মঙ্গলবার, এপ্রিল ২৩, ২০২৪

আমাদের কণ্ঠস্বর

প্রধান ম্যেনু

তারুণ্যের সংবাদ মাধ্যম

সোনারগাঁয়ে ভোটকেন্দ্রে গুলিবিদ্ধ হয়ে যুবক নিহত

নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁওয়ে নির্বাচনী সহিংসতায় পুলিশের গুলিতে হৃদয় ভূঁইয়া (২৩) নামের একজন নিহত হয়েছেন। এ সময় আরো একজন গুলিবিদ্ধ হয়ে গুরুতর আহত হন। এছাড়া পুলিশসহ ২০ জন আহত হয়েছে।শনিবার (৯ মার্চ) বিকেলে উপজেলার পিরোজপুর ইউনিয়নের দুধঘাটা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রের বাইরে নির্বাচনী ফলাফল প্রকাশকে কেন্দ্র করে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত মো. হৃদয় দুধঘাটা গ্রামের আমির ভূঁইয়ার ছেলে ও আহত মো. ফারুক একই গ্রামের কামাল ভূঁইয়ার ছেলে।এর আগে উপজেলার পিরোজপুর ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ডের ইউপি উপ-নির্বাচনে দুধঘাটা ভোট কেন্দ্রে পরাজিত মেম্বার পদ প্রার্থী মো. কায়সার আহম্মেদ রাজু লোকজন ও সমর্থকেরা নির্বাচন কর্মকর্তাগণ ও পুলিশসহ গাড়ির উপর দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র দিয়ে হামলা চালিয়ে ব্যালট বক্স ছিনতাইয়ের চেষ্টা চালায়।

এ সময় ব্যালট বক্স, পুলিশ, আনসার নির্বাচন কর্মকর্তাদের জীবন রক্ষার্থে প্রিজাইডিং অফিসারের নির্দেশে পুলিশ ফাঁকা গুলি ছুঁড়ে। এতে পুলিশের গুলিতে পরাজিত মেম্বার প্রার্থী মো. কায়সার আহম্মেদ রাজুর (তালা প্রতীকের) কর্মী মো. হৃদয় (২৪) ও মো. ফারুক (৩৫) নামে ২জন গুরুতরভাবে আহত হয়।

পরে এলাকাবাসী আহতের উদ্ধার করে সোনারগাঁও স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মো. হৃদয়কে মৃত বলে ঘোষণা করে এবং গুরুতর আহত মো. ফারুককে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠিয়ে দেয়।

প্রত্যক্ষদর্শীর ও এলাকাবাসীরা জানান, প্রায় ৬-৭ মাস আগে উপজেলার পিরোজপুর ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ডের নির্বাচিত মেম্বার মজিবুর রহমান ভূঁইয়া মারা গেলে, পদটি শূন্য ঘোষণা করে নির্বাচন কর্মকর্তা। পরে শনিবার (৯ মার্চ) উপ-নির্বাচনে বিজয়ী মেম্বার প্রার্থী আব্দুল আজিজ সরকার (মোরগ প্রতীক) ও পরাজিত প্রার্থী মো. কায়সার আহম্মেদ রাজু (তালা প্রতীক) ভোটে নির্বাচন করেন। ভোট শেষে সন্ধ্যা ৭টার দিকে গণনা শেষ হয়।

এ সময় ভোট কেন্দ্র থেকে বের হয়ে পরাজিত প্রার্থী মো. কায়সার আহম্মেদ রাজু লোকজন ও তার সমর্থকেরা প্রথমে বিজয়ী প্রার্থী আজিজের লোকজনের ওপর হামলা চালায়। এতে করে উভয় দলের মধ্যে পাল্টাপাল্টি সংঘর্ষ শুরু হয়।

এদিকে পুলিশের পাহারায় প্রিজাইডিং অফিসার ও নির্বাচন কর্মকর্তারা ব্যালট বক্স গাড়িতে তুলে উপজেলা কার্যালয়ে ফিরে আসার সময় পরাজিত প্রার্থীর লোকজন তাদের ওপর দেশীয় ধারালো অস্ত্রশস্ত্রে সজ্জিত হয়ে ইট পাটকেল ছুঁড়ে গাড়ি ভাংচুর করে ব্যালট বক্স ছিনতাই করে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। পরে পুলিশ তাদের জানমাল রক্ষার্থে ফাঁকা গুলি ছুঁড়লে হৃদয় নিহত ও মো. ফারুক মারাত্মকভাবে আহত হয়।

এ ঘটনায় সোনারগাঁও থানায় অফিসার ইনচার্জ এসএম কামরুজ্জামান, পরিদর্শক অপারেশন ও সেকেন্ড অফিসার উপ-পরিদর্শক পঙ্কজ কান্তি সরকারকে কয়েক দফা ফোন দিলেও তারা রিসিভ করেননি।

এই সংক্রান্ত আরো সংবাদ

সন্ত্রাসী হামলায় আইনজীবী আহত

নিজস্ব সংবাদদাতা : কোর্টে বিরোধীদলীয় মামলা পরিচালনা করার কারনে সন্ত্রাসীবিস্তারিত পড়ুন

নারায়ণগঞ্জে শ্যালিকাকে ধর্ষণের ভিডিও ইন্টারনেটে, দুলাভাই গ্রেপ্তার

নারায়ণগঞ্জের বন্দরে শ্যালিকাকে ধর্ষণ করে সেই ভিডিও চিত্র ইন্টারনেটে ছড়িয়েবিস্তারিত পড়ুন

নারায়ণগঞ্জ ডিবির কর্মকর্তার বিরুদ্ধে চাঁদাবাজির মামলা

নারায়ণগঞ্জ জেলা পুলিশের গোয়েন্দা শাখার (ডিবি) সহকারী এক উপপরিদর্শকের (এএসআই)বিরুদ্ধেবিস্তারিত পড়ুন

  • নারায়ণগঞ্জে ছেলের ছুরিকাঘাতে বাবা খুন
  • নর্দমার ভেতর পাঁচ বছর বয়সী শিশুর গলাকাটা লাশ!
  • সাত খুন: ডেথ রেফারেন্স ও আপিল শুনানিতে বেঞ্চ নির্ধারণ
  • নারায়ণগঞ্জে বজ্রপাতে দুইজনের মৃত্যু
  • নারায়ণগঞ্জে স্ত্রীকে হত্যার পর স্বামীর আত্মহত্যা
  • শেয়াল-কুকুরে খেল গৃহবধূর লাশ!
  • প্রবাসীর সুন্দরী স্ত্রীকে নিয়ে যুবদলের সভাপতি উধাও
  • নারায়ণগঞ্জে মাটিতে পুতে রাখা যুবকের লাশ উদ্ধার
  • নারায়ণগঞ্জে যুবকের মস্তকবিহীন লাশ উদ্ধার
  • নারায়ণগঞ্জে ধর্ষণের ভিডিও ধারণ করে ফের মাদ্রাসাছাত্রীকে ধর্ষণের চেষ্টা!
  • চতুর্থ স্ত্রীর যৌতুক মামলায় পুলিশ কর্মকর্তার কারাদণ্ড