বৃহস্পতিবার, জুলাই ১৮, ২০২৪

আমাদের কণ্ঠস্বর

প্রধান ম্যেনু

তারুণ্যের সংবাদ মাধ্যম

২০১৬-১৭ অর্থবছর

৫০% বড় আকারের বাজেট ঘোষণা সাঈদ খোকনের

সড়ক ও ট্রাফিক অবকাঠামো রক্ষণাবেক্ষণ ও উন্নয়নে প্রায় সাড়ে ৯০০ কোটি টাকা নির্ধারণ করে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) ২০১৬-১৭ অর্থবছরের জন্য ৩ হাজার ১৮৩ কোটি ৬৫ লাখ টাকার বাজেট ঘোষণা করেছেন মেয়র সাঈদ খোকন।

বৃহস্পতিবার নগর ভবনের মেয়র হানিফ মিলনায়তনে আনুষ্ঠানিকভাবে এই বাজেট ঘোষণা করা হয়।

এবারের বাজেটের আকার গত ২০১৫-১৬ অর্থবছরের চেয়ে ১ হাজার ৯৮ কোটি ২৯ লাখ টাকা বেশি। শতাংশের হিসাবে যা প্রায় ৫০ শতাংশ বেশি। গত অর্থবছর প্রস্তাবিত বাজেটের আকার ছিল ২ হাজার ৮৫ কোটি ৩৬ লাখ টাকা।

তবে এই ঘোষিত বাজেট বাস্তবায়ন সম্ভব বলে জানান মেয়র সাঈদ খোকন।

বাজেট ঘোষণায় মেয়র বলেন, এবারের বাজেট নিজস্ব উৎস থেকে ১ হাজার ৩৯১ কোটি ২৭ লাখ টাকা লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে। নিজস্ব উৎস থেকে আয়ের খাতগুলোর মধ্যে রেটস অ্যান্ড ট্যাক্স বাবদ বকেয়াসহ আয়ের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে ৫০০ কোটি টাকা। বাজার সালামি সাড়ে ৬০০ কোটি, বাজার ভাড়া ৩০ কোটি, ট্রেড লাইসেন্স ফি বাবদ ৬৫ কোটি, রিক্সা লাইসেন্স বাবদ ৩ কোটি ৬০ লাখ, বাস-ট্রাক টার্মিনাল থেকে ৫ কোটি ৬০ লাখ, অস্থায়ী পশু হাট ইজারা বাবদ ৫ কোটি ৬০ লাখ,অস্থায়ী আমানতের সুদ বাবদ ৩ কোটি টাকা,কমিউনিটি সেন্টার বাবদ আয় ৩ কোটি,শিশু পারর্ক থেকে ৬ কোটি ৭০ লাখ, রাস্তা খনন ফি বাবদ ২৮ কোটি, যন্ত্রপাতি ভাড়া বাবদ ১০ কোটি, সম্পত্তি হস্তান্তর কর খাতে ৬৫ কোটি টাকা আয়ের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে।

এ ছাড়া সরকারি অনুদান থেকে ১৮ কোটি, সরকারি ও বৈদেশিক সহায়তামূলক প্রকল্প খাতে ১ হাজার ৪৮৫ কোটি ৩২ লাখ টাকা সাহায্য হিসেবে পাওয়ার বিষয়ে লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছে। আর সরকারি বিশেষ অনুদান বাবদ ধরা হয়েছে ২০০ কোটি টাকা।

অন্যদিকে, সড়ক ও ট্রাফিক অবকাঠামো উন্নয়ন ছাড়াও বাজেটে উল্লেখযোগ্য ব্যয়ের খাতগুলো হলো- ভৌত অবকাঠামো নির্মাণ, উন্নয়ন ও রক্ষণাবেক্ষণ খাতে ৫৬০ কোটি ৬৯ লাখ টাকা, বেতন বাবদ ২৪০ কোটি; বিদ্যুৎ, জ্বালানি, পানি ও গ্যাস বাবদ ৭৯ কোটি, মেরামত ও রক্ষণাবেক্ষণ বাবদ ২৯ কোটি ৭৫ লাখ,বিশেষ উন্নয়ন প্রকল্প খাতে ২০ কোটি, মশক নিয়ন্ত্রণে সাড়ে ১১ কোটি টাকা।

