সোমবার, জুন ১৭, ২০২৪

আমাদের কণ্ঠস্বর

প্রধান ম্যেনু

তারুণ্যের সংবাদ মাধ্যম

হ্যাঁ, আমি ব্রা পরি এবং তা দেখা যায়… তাতে কী?

নিবেদিতা কুমার ফেসবুকে “Yes, I wear a bra. Yes, it shows. So?” শিরোনামে একটি নোট লিখেছেন, যেখানে পুরুষতান্ত্রিক সমাজ ব্যবস্থায় পুরুষের দৃষ্টিভঙ্গির চমৎকার ছবি ফুটে উঠেছে। বাংলাদেশের অসংখ্য নারীকে নানান অহেতুক যন্ত্রণাকর এবং অস্বস্থিকর পরিস্থিতির ভেতর দিয়ে যেতে হয়। বাংলাদেশের নারীরা কি স্বাধীন? তারা তাদের নিজেদের মতো চলতে পারে, সিদ্ধান্ত নিতে পারে? স্বাধীনতা দিবসের প্রাক্কালে প্রিয় পাঠকদের জন্য সেই নোটটি অনুবাদ করে এখানে প্রকাশ করা হলো।

কেন? কেন এই কাজটা করতে হবে আপনার? কেন আমার বুকের দিকে তাকিয়ে থাকতে হবে? কেন বাসে ওঠার পর লোলুপ দৃষ্টি ঘুরে বেড়াবে আমার শরীরে? কেন আমি বসে পড়ার পর কাপড়ের ফাঁক দিয়ে আমার শরীর দেখার চেষ্টা করা হবে?

কে দিয়েছে আপনাদের এই অধিকার? কোন অধিকারে ভিড় বাসে আপনি আমার শরীরে হাত দেবেন? কেন ইচ্ছে করে আমার শরীরের ওপর ঢলে পড়বেন? কেন পা ক্রস করে বসলে আমার পায়ের দিকে লোভাতুর দৃষ্টি চলে যায় সাথে সাথে?

আমি কি শুধুই এক মাংসপিণ্ড?

আপনার কি মনে হয়? আমার কেমন লাগে, যখন রাতে বাড়ি ফেরার সময়ে বারবার ভয়ে পেছনে ফিরে তাকাতে হয় আমাকে কারণ আপনি একদৃষ্টিতে তাকিয়ে আছেন আমার ঘাড়ের দিকে?

ভেবে দেখুন আমার কেমন লাগে, যখন আমার ফোনের ব্যাটারি ডেড হয়ে যায় রাস্তার মাঝে?

যখন আমি রাত্রে বাড়ি ফিরবো বলে আমার পরিবার-পরিজনের মুখে পড়ে শঙ্কার ছায়া?

যখন আমি নির্ঘুম চোখে বাসে বসে, ভাবছি কখন না আপনার কালো হাত আমার পোশাক ছিঁড়ে নিয়ে যায়।

আমি কি পোশাক পরবো, তা ঠিক করে দেবার আপনি কে?

আমাকে এভাবে ভীত করে তোলার অধিকার কে দিয়েছে আপনাকে?

আপনি কি করে ভাবেন, আমার পোশাকের ভেতর থেকে বের হয়ে থাকা ব্রা-স্ট্র্যাপ দেখে আপনার চোখ যখন চকচক করে ওঠে, তখন আমার ভালো লাগে? হ্যাঁ আমি ব্রা পরি। হ্যাঁ, ওটা দেখা যাচ্ছে? তাতে আপনার কি?

ব্যাস, এখন তো বলবেন, আমার পোশাকের জন্যই আমাকে লাঞ্ছিত হতে হয়। খবরদার ওসব অজুহাত টানবেন না। আপনি কি ভেবেছেন, আপনি যখন মধ্যবয়সী শাড়ি পরিহিত মহিলাটির শরীরের দিকে তাকাচ্ছিলেন, তখন আমরা কেউ খেয়াল করিনি? যখন স্কুল ড্রেস পরা বাচ্চা মেয়েটার শরীর খুবলে খাচ্ছিল আপনার চোখ, তা আমরা কেউ লক্ষ্য করিনি?

