বুধবার, এপ্রিল ২৪, ২০২৪

আমাদের কণ্ঠস্বর

প্রধান ম্যেনু

তারুণ্যের সংবাদ মাধ্যম

সন্ত্রাসী হামলায় আইনজীবী আহত

নিজস্ব সংবাদদাতা : কোর্টে বিরোধীদলীয় মামলা পরিচালনা করার কারনে সন্ত্রাসী হামলার শিকারে গুরুতর আহত হন বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্ট ও ঢাকা জজ কোর্টের আইনজীবী মোঃ আঈমদাদ খান ও তার সহকারি ছোট ভাই আসিফ দাদ খান।

১৪ই মার্চ ২০২৪ ইং তারিখে ঢাকা জজ কোর্টের পেশাগত দায়িত্ব পালন শেষে চেম্বার থেকে বাসায় ফেরার সময় রাত আনুমানিক ৯.০০ টায় ক্ষমতাসীন দলের সন্ত্রাসী ক্যাডার বাহিনী সানারপাড় বাসস্ট্যান্ডে এডভোকেট মো: আঈমদাদ খান ও তার সহকারী ছোট ভাই আসিফ দাদ খানের গতিরোধ করে এবং তাৎক্ষণিকভাবে দেশীয় ধারালো অস্ত্র দিয়ে এডভোকেট মো: আঈমদাদ খানকে গুরুতর আঘাত করে। অন্যদিকে সহকারী ছোট ভাই আসিফ দাদ খানকে বেদম ভাবে প্রহার করতে থাকে। এসময় আহতদের চিৎকারে স্থানীয় জনগণ জড়ো হলে সন্ত্রাসী বাহিনী ঘটনাস্থল ত্যাগ করে।

আহত অবস্থায় জরুরী ভিত্তিতে এডভোকেট মো: আঈমদাদ ও সহকারী আসিফ দাদ খান স্থানীয় প্রো একটিভ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি হন। সন্ত্রাসী বাহিনীর ধারালো অস্ত্রের আঘাতে এডভোকেট মো: আঈমদাদ খান এর ডান হাতে গভীর ক্ষতের সৃষ্টি হয় ও মাথায় গুরুতর আঘাত প্রাপ্ত হন। বেদম প্রহার জনিত কারণে আসিফ দাদ খান শরীরের বিভিন্ন স্থানে মারাত্মকভাবে জখমপ্রাপ্ত হন।

আক্রমনকালীন সময়ে সন্ত্রাসীরা বিরোধীদলীয় মামলায় আইনি সহায়তা করতে নিষেধ করা স্বত্বেও মামলা পরিচালনা করার দায়ে এডভোকেট মো: আঈমদাদ ও সহকারী আসিফ দাদ খানকে জানে মেরে ফেলার উদ্দেশ্যে চরমভাবে হুমকি দেন বলে জানা যায়।

সাক্ষাতকালীন ঘটনার সূত্র সম্পর্কিত প্রশ্ন করলে অ্যাডভোকেট  মোঃ আঈমদাদ খান জানান, ”জনাব মোহাম্মদ রুবেল আমার ক্লায়েন্ট। তিনি স্থানীয় বিরোধী দলীয় কর্মী। মোহাম্মদ রুবেল এর বিরুদ্ধে দায়েরকৃত মামলা পরিচালনার দায়িত্ব নেই আমি। রুবেলের মামলা পরিচালনায় সহায়তা করার রেশ ধরে ক্ষমতাসীন দলের সন্ত্রাসী ক্যাডার বাহিনী আমার উপর আক্রমন চালায়”

জানা যায় যে, কোর্টে দায়িত্ব পালনকালীন সময়ে বিরোধী দলীয় আসামির পক্ষে মামলা পরিচালনা করায় তিনি বিভিন্ন সময়ে সরকারদলীয় সন্ত্রাসীদের হুমকির শিকার হন।

