শনিবার, জুলাই ২০, ২০২৪

আমাদের কণ্ঠস্বর

প্রধান ম্যেনু

তারুণ্যের সংবাদ মাধ্যম

দেনা মেটাতে যাজকের কাছে চাঁদা দাবি, সহকারীর স্বীকারোক্তি

১০ লাখ টাকা ঋণ ছিল তাঁর। সেই ঋণ মেটাতে জয়পুরহাটের খঞ্জনপুর মিশনের ক্যাথলিক চার্চের ফাদার (যাজক) পোল্যান্ডের অধিবাসী পাওয়েলকে হত্যার হুমকি দিয়ে চিঠি দেন। দাবি করেন ১০ লাখ টাকা।

চাঁদা দাবি করে সেই চিঠি দেওয়ার দুইদিনের মধ্যে ঘটনার হোতা যাজক পাওয়েলের সহকারী সুনীল টুডুকে (৩৪) আজ রোববার গ্রেপ্তার করে পুলিশ। হুমকি দিয়ে চিঠি দেওয়ার কথা স্বীকার করে বিকেলে সুনীল জেলার মুখ্য বিচারিক হাকিম ইকবাল বাহারের আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দেন।

সুনীল টুডু খঞ্জনপুর মিশনের কর্মচারী। পাশাপাশি তিনি চার্চের ফাদারের সহকারী হিসেবে দায়িত্ব পালন করে আসছিলেন। তাঁর বাড়ি খঞ্জনপুর মাহালিপাড়ায়।

জয়পুরহাটের সহকারী পুলিশ সুপার (হেড কোয়ার্টার) রুহুল আমিন জানান, গত শুক্রবার দুপুরে জয়পুরহাট শহরতলীতে ঐতিহাসিক পাহাড়পুর সড়কের পাশে অবস্থিত খঞ্জনপুর মিশনের চার্চের ফাদারের সহকারী সুনীল টুডু ফাদার মিস্টার পাওয়েলকে একটি চিঠি দিয়ে বলেন যে, পাজামা-পাঞ্জাবি পরা কয়েকজন অপরিচিতি লোক তাঁকে খঞ্জনপুর সড়কে দেখতে পেয়ে এ চিঠিটি চার্চে গিয়ে ফাদারের হাতে দেওয়ার অনুরোধ জানান। হাতে লেখা ওই চিঠিতে ফাদার পাওয়েলের কাছে ১০ লাখ টাকার চাঁদা দাবি করা হয়। টাকা না দিলে হত্যা করার হুমকি দেওয়া হয়।

এ চিঠি পাওয়ার পর পাওয়েল সঙ্গে সঙ্গে বিষয়টি জয়পুরহাট থানা পুলিশকে জানান। পুলিশ বিষয়টি খতিয়ে দেখার পাশাপাশি ওই চার্চে তাঁর নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করে।

পুলিশ কর্মকর্তা রুহুল আমিন জানান, পুলিশের সন্দেহের তালিকায় প্রথমেই আসে চার্চের ফাদারের সহকারী সুনীল টুডুর নাম। যে নিজে ওই চিঠিটি বহন করে এনে ফাদারকে দিয়েছিলেন। রোববার সন্দেহভাজন হিসেবে সুনীল টুডুকে আটক করে তাঁর হাতের লেখা এবং তাঁর পারিবারিক বিভিন্ন বিষয়ে খোঁজখবর নিতে গিয়ে পুলিশ নিশ্চিত হয় যে, তিনিই এ ঘটনার হোতা। পুলিশের জেরার মুখে একপর্যায়ে তিনি সব স্বীকার করে জানান, নিজেই পরিকল্পিতভাবে চাঁদাবাজির এ নাটক সাজিয়েছিলেন। কারণ, তাঁর অনেক ঋণ ছিল। প্রাণনাশের ভয় দেখিয়ে কৌশলে ফাদারের কাছ থেকে থেকে ১০ লাখ টাকা হাতিয়ে নিতে পারলে তিনি তাঁর ঋণ শোধ করতে পারতেন।

বিকেলে আদালতে জবানবন্দি শেষে সন্ধ্যায় তাঁকে জয়পুরহাট জেলা কারাগারে নিয়ে যায় পুলিশ।

এই সংক্রান্ত আরো সংবাদ

জয়পুরহাটে ধর্ষক সুইটের বিচার দাবি

জয়পুরহাটের পাঁচবিবি উপজেলার আটাপাড়া সরকারি প্রাথমিক ও নিম্ন মাধ্যমিক বিদ্যালয়েরবিস্তারিত পড়ুন

স্বামীর সঙ্গে অভিমান করে শিশুকে নিয়ে ট্রেনের নিচে ঝাঁপ!

স্বামীর সঙ্গে অভিমান করে জয়পুরহাটের সদর উপজেলায় শিশু মেয়েকে নিয়েবিস্তারিত পড়ুন

শিশুর লাশ উদ্ধার, অপহরণের পর হত্যার অভিযোগ

জয়পুরহাটের কালাই উপজেলার পৌর এলাকায় দ্বিতীয় শ্রেণিতে পড়া এক শিশুকেবিস্তারিত পড়ুন

  • শাশুড়িকে হাতুড়িপেটা করে জামাই শ্রীঘরে
  • ৮ দিন পার হতে চলেছে কিন্তু এখনও জ্ঞান ফিরে আসেনি জয়পুরহাটের সেই স্কুলছাত্রীটির!
  • যৌতুক না পেয়ে শাশুড়িকে হাতুড়িপেটা করেছে জামাই
  • বিকাশের মাধ্যমে খেলায় বাজি, ৩ জনের সাজা
  • জয়পুরহাটে সড়ক দুর্ঘটনায় স্বামী-স্ত্রী নিহত
  • আক্কেলপুুরে চামড়া মজুদ করে এখন ব্যবসায়ীর মাথায় হাত
  • পারিবারিক কলহের জেরে স্ত্রীকে হত্যার পর স্বামীর আত্মহত্যা..!
  • বিজিবির ভয়ে পালাতে গিয়ে হিজড়া নিহত
  • জয়পুরহাটের সীমান্তে ২ কেজি স্বর্ণ উদ্ধার
  • জয়পুরহাটে পুকুর থেকে পুলিশ কর্মকর্তার লাশ উদ্ধার
  • জয়পুরহাটে হত্যা মামলায় ৭ জনের ফাঁসি