রবিবার, এপ্রিল ২১, ২০২৪

আমাদের কণ্ঠস্বর

প্রধান ম্যেনু

তারুণ্যের সংবাদ মাধ্যম

৩ দিন দাঁড়িয়ে থেকেও টিকিট জোটেনি’ ভিআইপিরা ৫ গুণ

ঈদ উপলক্ষে ট্রেনের টিকিট যেন সোনার হরিণ। ঢাকার কমলাপুর রেলওয়ে স্টেশনে দুই থেকে আড়াই দিন পর্যন্ত খেয়ে না খেয়ে, শুয়ে, বসে কিংবা দাঁড়িয়ে থেকেও টিকিট জোটেনি অনেকের ভাগ্যে। উল্টো সাধারণযাত্রীদের জন্য বরাদ্দকৃত ৬৫ ভাগ টিকিটে ভাগ বসাচ্ছেন ‘ভিআইপি’রা। নিয়মানুযায়ী ভিআইপিদের জন্য টিকিটের ৫ শতাংশ বরাদ্দ থাকলেও এর প্রায় ৫ গুণ (২৫ থেকে ৩০ শতাংশ) টিকিট ভিআইপিদের নামে চলে যাচ্ছে। রেলের টিকিট বিক্রির সঙ্গে সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের ভাষ্য, তারা নিরুপায়। এমপি, মন্ত্রী, সাংবাদিক, আইনশৃংখলা বাহিনীর কর্মকর্তাসহ ভিআইপি নামধারীদের চাপে (মোবাইল ফোন কিংবা ডিও লেটার) বাধ্য হয়েই তাদের কোটার অনেক বেশি টিকিট দিতে হচ্ছে।

এ বিষয়ে রোববার বিকালে রেলপথমন্ত্রী মো. মুজিবুল হক এমপি বলেন, টিকিট বিক্রয়ে কোনো অনিয়ম সহ্য করা হবে না। সাধারণ কিংবা ভিআইপি কোনো কোটাতেই অনিয়ম বরদাশত করা হবে না। টিকিট বিক্রয়ে কোনো কর্মকর্তা কিংবা কর্মচারী অনিয়মের সঙ্গে সম্পৃক্ত থাকলে তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। ৫ শতাংশ ভিআইপি ও ৫ শতাংশ স্টাফ কোটাতেই কেবল টিকিট দেয়া হবে। কোনো অবস্থাতেই কোটার অতিরিক্ত টিকিট দেয়া হবে না।

ঈদ উপলক্ষে বিভিন্ন ট্রেনের মোট টিকিটের ২৫ শতাংশ ই-টিকিট ও মোবাইলে বিক্রয় করা হয়। বাকি ৬৫ শতাংশ টিকিট কাউন্টারের মাধ্যমে বিক্রি করা হবে সাধারণযাত্রীদের জন্য। রেলপথ মন্ত্রণালয়, রেলওয়ে পরিবহন, অপারেশন ও বাণিজ্যিক বিভাগ সূত্রে জানা গেছে, ঈদকে সামনে রেখে প্রতিবছরের মতো এবারও অতিরিক্ত যাত্রীবহনে প্রায় ১৭০টি যাত্রীবাহী কোচ ও ৭ জোড়া স্পেশাল ট্রেন রেলে সংযুক্ত করা হচ্ছে। ইতিমধ্যে কমলাপুর রেলওয়ে স্টেশন কাউন্টারে এসব অতিরিক্ত কোচ ও স্পেশাল ট্রেনের টিকিট বিক্রয়ে ৫টি কাউন্টার বাড়ানো হয়েছে। আগামী ৯ জুলাই থেকে ঈদের অগ্রিম টিকিট বিক্রয় শুরু হবে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক রেলওয়ের এক কর্মকর্তা জানান, ঈদ উপলক্ষে টিকিট বিক্রি সকাল ৯টা থেকে শুরু হয়ে বেলা ১১-১২টার মধ্যেই শেষ হয়ে যায়। দীর্ঘ লাইনে দাঁড়িয়ে থাকা যাত্রীদের ৪ ভাগের ১ ভাগ মাত্র টিকিট পান। অপরদিকে ভিআইপি কোটায় টিকিটের চাহিদা অনুযায়ী লিস্ট তৈরিতে ব্যস্ত থাকেন সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাসহ আরও ১০-১২ জন। ভিআইপি টিকিটগুলো বিকাল ৫টা থেকে রাত ১২টা পর্যন্ত দেয়া হয়। ৫ শতাংশ দেয়ার কথা থাকলেও ২৫ থেকে ৩০ শতাংশ টিকিট ভিআইপি নামধারীদের দেয়া হয়।

এসব অভিযোগের বিষয়ে জানতে চাইলে ঢাকা রেলওয়ের বিভাগীয় ব্যবস্থাপক মো. আরিফুজ্জামান যুগান্তরকে জানান, তিনি নতুন দায়িত্ব গ্রহণ করেছেন। নিয়ম অনুযায়ী ভিআইপি টিকিট শুধু যেসব ভিআইপি লোক ট্রেনে ভ্রমণ করবেন তারাই পাবেন। একজন এমপি কোটা হিসেবে ২টি টিকিট পাবেন। তিনি ২টির অধিক টিকিট নিতে পারেন না। তিনি যদি নিজে ট্রেনে ভ্রমণ না করেন, কিংবা ২টির অধিক টিকিট ক্রয়ের জন্য অনুরোধ-নির্দেশ কিংবা ডিও লেটার দেন- সেটা যথাযথ হবে না। তিনি বলেন, কোটার বাইরে এবার কাউকেই কোনো টিকিট দেয়া হবে না। কোনো কোনো সংসদ সদস্যকে ডিও লেটার কিংবা তাদের ভিজিটিং কার্ডের মাধ্যমে ১৫-২০টিরও বেশি টিকিট নিতে দেখা গেছে জানিয়ে কমলাপুর রেলওয়ে স্টেশনে কর্মরত নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক কর্মকর্তা জানান, ঈদে কমলাপুর রেলওয়ে স্টেশনে টিকিট কাটতে আসা লোকজনের চাপ বেড়ে যায়।