এর আগে গত ২৯ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ ইং তারিখে কোর্ট থেকে বাসায় ফেরার সময় সরকার দলীয় নেতা মাসুদুর রহমান মোল্লা বাবুল ও বাদল কমিশনার এর সন্ত্রাসী বাহিনী শাওন, আবুল সহ অজ্ঞাতনামা ৮-১০ জন মিলে তাদের উপর চড়াও হয়। সেদিন প্রতিউত্তরে অ্যাডভোকেট মো: আঈমদাদ খান ও তার  ছোট ভাই ন্যায় বিচার প্রতিষ্ঠার পক্ষে পেশাগত দায়িত্ব পালনের প্রত্যয় ব্যক্ত করেন।

তিনি জানান, মক্কেল কোন দল করে সেটা তার জন্য মুখ্য বিষয় নয়, ন্যায় বিচারের স্বার্থে মক্কেলকে আইনি সেবা প্রদান করা তার দায়িত্ব ও কর্তব্য বলে তিনি মনে করেন। আর সেই দায়িত্ব পালন করতে গিয়েই আজ আক্রমন ও জীবন মরণের হুমকির শিকার হন বলে মতামত ব্যক্ত করেন।

২৯ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ ইং তারিখের ঘটনার এক পর্যায়ে সন্ত্রাসী বাহিনী তাদেরকে লাঞ্ছিত করে এবং ঘটনাস্থল ত্যাগ করার পূর্বে  রুবেলের মামলা সহ অন্যান্য বিরোধী দলীয় পক্ষের মামলা পরিচালনার দায়িত্ব থেকে সরে না দাঁড়ালে জানে মেরে ফেলার হুমকি দেয় বলে জানান তিনি। অ্যাডভোকেট মো: আঈমদাদ খান তাদের হুমকি কে কর্ণপাত না করে নিজের পেশাগত দায়িত্ব যথাযথভাবে পালনে ব্যাস্ত থাকেন।

এই সংক্রান্ত আরো সংবাদ

সোনারগাঁয়ে ভোটকেন্দ্রে গুলিবিদ্ধ হয়ে যুবক নিহত

নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁওয়ে নির্বাচনী সহিংসতায় পুলিশের গুলিতে হৃদয় ভূঁইয়া (২৩) নামেরবিস্তারিত পড়ুন

নারায়ণগঞ্জে শ্যালিকাকে ধর্ষণের ভিডিও ইন্টারনেটে, দুলাভাই গ্রেপ্তার

নারায়ণগঞ্জের বন্দরে শ্যালিকাকে ধর্ষণ করে সেই ভিডিও চিত্র ইন্টারনেটে ছড়িয়েবিস্তারিত পড়ুন

নারায়ণগঞ্জ ডিবির কর্মকর্তার বিরুদ্ধে চাঁদাবাজির মামলা

নারায়ণগঞ্জ জেলা পুলিশের গোয়েন্দা শাখার (ডিবি) সহকারী এক উপপরিদর্শকের (এএসআই)বিরুদ্ধেবিস্তারিত পড়ুন

  • নারায়ণগঞ্জে ছেলের ছুরিকাঘাতে বাবা খুন
  • নর্দমার ভেতর পাঁচ বছর বয়সী শিশুর গলাকাটা লাশ!
  • সাত খুন: ডেথ রেফারেন্স ও আপিল শুনানিতে বেঞ্চ নির্ধারণ
  • নারায়ণগঞ্জে বজ্রপাতে দুইজনের মৃত্যু
  • নারায়ণগঞ্জে স্ত্রীকে হত্যার পর স্বামীর আত্মহত্যা
  • শেয়াল-কুকুরে খেল গৃহবধূর লাশ!
  • প্রবাসীর সুন্দরী স্ত্রীকে নিয়ে যুবদলের সভাপতি উধাও
  • নারায়ণগঞ্জে মাটিতে পুতে রাখা যুবকের লাশ উদ্ধার
  • নারায়ণগঞ্জে যুবকের মস্তকবিহীন লাশ উদ্ধার
  • নারায়ণগঞ্জে ধর্ষণের ভিডিও ধারণ করে ফের মাদ্রাসাছাত্রীকে ধর্ষণের চেষ্টা!
  • চতুর্থ স্ত্রীর যৌতুক মামলায় পুলিশ কর্মকর্তার কারাদণ্ড