ওড়না বা আঁচল একটু সরে গেলেই আপনাদের মুখ দিয়ে কথার তুবড়ি ছুটতে থাকে, আমাদের দায়ী করতে তখন একটুও বাধে না আপনাদের। আপনারা দেখতেই থাকেন, আর আপনাদের মুখে ফুটে ওঠে লোলুপ হাসি।

হ্যাঁ, আমি একজন নারী, আমি রাত্রে বাইরে যাই। আমি হয়তো ধূমপান করি অথবা করি না। আমি হয়তো অ্যালকোহল পান করি অথবা করি না। কিন্তু তাতেই কি আমি খারাপ হয়ে গেলাম? তার মানে কি এই যে আপনি এবং রাস্তার অন্য সব পুরুষের অধিকার আছে আমাকে লাঞ্ছিত করার?

আপনাকে বলছি, হ্যাঁ আপনি! আপনি নিজের মেয়েকে বলেন অন্যের নজর থেকে সাবধান থাকতে, কিন্তু রাস্তায় একটি মেয়েকে দেখলে তার প্রতি আপনার নজর ঠিকই লোলুইপ হয়ে ওঠে। হ্যাঁ আপনি, বোনের দিকে কেউ দৃষ্টি দিলে আপনার মাথায় রক্ত উঠে যায় অথচ রাস্তার মোড়ে দাঁড়িয়ে আর দশটি মেয়ের উদ্দেশ্যে সিটি বাজাতে দ্বিধা হয়না আপনার।

এর পরেও বলবেন, আমাদের আরো সাবধান থাকা উচিত?

মূল: নিবেদিতা এন. কুমার
অনুলিখন: দেয়া

এই সংক্রান্ত আরো সংবাদ

ওডিশার প্রথম নারী মুসলিম এমএলএ সোফিয়া ফিরদৌস

ভারতের পূর্বাঞ্চলের রাজ্য ওডিশা থেকে প্রথম নারী ও মুসলিম এমএলএবিস্তারিত পড়ুন

গফরগাঁওয়ে শ্রেষ্ঠ শ্রেণি শিক্ষক শামছুন নাহার

জাতীয় শিক্ষা সপ্তাহ- ২০২৪ এ ময়মনসিংহের গফরগাঁও উপজেলায় মাধ্যমিক পর্যায়েবিস্তারিত পড়ুন

২৪ ঘণ্টা না যেতেই ফের কমলো স্বর্ণের দাম

একদিন না যেতেই আবারও স্বর্ণের দাম কমানোর ঘোষণা দিয়েছে জুয়েলারিবিস্তারিত পড়ুন

  • গরমে চুলের যত্ন নেবেন কীভাবে?
  • একলাফে সোনার দাম ভ‌রিতে কমলো ৩১৩৮ টাকা
  • ত্বকের দাগ দূর করার ঘরোয়া উপায়
  • দেশের বাজারে কমলো স্বর্ণের দাম
  • কঠিন রোগে ভুগছেন হিনা খান, চাইলেন ভক্তদের সাহায্য
  • মিস ওয়ার্ল্ড-২০২৪ জিতলেন ক্রিস্টিনা পিসকোভা
  • দুই নারী আম্পায়ারকে নিয়োগ দিচ্ছে বিসিবি
  • তিশা থেকে জয়া আহসান, কপালে বাঁকা টিপের সেলফির রহস্য কী?
  • পরোক্ষ ধূমপান থে‌কে নারী‌দের সুরক্ষা চায় ‘নারী মৈত্রী’
  • মিস ওয়ার্ল্ড প্রতিযোগিতার ফাইনালে বাংলাদেশের নীলা
  • মন্ত্রণালয়ের নামে ‘মহিলা’ বদলে দেয়া হচ্ছে ‘নারী’
  • তরুণীরা আবেদনময়ী সেলফি তোলেন কেন?