শনিবার, জুলাই ১৩, ২০২৪

আমাদের কণ্ঠস্বর

প্রধান ম্যেনু

তারুণ্যের সংবাদ মাধ্যম

অফিসে কাজের সময় কেন ঘুম পায়?

অফিসে কি আপনার শুধু ঘুম পায়? এই সমস্যা শুধু আপনার একার নয়। প্রায় অধিকাংশ চাকরিজীবী মানুষেরই অফিসে কাজের সময় ঘুম পায়। কথার কথা না, গবেষণার হিসাব এমনটাই বলছে।

কম ঘুমানো-এমন একটি বদ অভ্যাসে পরিণত হচ্ছে, যা দিনকে দিন আমাদের কার্যক্ষমতাকে কমিয়ে দিচ্ছে। আপনি যদি সব সময় অফিসে তন্দ্রা অনুভব করেন, এমনকি মিটিংয়ের মধ্যেও যদি এমনটা হয় তাহলে আপনার মধ্যে কাজের উদ্দীপনা ও কর্মক্ষমতা হ্রাস পাবে এবং আপনার অধীনস্ত কর্মচারীদের ওপরও এর প্রভাব পড়বে।

যুক্তরাষ্ট্রের একটি কর্মচারীভিত্তিক স্বাস্থ্য ইনস্টিটিউট গবেষণাটি পরিচালনা করে। তিনটি প্রতিষ্ঠান থেকে মোট এক হাজার ১৩৯ জন কর্মচারী এই গবেষণায় অংশ নেন।

প্রধান গবেষক জেনিফার তুর্গিস গবেষণা করে দেখেন, এঁদের মধ্যে ১৫ শতাংশ কর্মচারী সপ্তাহে অন্তত একদিন অফিসে ঘুমের তন্দ্রা অনুভব করেন! আর এর পেছনে চারটি কারণ রয়েছে : দুশ্চিন্তা অথবা চাপ, মানসিক কার্যকলাপ, শারীরিক অস্বস্তি এবং পরিবেশগত ব্যাঘাত।

এর আগে ন্যাশনাল স্লিপ ফাউন্ডেশনের একটি গবেষণায় দেখা যায়, প্রায় ২৯ শতাংশ কর্মচারী অফিসে তন্দ্রা অনুভব করেন এবং কাজের সময় তাদের ঘুম পায়। যেখানে প্রায় ৩৬ শতাংশ মানুষের গাড়ি চালানোর সময় ঘুম পায়।

রাতে কম ঘুমানোর জন্য সকালে আপনি বেশ তন্দ্রাচ্ছন্ন থাকেন। এর ফলে উৎপাদনশীল কোনো কাজের প্রতি আপনার আগ্রহ কাজ করে না। এমনকি এভাবে পরপর পাঁচদিন, দিনের বেলা তন্দ্রাচ্ছন্ন থাকার ফলে আপনার খাবার পরিপাকে সমস্যা হয় এবং আপনার শরীরের শক্তি ধীরে ধীরে শেষ হয়ে যায়।

বিশেষ করে নারীরা এ কারণে অনেক বেশি নিস্তেজ হয়ে পড়েন। এক সপ্তাহ যদি এভাবে ঘুম কম হয় তাহলে একসময়ে আপনার হৃদরোগ বা ডায়াবেটিস হতে পারে। এমনকি আপনি মোটাও হয়ে যেতে পারেন!

তুর্গিস গবেষণা করে দেখেন যে, কম ঘুমের কারণে সৃষ্ট এই ক্লান্তিভাবের কারণে সংকটাপন্ন যেকোনো পরিস্থিতি সামলাতে তাঁরা চাকরিজীবীরা হিমশিম খান। এর ফলে অফিসের বিভিন্ন কাজ করার সময় তাঁরা যে ধরনের সমস্যার সম্মুখীন হন তা হলো : সিদ্ধান্ত গ্রহণের ক্ষমতা কমে যাওয়া, মনোযোগের অভাব, জ্ঞান হ্রাস পাওয়া, সহজেই বিরক্ত হওয়া এবং ধৈর্য কমে যাওয়া।

এ ধরনের পরিস্থিতিতে কী করবেন :
• প্রতিদিন ব্যায়াম করুন। সকালে বা বিকেলে নিয়মিত হাঁটার অভ্যাস করুন।
• কাজের মাঝে কিছুটা বিশ্রাম নিন। মাঝে মাঝে চেয়ার থেকে উঠে হাঁটাহাঁটি করুন। এতে ক্লান্তিভাব দূর হবে।
• পরিমিত খাবার খাওয়ার চেষ্টা করুন।
• রাতে ঘুমানের আগে কিছুক্ষণ বেডরুমে আলো কমিয়ে রাখুন। এর ফলে আলো নিভিয়ে ঘুমাতে গেলে ঘুম ভালো হবে।
• ওমেগা-৩ ফ্যাটি এসিডসমৃদ্ধ খাবার খাওয়ার চেষ্টা করুন। সম্প্রতি যুক্তরাজ্যের একটি গবেষণায় দেখা গেছে, ওমেগা-৩ ফ্যাটি এসিডসমৃদ্ধ খাবার ঘুমের জন্য বেশ কার্যকরী।

