রবিবার, এপ্রিল ২১, ২০২৪

আমাদের কণ্ঠস্বর

প্রধান ম্যেনু

তারুণ্যের সংবাদ মাধ্যম

প্যালাজো আদর্শ হতে পারে অন্তঃসত্ত্বা মায়েদের জন্য !

আপনিও কি মা হতে চলেছেন? যদি তাই হয় তা হলে বুঝবেন জীবনের এক পরম সময়ের মধ্যে দিয়ে আপনি অতিক্রম করছেন। মা হওয়ার সময় মনের এক ধরনের প্রস্তুতি দরকার।

ইতিমধ্যেই আপনার শাশুড়ি, মা আপনার জন্য সুস্বাদু সব পদ রান্না করে আনছেন, দিচ্ছেন নানা রকম পরামর্শ। বিবাহিতা বন্ধুরা এসে তাঁদের মা হওয়ার অভিজ্ঞতার কথা বলছেন।

নিজেকে তৈরি করুন মা হওয়ার দিনগুলোর জন্য। বেশির ভাগ সময় যেটা হয় আমরা মা হওয়ার বিশেষ সময়ের প্রস্তুতির কথা ভুলে কোনও রকমে দিনগুলো কাটিয়ে দিই। এটা একেবারেই করা উচিত নয়।

চেহারা দিয়েই শুরু করা যাক। আপনাকে ভাল দেখালে আপনার মন ভাল থাকবে। প্রথম দিকে মর্নিং সিকনেস বা সকালে ঘুম থেকে উঠলে যে শরীর খারাপের ভাব হয় সেই সময়টা নিজেকে পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন করে তরতাজা রাখুন।

প্রথম ধাক্কাটা কাটিয়ে ওঠার পর দেখবেন আপনার চেহারায় পরিবর্তন আসছে, কারণ সন্তান আপনার গর্ভে বেড়ে উঠছে তখন। এই সময়টা আপনার জামাকাপড় পরার অভ্যেসে পরিবর্তন আনতে হবে। এর জন্য ওয়ার্ড্রোবের সংগ্রহেও নতুনত্ব আনার দরকার আছে। পেটটা যেহেতু বড় হয়ে যায় তাই এই সময়টা শাড়ি পরলে শরীরের স্ফীত অংশ ঢাকা থাকে।

যারা শাড়ির বদলে ঢিলেঢালা পোশাক পরতে চান তাঁদের বলব লং টপ আর দোপাট্টার সঙ্গে র‌্যাপঅ্যারাউন্ড লুঙ্গি পরুন। দর্জিকে অর্ডার দিয়ে বানানো প্যালাজো প্যান্ট পরতে পারেন কুর্তি আর লং শার্টের সঙ্গে। পরতে পারেন ঢিলেঢালা ফিটের আংরাখা ধরনের কামিজের সঙ্গে চুড়িদার বা দর্জিকে দিয়ে বানানো সালোয়ার।

চুলের স্টাইল রকমারি করতেই পারেন। কিন্তু মুখ যেন পরিষ্কার দেখায়। মাঝে মাঝে স্টাইলিংয়ের জন্য এবং মাথা পরিষ্কার রাখার জন্য হেয়ারড্রেসারের কাছে যান। পেডিকিওর ম্যানিকিওরও করিয়ে নিন।

ভাল ম্যাসাজ করার লোক জানা থাকলে সারা শরীর ম্যাসাজ করান। ম্যাসাজ করাবেন খুব ভাল তেল দিয়ে। আজকাল বাজারে খুব সুন্দর সব ভেষজ তেল পাওয়া যায়।

মুখশ্রী আপনার সম্পদ, মুখ পরিষ্কার রাখুন। ভুরুকে সুন্দর করে সাজিয়ে তুলুন। রাতে অবশ্যই ক্রিম লাগাবেন। বাইরে যাওয়ার সময় মেক আপ ব্যবহার করবেন। তবে এটা ঠিক অন্তঃসত্ত্বা মেয়েদের ত্বকের জেল্লাই আলাদা। খুব বেশি ত্বকের যত্ন নেওয়ার দরকার পড়ে না।

আসন্ন সন্তানকে কী ভাবে লালনপালন করবেন সে বিষয়ে পড়াশোনা করুন। ভাল গান শুনবেন অবশ্যই। উপন্যাস কিংবা নন ফিকশনও পড়তে পারেন। যে ধরনের বই পড়তে ভাল লাগে সেই ধরনের বইই পড়বেন। মাঝে মাঝে নাটক কিংবা গানবাজনার অনুষ্ঠানে যান। যত খুশি জীবনটাকে উপভোগ করে নিন। কারণ নতুন অতিথি আসার পর আপনি কিন্তু আর সময় পাবেন না।

মনে রাখুন এই মুহূর্তে আপনি যেমন ভাবে জীবন উপভোগ করবেন সেটাই সন্তানের মধ্যে সঞ্চারিত হবে।

এই সংক্রান্ত আরো সংবাদ

ত্বকের দাগ দূর করার ঘরোয়া উপায়

ত্বকে নানা কারণেই দাগ পড়তে পারে। বলা বাহুল্য, এই দাগবিস্তারিত পড়ুন

দেশের বাজারে কমলো স্বর্ণের দাম

দেশের বাজারে কমেছে স্বর্ণের দাম। সব থেকে ভালো মানের বাবিস্তারিত পড়ুন

কঠিন রোগে ভুগছেন হিনা খান, চাইলেন ভক্তদের সাহায্য

ভারতীয় টেলিভিশন অভিনেত্রীদের মধ্যে হিনা খানের সাজপোশাক নিয়ে চর্চা লেগেইবিস্তারিত পড়ুন

  • মিস ওয়ার্ল্ড-২০২৪ জিতলেন ক্রিস্টিনা পিসকোভা
  • দুই নারী আম্পায়ারকে নিয়োগ দিচ্ছে বিসিবি
  • তিশা থেকে জয়া আহসান, কপালে বাঁকা টিপের সেলফির রহস্য কী?
  • পরোক্ষ ধূমপান থে‌কে নারী‌দের সুরক্ষা চায় ‘নারী মৈত্রী’
  • মিস ওয়ার্ল্ড প্রতিযোগিতার ফাইনালে বাংলাদেশের নীলা
  • মন্ত্রণালয়ের নামে ‘মহিলা’ বদলে দেয়া হচ্ছে ‘নারী’
  • তরুণীরা আবেদনময়ী সেলফি তোলেন কেন?
  • যেভাবে প্রতিবন্ধকতা জয় করছেন কানিজ ফাতেমা
  • ‘বুড়ার কাছ থেকে না নিলে মারা যাব’
  • স্কুলের শেষ দিনই টুইটারে মালালার প্রথম দিন
  • মাত্র ১ সপ্তাহ ভাত-সিদ্ধ জল দিয়ে মুখ ও চুল ধুয়েছিলেন এই তরুণী, যার ফলাফল হলো অবিশ্বাস্য!
  • হিজাব পরায় মুসলিম ছাত্রীর ওপর ‘থুতু’ নিক্ষেপ