্রথম তাদের জন্য ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট খুলে দিই। করব করব করি নিই আমরা।

ভেদাভেদের কোনও ঠাঁই নাই এ এদেশে। দেশের সমস্ত প্রান্তে ঐক্য অটুট রয়েছে। আজ একটি সাধারণ সকাল নয়।

এই সংক্রান্ত আরো সংবাদ

তাইওয়ানের পার্লামেন্টে তুমুল মারামারি

তাইওয়ানের পার্লামেন্টে তুমুল মারামারিতে জড়িয়েছেন আইনপ্রণেতারা। একটি আইনের সংস্কার নিয়েবিস্তারিত পড়ুন

বাণিজ্য সম্প্রসারন নিয়ে পুতিন-শির বৈঠক

 চীনের সঙ্গে কৌশলগত অংশীদারিত্বের একটি ‘নতুন যুগ’ সূচনার প্রতিশ্রুতি দেওয়ারবিস্তারিত পড়ুন

ভ্রমণ ভিসায় ভারতে যাতায়াত তিন দিন বন্ধ

আগামী ২০ মে থেকে ভারতের পশ্চিমবঙ্গ জেলার লোকসভা নির্বাচনের ভোটগ্রহণবিস্তারিত পড়ুন

  • পুতিন রাষ্ট্রীয় সফরে চীনে পৌঁছেছেন 
  • নীতি সহায়তা যুক্ত হচ্ছে রফতানিতে
  • কানের ৭৭তম আসরের পর্দা উঠছে আজ
  • এক ভিসায় ভ্রমণ করা যাবে উপসাগরীয় ছয় দেশ
  • রাশিয়ার প্রতিরক্ষামন্ত্রী সের্গেই শোইগুকে নিরাপত্তা পরিষদের প্রধান করা হয়েছে
  • সেই পাঁচ রাজ্যে বাইডেনের চেয়ে এগিয়ে ট্রাম্প
  • গাজায় মানবিক কনভয়ে ইসরায়েলি হামলার নিন্দা জানিয়েছে বাংলাদেশ
  • দেশের রিজার্ভ কমে ১৮ বিলিয়ন ডলার
  • আফগানিস্তানে ভয়াবহ বন্যায় ৬০ জনের মৃত্যু, বহু নিখোঁজ
  • জাতিসংঘে ফিলিস্তিনকে পূর্ণ সদস্য করার প্রস্তাব পাস  
  • ফিলিস্তিনপন্থী পোস্টে রিঅ্যাক্ট দেওয়ায় চাকরিচ্যুত প্রধান শিক্ষিকা
  • ভিসাপ্রক্রিয়া সহজ করার ব্যাপারে আলোচনা হয়েছে: পররাষ্ট্রমন্ত্রী