এ ধরনের পরিস্থিতিতে কী করবেন না
• অতিরিক্ত পরিমাণে ক্যাফেইন-সমৃদ্ধ খাবার (চা, কফি) এড়িয়ে চলুন। চিনি কম পরিমাণে খাওয়ার চেষ্টা করুন।
• ঘুমানোর আগে টেলিভিশন, মোবাইল, ল্যাপটপ ব্যবহার করা থেকে বিরত থাকুন। পারলে এসব গ্যাজেট বেডরুমের বাইরে রাখুন।
• এক বিছানার চাদর বেশিদিন ব্যবহার করবেন না। অন্তত এক সপ্তাহ পরপর চাদর বদলে ফেলুন।
• রাত জেগে কাজ করা থেকে বিরত থাকুন।

মানুষের ঘুম কেন কম হয়, তুর্গিস তাঁর গবেষনা থেকে কিছু কারণ উদঘাটন করেছেন :
৮৫.২ শতাংশ মানুষের রুমের তাপমাত্রা অতিরিক্ত গরম অথবা অতিরিক্ত ঠান্ডা হওয়ার কারণে তাদের রাতে ঠিকমতো ঘুম হয় না।
৭১.৯ শতাংশ মানুষ সঙ্গীর কারণে রাতে ঘুমাতে পারেন না।
৬৮.৬ শতাংশ অনাকাঙ্ক্ষিত শব্দের কারণে কম ঘুমান।
৫২.৮ শতাংশ কম ঘুমের জন্য বেশি আলোকে দায়ী করেন।
৪০ শতাংশ বিছানার গদির সমস্যার কারণে ঘুমাতে পারেন না।
৩৫.৯ শতাংশ সন্তানের কারণে রাতে ঘুমাতে পারেন না।
১০.২ শতাংশ মানুষ শারীরিক অসুস্থতার কারণে ঘুমাতে পারেন না।

এই সংক্রান্ত আরো সংবাদ

কুড়িগ্রামে ভয়াবহ বন্যায় ২ লাখ মানুষ পানিবন্দী

কুড়িগ্রামে টানা ৬ দিন বন্যায়  ভয়াবহ রূপ ধারণ করেছে।  মানুষজনবিস্তারিত পড়ুন

এসএমই ফাউন্ডেশনের নতুন এমডি আনোয়ার হোসেন চৌধুরী

এসএমই ফাউন্ডেশনের নতুন ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) হিসেবে যোগ দিয়েছেন সাবেকবিস্তারিত পড়ুন

কক্সবাজারে পাহাড় ধসে প্রাণ গেল মসজিদের মোয়াজ্জেম ও অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রীর

কক্সবাজারে পাহাড় ধসে মারা গেলেন মসজিদের এক মুয়াজ্জিন এবং তারবিস্তারিত পড়ুন

  • গুরুতর অসুস্থ কে এম সফিউল্লাহ
  • সৌদি আরবে হজ পালনের সময় অন্তত ১৯ জনের মৃত্যু
  • ঈদযাত্রায় মহাসড়কে  চলছে ধীরগতিতে গাড়ি
  • রাজধানীর পান্হপথে ৮০ কোটি টাকার খাসজমি উদ্ধার
  • বুয়েট পাচ্ছে ১০০ কোটি টাকার ন্যানো ল্যাব  
  • বসুন্ধরা আবাসিক এলাকায় এক বাসার রান্নাঘরে বিস্ফোরণে শিশুসহ দগ্ধ ৪
  • বাজেট হয় কাগজে কলমে, প্রতিফলন নেই সমাজে
  • রাজধানীতে স্বস্তির বৃষ্টি
  • ভেঙে যাচ্ছে সুন্দরবনের উপকূলীয় এলাকা
  • ঢাকার প্রাকৃতিক জলাশয় রক্ষায় উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে: বিভাগীয় কমিশনার
  • রাজধানীতে পিস্তল লোড-ডাউনলোডের সময় অস্ত্রের দোকানের কর্মচারী গুলিবিদ্ধ
  • গাজীপুরে ট্রাকের পেছনে পিকআপের ধাক্কায় নিহত ২