এর মধ্যেও ভিআইপিদের পাঠানো প্রতিনিধিদের মাধ্যমে মোবাইল ফোনে যত্রতত্র কথা বলতে বাধ্য হন টিকিট বিক্রয় সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা। সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা কিংবা প্রতিনিধিদের ভয়-ভীতিও দেখানো হয়। কখনও কখনও ভিআইপি প্রতিনিধিদের দ্বারা অপমানিতও হয়ে থাকেন তারা। কেবিন ও এসি চেয়ার টিকিট এক প্রকার জোর করেই কাটাতে বাধ্য হন তারা। তাতে সাধারণ যাত্রীদের ভাগ্যে কেবিনের টিকিট মেলে না।

ঈদ উপলক্ষে ভিআইপি টিকিটের নামে টিকিটপ্রাপ্তদের ভিড় চরমে উঠে বলে জানান কমলাপুর রেলওয়ে স্টেশন ম্যানেজার সিতাংশু চক্রবর্তী। অপর এক কর্মকর্তা বলেন, রেলওয়েতে ট্রেনের কোটাপ্রথা বাতিল করা প্রয়োজন। ভিআইপি কোটায় কাটা টিকিটে ভিআইপি ব্যক্তিরা চলাচল করছেন না, চলাচল করছেন তাদের স্বজন কিংবা কাজের লোক।

রেলওয়ে সূত্র জানায়, প্রতিবছর ঈদের সময় এমপি, মন্ত্রী, সচিব, সেক্রেটারি, তিন বাহিনীসহ পুলিশ ও র‌্যাবের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের নামে শত শত টিকিট কাটা হয়। তাদের নামে টিকিট কাটা হলেও সেসব অধিকাংশ টিকিটের বিপরীতেই যাচ্ছেন অন্যরা। সাধারণ যাত্রীরা বারবার কোটাপ্রথা বাতিলের জন্য সংশ্লিষ্টদের কাছে দাবি জানালেও কাজের কাজ কিছুই হচ্ছে না।

রেলওয়ের মহাপরিচালক মো. আমজাদ হোসেন জানান, ভিআইপিরা কখনও কখনও বেশি টিকিটের জন্য ডিও লেটার কিংবা অনুরোধ জানান। তবে এবার কোটা অনুযায়ী ভিআইপিদের টিকিট দেয়া হবে। ভিআইপি টিকিটে অন্য কেউ ভ্রমণ করলে সেটা বন্ধ করার দায়িত্ব ভিআইপিদেরই। কোটার অতিরিক্ত টিকিট বিক্রয় করা হলে সংশ্লিষ্টদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে বলেও তিনি জানান।

এই সংক্রান্ত আরো সংবাদ

রাজধানীর শিশু হাসপাতালে আগুন

রাজধানীর আগারগাঁওয়ে ঢাকা শিশু হাসপাতালে আগুন লেগেছে। আজ শুক্রবার দুপুরবিস্তারিত পড়ুন

বায়ু দূষণ: শীর্ষস্থানে বাংলাদেশ, দ্বিতীয় স্থানে পাকিস্তান

বায়ুদূষণ বিশ্বজুড়ে এক মহামারি আকার ধারণ করেছে। দক্ষিণ এশিয়ার তিনবিস্তারিত পড়ুন

ক্ষমা চেয়ে নিচ্ছি, তাড়াহুড়োয় ভুল হয়ে গেছে: বাণিজ্য প্রতিমন্ত্রী

বাণিজ্য মন্ত্রণালয় থেকে খেজুরের দাম নির্ধারণ করে দেওয়ার বিজ্ঞপ্তিতে নিম্নমানেরবিস্তারিত পড়ুন

  • রাজধানীতে হাতিরপুলের আগুন নিয়ন্ত্রণে
  • হাসপাতাল থেকে বাসায় ফিরলেন খালেদা জিয়া
  • রাস্তায় ইফতার করলেন ডিএমপি কমিশনার
  • অবশেষে ডিএনএ পরীক্ষায় জানা গেল অভিশ্রুতি নাকি বৃষ্টি
  • তিন অপহরণকারী আটক, অপহৃত শিশু উদ্ধার !
  • ধর্ষণ করার আগে ছাত্রীটিকে দল বেঁধে মারধর করল
  • কখনো অঝর ধারায়, কখনো বা থেমে থেমে বৃষ্টি, ভোগান্তি সারাদিন
  • অধরা সিদ্দিকুরের দুর্দশায় দায়ী পুলিশরা
  • রাজধানীতে র‌্যাবের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ আহত ২
  • মতিঝিলে জনতা টাওয়ারে আগুন
  • মিরপুর ও আশপাশের এলাকায় আজ ১০ ঘণ্টা গ্যাস থাকবে না
  • এই দুর্ভোগের শেষ কবে?