বাজেট ব্যয়ের অন্য খাতগুলোর মধ্যে নাগরিক বিনোদনমূলক সুবিধাদি উন্নয়ন খাতে ১৫১ কোটি ৫০ লাখ টাকা; সরঞ্জাম, যন্ত্রপাতি ও সম্পদ ক্রয় বাবদ ২০৭ কোটি ৯৭ লাখ, ভূমি অধিগ্রহণ ও উন্নয়ন খাতে ৫৩৪ কোটি ৬৬ লাখ টাকা ব্যয় নির্ধারণ করা হয়েছে বলে মেয়র জানান।

সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে মেয়র সাঈদ খোকন বলেন, জাতীয় বাজেটের সঙ্গে এর তুলনা চলে না। তবে ডিসিসির ঘোষিত বাজেট বাস্তবায়ন সম্ভব বলে জানান তিনি।

বাজেট ঘোষণার অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে ডিএসসিসির প্রধান নির্বাহী খান মোহাম্মদ বিল্লালসহ ঢাকা সিটি কর্পোরেশনের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা ও ওয়ার্ড কাউন্সিলররা উপস্থিত ছিলেন।

এই সংক্রান্ত আরো সংবাদ

মিরপুরে অজ্ঞান পার্টির কবলে কিশোর, খোয়ালো অটোরিকশা

রাজধানী মিরপুরের দিয়া বাড়িতে অজ্ঞান পার্টির কবলে পড়ে ব্যাটারি চালিতবিস্তারিত পড়ুন

নয়াপল্টনে র‍্যাবের অভিযানে অবৈধ ভিওআইপি সরঞ্জামাদিসহ আটক ১

রাজধানীর নয়াপল্টন এলাকায় ৬৩ নম্বর বাড়ি থেকে বিপুল পরিমাণ বিটিআরসিরবিস্তারিত পড়ুন

গার্ডরুমে সহকর্মীর গুলিতে পুলিশ সদস্য নিহত

রাজধানীর গুলশান-বারিধারা ডিপ্লোম্যাটিক এলাকায় গুলশান থানার ক্ষেত্রাধিন ফিলিস্তিন দূতাবাসের সামনেরবিস্তারিত পড়ুন

  • বাংলাদেশ ব্যাংক ও দুদকের ৭২ কর্মকর্তার চাকরি ছাড়ায় নানা আলোচনা
  • রাজধানীর শিশু হাসপাতালে আগুন
  • বায়ু দূষণ: শীর্ষস্থানে বাংলাদেশ, দ্বিতীয় স্থানে পাকিস্তান
  • ক্ষমা চেয়ে নিচ্ছি, তাড়াহুড়োয় ভুল হয়ে গেছে: বাণিজ্য প্রতিমন্ত্রী
  • রাজধানীতে হাতিরপুলের আগুন নিয়ন্ত্রণে
  • হাসপাতাল থেকে বাসায় ফিরলেন খালেদা জিয়া
  • রাস্তায় ইফতার করলেন ডিএমপি কমিশনার
  • অবশেষে ডিএনএ পরীক্ষায় জানা গেল অভিশ্রুতি নাকি বৃষ্টি
  • তিন অপহরণকারী আটক, অপহৃত শিশু উদ্ধার !
  • ধর্ষণ করার আগে ছাত্রীটিকে দল বেঁধে মারধর করল
  • কখনো অঝর ধারায়, কখনো বা থেমে থেমে বৃষ্টি, ভোগান্তি সারাদিন
  • অধরা সিদ্দিকুরের দুর্দশায় দায়ী পুলিশরা